kalerkantho


পাঁচ কারখানার সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন

৪০০ কারখানার সংস্কার কাজ শেষ অ্যালায়েন্সের

অ্যালায়েন্স জোটভুক্ত মোট কারখানায় ৯১% সংস্কারকাজ শেষ হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



উত্তর আমেরিকার ক্রেতাজোটের সংগঠন অ্যালায়েন্স ফর বাংলাদেশ ওয়ার্কার সেফটি (অ্যালায়েন্স) গত জুলাই মাস থেকে এ পর্যন্ত আরো ৩৬টি কারখানায় তাদের সংশোধনী কর্মপরিকল্পনার (ক্যাপ) সব মেরামতকাজ সম্পন্ন করেছে। ফলে এই ক্রেতাজোটের সংস্কারকাজ সম্পন্নকারী কারখানার সংখ্যা দাঁড়াল ৪০০টি। এ ছাড়া অ্যালায়েন্স জোটভুক্ত মোট কারখানায় ৯১ শতাংশ সংস্কারকাজ শেষ হয়েছে। গতকাল সোমবার সংগঠনটি এক সংবাদ বিজ্ঞপিতে এসব তথ্য জানায়।

অ্যালায়েন্সের নির্বাহী পরিচালক সাবেক রাষ্ট্রদূত জিম মরিয়ার্টি বলেন, অ্যালায়েন্স জোটভুক্ত কারখানাগুলোতে সংস্কারকাজ দ্রুতগতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। এ বছরের শেষ নাগাদ অ্যালায়েন্সের রূপান্তরকালীন সময়ে তাদের সদস্য ক্রেতাদের পণ্য উত্পাদনকারী বেশির ভাগ কারখানাই একটি চমত্কার কাঠামো লাভ করবে। সংস্কার কার্যক্রমের দেওয়া কঠোর নিরাপত্তা মানদণ্ড অনুসারে কারখানাগুলো তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করবে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, অ্যালায়েন্সের মেয়াদ শেষেও সদস্য কম্পানিগুলো বাংলাদেশের যেসব কারখানা থেকে পণ্য ক্রয় করে সেসব কারখানার পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ অব্যাহত রাখবে।

সংবাদ বিজ্ঞপিতে বলা হয়, ক্যাপ সম্পন্ন করার পাশাপাশি, আগস্টে পাঁচটি কারখানার সঙ্গে অ্যালায়েন্স ব্যাবসায়িক সম্পর্ক ছিন্ন করেছে। ফলে এ যাবৎ ব্যাবসায়িক সম্পর্ক ছিন্ন হওয়া মোট কারখানার সংখ্যা ১৭৩।

অ্যালায়েন্স চিফ সেফটি অফিসার পউল রিগবি বলেন, এই কারখানাগুলো বর্তমানে নিরাপত্তায় আন্তর্জাতিক মানদণ্ড অর্জন করেছে। সংস্কার কার্যক্রমের সঙ্গে জড়িত সবাই এই অর্জনের গর্বের অংশীদার।



মন্তব্য