kalerkantho


দরপতন অব্যাহত

ডিএসইর মূল্যসূচক কমেছে ৮৮ পয়েন্ট

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



 

 

 

 

মুদ্রানীতি ঘোষণার দ্বিতীয় দিনেও পুঁজিবাজারে দরপতন অব্যাহত রয়েছে। গত সোমবার বেপরোয়া ঋণের লাগাম টেনে মুদ্রানীতি ঘোষণা করে বাংলাদেশ ব্যাংক। তবে ওই দিন শেয়ার কেনার চাপে সূচক ও লেনদেন বাড়লেও পরবর্তী দুই দিনেই কমছে সূচক। দেশের দুই পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচক ব্যাপকভাবেই কমেছে।

গতকাল বুধবার ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৪৭২ কোটি ২৭ লাখ টাকা। আর সূচক কমেছে ৮৮ পয়েন্ট। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৩৯৯ কোটি ২২ লাখ টাকা আর সূচক কমেছিল ৪৯ পয়েন্ট। সেই হিসাবে লেনদেন বাড়লেও কমেছে সূচক। একই সঙ্গে বেশির ভাগ কম্পানির শেয়ার দামও হ্রাস পেয়েছে।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, লেনদেন শুরুর পর থেকেই শেয়ার বিক্রির চাপে সূচক কমতে থাকে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে শেয়ার বিক্রি বাড়লে সূচকের পতনও বাড়ে। এতে সূচকে ব্যাপক পতনের মধ্য দিয়ে লেনদেন শেষ হয়েছে। দিন শেষে সূচক দাঁড়িয়েছে ৬ হাজার ৩৯ পয়েন্ট।

ডিএস-৩০ মূল্যসূচক ২৮ পয়েন্ট কমে দুই হাজার ২৩৮ পয়েন্ট ও ডিএসইএস শরিয়াহ সূচক ১৫ পয়েন্ট কমে এক হাজার ৩৯৮ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। লেনদেন হওয়া ৩৩৫টি কম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছে ৩১টির, কমেছে ২৭৮টির ও অপরিবর্তিত রয়েছে ২৬টি কম্পানির শেয়ার দাম। অন্য বাজার সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৪৩ কোটি ৪৪ লাখ টাকা। আর সূচক কমেছে ১৫৭ পয়েন্ট।

এদিকে বাজারে ব্যাপক দরপতনের ঘটনায় জরুরি সংবাদ সম্মেলন করেছে বাংলাদেশ মার্চেন্ট ব্যাংকার্স অ্যাসোসিয়েশন। রাজধানীর একটি হোটেলে সংবাদ সম্মেলন করে দরপতনে আতঙ্কিত না হওয়ায় পরামর্শ দিয়েছে সংগঠনটি।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ডিএসই বোকার্স অ্যাসোসিয়েশনের (ডিবিএ) সভাপতি মোস্তাক আহমেদ সাদেক, বিএমবিএ মহাসচিব খায়রুল বাশার আবু তাহের মোহাম্মদ, সিনিয়র সহসভাপতি মুহাম্মদ আহসান উল্লাহ, মো. রফিকুল ইসলাম, নির্বাহী সদস্য মাহবুব হোসেন মজুমদার, মুহাম্মদ ছালেহ আহমেদ ও মো. আবু বকর প্রমুখ।

খায়রুল বাশার আবু তাহের মোহাম্মদ বলেন, আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে করা দুর্নীতি মামলার রায়কে কেন্দ্র করে একটি মহল গুজব ছড়িয়ে স্বার্থ হাসিল করার চেষ্টা করছে। গুজব ছড়িয়ে বাজার দরপতন ঘটানো হচ্ছে। এ অবস্থা বেশি দিন থাকবে না। কারণ সরকার, বাংলাদেশ ব্যাংক পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থাসহ সবাই একটি সুন্দর বাজার প্রত্যাশা করে। শিগগিরই ঘুরে দাঁড়াবে পুঁজিবাজার।

ডিবিএ সভাপতি মোস্তাক আহমেদ সাদেক বলেন, পুঁজিবাজার ভালো হোক এটা সরকার, অর্থ মন্ত্রণালয় এবং বাংলাদেশ ব্যাংকসহ সবাই চায়। নতুন মুদ্রানীতি বড় প্রমাণ। বাজার নিয়ে বিনিয়োগকারীদের শঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। মুদ্রানীতির কথা বলে বাজার ফেলানো হয়েছিল। এখন অহেতুক আরো একটি গুজব ছড়ানো হচ্ছে।’


মন্তব্য