kalerkantho


বাজেট আলোচনায় এনবিআর চেয়ারম্যান

নিম্ন আয়ের মানুষের ওপর করহার কমবে

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

২২ এপ্রিল, ২০১৮ ০০:০০



নিম্ন আয়ের মানুষের ওপর করহার কমবে

অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ড চেয়ারম্যান ও অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগের সচিব মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া। ছবি : কালের কণ্ঠ

নিম্ন আয়ের মানুষের ওপর করহার ১০ শতাংশ থেকে কমানোর চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে বলে উল্লেখ করেছেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান ও অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগের সচিব মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া। এ ছাড়া প্রতিবন্ধী ও নারীদের কর সুবিধা আরো বাড়ানো হচ্ছে। একই সঙ্গে করপোরেট করের ধাপ কমানো এবং জমি নিবন্ধন ফি কমিয়ে সহজ করার পরিকল্পনার কথা বলেন তিনি।

চট্টগ্রামে আগাম বাজেট পরামর্শ শুনতে এসে ব্যবসায়ী ও পেশাজীবীদের উদ্দেশে তিনি এ কথা বলেন। চট্টগ্রাম চেম্বার, চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন চেম্বার, চট্টগ্রাম উইমেন চেম্বার নেতাদের সঙ্গে পৃথক প্রাক-বাজেট মতবিনিময় করেন তিনি।

.রাজস্ব আয় বাধাগ্রস্ত না করে এবারের বাজেট গণমুখী করা হবে উল্লেখ করে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান বলেন, আগামী বাজেটে ব্যবসায়ীদের কিছু সুবিধা দেওয়া হবে, তাহলে ব্যবসা বৃদ্ধি পাবে। কারণ ব্যবসা বাড়লেই রাজস্ব বাড়বে। বিনিয়োগ বাড়াতে কস্ট অব ডুয়িং বিজনেস বা খরচ কমানোর জন্য শুল্ক স্তর বিন্যাস বা কমানো হবে। ব্যাংক সুদ কমানোর ক্ষেত্রে নেওয়া উদ্যোগ কার্যকর হয়েছে, এতে ক্রমান্বয়ে সুদের হার কমে আসবে।

রাজস্ব বোর্ড চেয়ারম্যান বলেন, ‘সরকারের কোষাগারে একবার রাজস্ব ঢুকলে সেটি আর ফেরত পাওয়া যায় না—এমন ধারণা বা সংস্কৃতি থেকে আমরা বের হয়ে আস্থা বাড়াতে চাই। বছরের আয়ের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে বাড়তি কর আগামী জুলাই মাস থেকে ফিরিয়ে দেওয়ার কাজ শুরু হবে।’

পোল্ট্রি ও ফিশারিজের মতো প্রান্তিক পর্যায়ে শিল্প খাতকে বাড়তি সুবিধা দিতে এবার বাজেটে করহার সংশোধন করা হবে বলেও জানিয়ে তিনি বলেন, তৈরি পোশাক শিল্পের মতো অন্য খাতের উদ্যোক্তাদেরও বন্ড সুবিধা দেওয়া হবে। আর অগ্রিম আয়কর কমিয়ে আনা বা বাতিলের চিন্তাভাবনা নেই উল্লেখ করে মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া বলেন, ‘নির্দিষ্ট কিছু পণ্যে সেটি সামঞ্জস্যপূর্ণ করতে চাই।’

চট্টগ্রাম চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম রেফ্রিজারেটর ও এয়ারকন্ডিশনার উৎপাদনে প্রদত্ত এসআরওর সুবিধা ১০ বছর পর্যন্ত বৃদ্ধি করা, ২০২৫ সাল পর্যন্ত পোল্ট্রি ফার্মকে কর অবকাশ সুবিধা প্রদান, লুব্রিকেটিং অয়েল রপ্তানির ওপর ২০ শতাংশ নগদ প্রণোদনা, কাঁচামাল ও মেশিনারিজ পার্টস আমদানিতে ২৫ হাজার ডলার পর্যন্ত অগ্রিম পেমেন্টের অনুমোদন, কাঁচামাল আমদানির অগ্রিম আয়কর ৫ শতাংশের পরিবর্তে ২.৫ শতাংশ নির্ধারণ, প্লাস্টিক, লেদার ও পাটজাত পণ্য উৎপাদনে কাঁচামাল আমদানিতে শুল্ক মওকুফ প্রদানসহ বিভিন্ন প্রস্তাবনা দেন।

বিজিএমইএর প্রথম সহসভাপতি মঈনুদ্দিন আহমেদ মিন্টু, চেম্বার পরিচালক মাহবুবুল হক চৌধুরী বাবর ও অঞ্জন শেখর দাশ, সাবেক চেম্বার সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার আলী আহমেদ ও আমীর হুমায়ুন মাহমুদ চৌধুরী, সাবেক সহসভাপতি বেলাল আহমেদ, কক্সবাজার চেম্বার সভাপতি আবু মোরশেদ চৌধুরী, রাঙামাটি চেম্বার সভাপতি বেলায়েত হোসেন ভূঁইয়া, বিকেএমইএর সাবেক পরিচালক শওকত ওসমান, বাংলাদেশ আয়রন অ্যান্ড স্টিল মিল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আনামুল হক ইকবাল, রিহ্যাবের সভাপতি আব্দুল কাইয়ুম চৌধুরী, লুব-রেফের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. ইউসুফ, বাংলাদেশ ফ্রোজেন ফুডস এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের পরিচালক দোদুল কুমার দত্ত, চট্টগ্রাম ট্যাক্সেস বার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মুস্তফা কামাল মনসুর, বিএসআরএমের প্রতিনিধি শেখর রঞ্জন কর, জিপিএইচ ইস্পাতের প্রতিনিধি ওসমান গণি চৌধুরী প্রমুখ অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন।

দুপুরে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন চেম্বারে বাজেট প্রস্তাবনায় প্রেসিডেন্ট খলিলুর রহমান বলেন, চট্টগ্রাম কাস্টম হাউস কার্যক্রমে পর্যাপ্ত স্ক্যানিং মেশিন স্থাপন, পুরনো আমলের বালাম পদ্ধতির পরিবর্তে অতি দ্রুত অটোমেশন, স্থানীয়ভাবে উৎপাদিত পণ্য, প্যাকেজিং ইন্ডাস্ট্রি যথা : সিআর কয়েল, কেমিক্যাল, জাহাজ শিল্পে ব্যবহৃত কাঁচামাল, চা বাগান সম্প্রসারণ ও উৎপাদনের জন্য মূলধন মেশিনারি আমদানিতে বৈষম্যনীতি পরিহারসহ স্থানীয় শিল্প সুরক্ষার ওপরে গুরুত্বারোপ করেন। সিএমসিসিআইয়ের পক্ষে সহসভাপতি এ এম মাহবুব চৌধুরী, এম এ মালেক এবং পরিচালক প্রফেসর আহছানুল আলম পারভেজ, নাদের খান, সদস্য মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন এবং আইসিএমের ভাইস প্রেসিডেন্ট মোদাচ্ছের সিদ্দিকী বক্তব্য দেন।


মন্তব্য