kalerkantho


লেনদেন নিম্নমুখী পুঁজিবাজারে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২২ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস গতকাল রবিবার দেশের দুই পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচক বাড়লেও কমেছে লেনদেন। আগের দিনও গত সপ্তাহের বৃহস্পতিবার সূচক ও লেনদেন ঊর্ধ্বমুখী ছিল। রবিবার বেশির ভাগ কম্পানির শেয়ারের দাম বাড়াতে সূচক এগিয়েছে।

রবিবার ডিএসইতে লেনদেন হয়েছেল ৩৪৪ কোটি ৩৫ লাখ টাকা। আর সূচক বেড়েছে প্রায় ২৫ পয়েন্ট। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৩৫৮ কোটি ৯৬ লাখ টাকা আর সূচক বেড়েছিল প্রায় ২৪ পয়েন্ট। আগের সপ্তাহে পাঁচ কার্যদিবসের মধ্যে তিন দিনই সূচক কমেছিল। আর দুই সূচক ও লেনদেন ঊর্ধ্বমুখী ছিল।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, লেনদেন শুরুর পর থেকেই শেয়ার কেনার চাপে সূচক ঊর্ধ্বমুখী হয়। দুপুর ১২টা পর্যন্ত সূচক বাড়তে থাকে। এই সময়ের পর থেকে পরে সূচক কমলেও ঊর্ধ্বমুখিতায় লেনদেন শেষ হয়েছে। দিন শেষে সূচক দাঁড়িয়েছে ছয় হাজার ১৪৭ পয়েন্ট। ডিএস-৩০ মূল্যসূচক ১৯ পয়েন্ট বেড়ে দুই হাজার ২৬০ পয়েন্ট ও ডিএসইএস শরিয়াহ সূচক ৬ পয়েন্ট বেড়ে এক হাজার ৪১০ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। লেনদেন হওয়া ৩৩৫ কম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছে ১৬৮টির, কমেছে ১১৩টির ও অপরিবর্তিত রয়েছে ৫৪ কম্পানির শেয়ারের দাম।

লেনদেনের ভিত্তিতে শীর্ষে রয়েছে স্কয়ার ফার্মা। কম্পানিটির লেনদেন হয়েছে ২৮ কোটি ৩৩ লাখ টাকা। দ্বিতীয় স্থানে থাকা ইফাদ অটোসের লেনদেন হয়েছে ১৫ কোটি ১৬ লাখ টাকা। আর তৃতীয় স্থানে থাকা ন্যাশনাল ব্যাংকের লেনদেন হয়েছে ১৪ কোটি ৬৯ লাখ টাকা। আর অন্যান্য শীর্ষ কম্পানি হচ্ছে গ্রামীণফোন, গোল্ডেন হারভেস্ট, দেশবন্ধু পলিমার, বিডি থাই, ওয়েস্টার্ন মেরিন, প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল, ন্যাশনাল টিউবস।

সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ১৭ কোটি ৫৭ লাখ টাকা। আর সূচক বেড়েছে প্রায় ৫০ পয়েন্ট। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ২৪ কোটি ২৪ লাখ টাকা। আর সূচক বেড়েছিল ১৯ পয়েন্ট। রবিবার লেনদেন হওয়া ২৩৫ কম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছে ১১৩টির, দাম কমেছে ৮০টির ও অপরিবর্তিত রয়েছে ৪২ কম্পানির শেয়ারের দাম।



মন্তব্য