kalerkantho


বিনিয়োগে আগ্রহী থাই ব্যবসায়ীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



বিনিয়োগে আগ্রহী থাই ব্যবসায়ীরা

এফবিসিসিআইয়ের সঙ্গে থাই প্রতিনিধিদলের আলোচনা

বাংলাদেশের সম্ভাবনাময় খাতগুলোতে বিনিয়োগে আগ্রহী থাইল্যান্ডের ব্যবসায়ীরা। তারা জানায়, নিকটতম প্রতিবেশী হিসেবে বাংলাদেশ থাই ব্যবসায়ীদের জন্য একটি আকর্ষণীয় গন্তব্য। থাইল্যান্ড সরকারও বাংলাদেশের সঙ্গে বাণিজ্য সম্পর্ক আরো উন্নয়নে বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে।

বাংলাদেশে শিল্প ও বণিক সমিতি ফেডারেশনের (এফবিসিসিআই) আয়োজনে গতকাল সোমবার বাংলাদেশে ও থাইল্যান্ডের ব্যবসায়ীদের মধ্যে এক বৈঠকে এসব কথা বলেন তাঁরা। এফবিসিসিআই সভাপতি শফিউল ইসলাম (মহিউদ্দিন) সভা পরিচালনা করেন। সভায় বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা, এফবিসিসিআই পরিচালক ও শীর্ষস্থানীয় ব্যবসায়ীরা অংশ নেন। ১৪ সদস্যের থাই প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন দেশটির ইন্টারন্যাশনাল ইনস্টিটিউট ফর ট্রেড অ্যান্ড ডেভেলপমেন্টের (আইটিডি) নির্বাহী পরিচালক মানু সিথিপ্রাসাসানা। এ ছাড়া প্রতিনিধিদলে থাইল্যান্ডের বিনিয়োগ বোর্ডের ঊর্ধ্বতন বিনিয়োগ প্রমোশন অফিসার আপিপং খুনাকর্নবোদিনতর এবং বিভিন্ন বাণিজ্য খাতের প্রতিনিধিরা ছিলেন।

এফবিসিসিআই সভাপতি জানান, দেশে বিনিয়োগের পরিবেশ আরো আকর্ষণীয় করতে এফবিসিসিআই সরকারের সঙ্গে নিবিড়ভাবে কাজ করে যাচ্ছে। তিনি বলেন, দুই দেশের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য এখনো সন্তোষজনক পর্যায়ে পৌঁছেনি। তিনি বাংলাদেশ সরকারের আকর্ষণীয় বিনিয়োগ সুবিধা যেমন ট্যাক্স হলিডে, রপ্তানির ক্ষেত্রে শুল্কমুক্ত সুবিধা, কর্পোরেট কর ছাড়ের কথা উল্লেখ করে প্রতিনিধিদলকে সম্ভাবনাময় খাতগুলোতে বিনিয়োগের আহ্বান জানান। বর্তমান সরকারের দেওয়া ১০০টি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলের সুবিধা নেওয়ার জন্যও থাই ব্যবসায়ীদের তিনি আহ্বান জানান।

থাইল্যান্ড প্রতিনিধিদলের নেতা মানু সিথিপ্রাসাসানা বলেন, বাংলাদেশ থাইল্যান্ডের ব্যবসায়ীদের জন্য অত্যন্ত আকর্ষণীয় একটি গন্তব্য। থাইল্যান্ড সরকারও এ বিষয়টিকে গুরুত্ব দিয়ে বাংলাদেশের সঙ্গে বাণিজ্য সম্পর্ক নতুন উচ্চতায় নিতে চায় বলে তিনি উল্লেখ করেন। বাংলাদেশের সংশ্লিষ্ট খাতগুলোর ব্যবসায়ীদের সঙ্গে যোগাযোগ এবং যৌথ বিনিয়োগ স্থাপনের ক্ষেত্রে এ সফর বিশেষ সহায়ক হবে বলে তিনি জানান।



মন্তব্য