kalerkantho


‘শিক্ষাগুরু’ নিয়ে এলো এনআরবিসি ব্যাংক

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১১ জুন, ২০১৮ ০০:০০



দেশের স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের জন্য বাড়তি সুবিধাসংবলিত ব্যাংকিং পণ্য ‘শিক্ষাগুরু’ চালু করেছে এনআরবি কমার্শিয়াল (এনআরবিসি) ব্যাংক। এই পণ্যের সেবাগ্রহীতারা একদিকে যেমন ব্যাংকটির আমানতের স্ট্যান্ডার্ড সুদ হারের থেকে ০.৫০ শতাংশ বেশি সুদ পাবেন, অন্যদিকে ঋণের বিপরীতের সুদ দিতে হবে অন্যদের থেকে ১ শতাংশ কম। এ ছাড়া ব্যাংক হিসাব পরিচালনা, ডেবিট বা ক্রেডিট কার্ডের ওপর কোনো ধরনের সার্ভিস চার্জও রাখবে না ব্যাংকটি।

গতকাল রবিবার ধানমণ্ডিতে এনআরবিসি নারী শাখায় এ সেবার উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ও কাকলী স্কুল অ্যান্ড কলেজের চেয়ারম্যান সেলিমা খাতুন। এ সময় ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী খন্দকার রাশেদ মাকসুদ, কাকলী স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ দ্বীন মোহাম্মদ খান, ব্যাংকের এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট কাজী মো. সাফায়েত কবিরসহ ব্যাংকের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক খন্দকার রাশেদ মাকসুদ বলেন, ‘সমাজে শিক্ষকদের গুরুত্ব অনেক। কিন্তু আর্থিক অসংগতির কারণে অনেক ক্ষেত্রে তাঁরা অনেক ধরনের সুযোগ-সুবিধা থেকে বঞ্চিত হন। শিক্ষকদের অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ তাঁদের প্রতি কৃতজ্ঞতা থেকেই আমরা এই পণ্যটি চালু করেছি। এখান থেকে মুনাফা করাটা আমাদের লক্ষ্য না। এই শ্রেণির লোকদের জীবন-মান উন্নয়নই আমাদের লক্ষ্য।’

‘শিক্ষাগুরু’ পণ্যটির গ্রাহকরা তাদের তিন অথবা ছয় মাসের বেতনের সমপরিমাণ টাকা সহজ শর্তে এবং সহজ কিস্তিতে ঋণ পাবেন। ব্যাংক হিসাব মেইনটেনেন্সের ফি, এসএমএস ব্যাকিং সার্ভিস, ইন্টারনেট ব্যাংকিং, অনলাইন ব্যাংকিং, ডেবিট কার্ড, ক্রেডিট কার্ডে শিক্ষাগুরু গ্রাহকরা বিনা মূল্যে সুবিধা পাবেন।

 



মন্তব্য