kalerkantho


ব্যাংকের শেয়ারে সূচক ঊর্ধ্বমুখী

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৭ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



ব্যাংকের শেয়ারে সূচক ঊর্ধ্বমুখী

ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের কম্পানির ওপর ভর করে দেশের দুই পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচক বেড়েছে। যদিও এর আগের দুই কার্যদিবসে উভয় বাজারেই সূচকে বড় ধরনের পতন হয়। সপ্তাহের তৃতীয় কার্যদিবস দুই বাজারেই সূচক বেড়েছে তবে ডিএসইতে লেনদেন কমেছে। আর সিএসইতে সূচকের উত্থানের সঙ্গে বেড়েছে লেনদেনও।

বাজারসংশ্লিষ্টরা বলছেন, গুজব আর অসত্য তথ্যে শেয়ার বিক্রির চাপ পুঁজিবাজারে। আগামী মুদ্রানীতিতে পুঁজিবাজার বিশেষ করে ব্যাংকের বিষয়ে নানামুখী নেতিবাচক কথা আসতে পারে, এমন তথ্য ছড়াচ্ছে একটি গোষ্ঠী। এ ছাড়া ব্যাংকের আমানত ও ঋণে অনুপাত বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংক কঠোর সিদ্ধান্ত নিতে পারে, এমন তথ্য ছড়াচ্ছে। আর এসব গুজব শুনেই সাধারণ বিনিয়োগকারী শেয়ার বিক্রি করছে।

আইডিএলসির পর্যালোচনায় দেখা যায়, ডিএসইতে লেনদেনের ৩০ শতাংশই ব্যাংক ও নন-ব্যাংকিং আর্থিক প্রতিষ্ঠানের, যার মধ্যে ব্যাংকের ২৫.১ শতাংশ আর ৪.৯ শতাংশ নন-ব্যাংকিং আর্থিক প্রতিষ্ঠান। প্রকৌশল, বস্ত্র আর ওষুধ ও রসায়ন খাতের কম্পানির শেয়ারের দাম বৃদ্ধি সূচক বৃদ্ধিতে ভূমিকা রেখেছে। এদিকে ৩০টি ব্যাংকের মধ্যে ২৫টি ব্যাংকেরই শেয়ারের দাম বেড়েছে। আর তিনটি ব্যাংকের শেয়ারের দাম হ্রাস পেয়েছে। দুই কম্পানির শেয়ারের দাম অপরিবর্তিত আছে। আর ২৩টি নন-ব্যাংকিং আর্থিক প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১৯টিরই দাম বেড়েছে। তিনটি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম কমেছে আর একটির শেয়ারের দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।

সপ্তাহের তৃতীয় কার্যদিবস গতকাল মঙ্গলবার ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৩৮৮ কোটি ৭০ লাখ  টাকা। আর সূচক বেড়েছে প্রায় ৭১ পয়েন্ট। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৪০৬ কোটি ১৪ লাখ টাকা। আর সূচক কমেছিল ৬০ পয়েন্ট। পর্যালোচনায় দেখা যায়, লেনদেন শুরুর পর প্রায় আধাঘণ্টা শেয়ার বিক্রির চাপে সূচক নিম্নমুখী হলেও পরবর্তী সময়ে সূচক বেড়েছে। সকাল ১১টার পর থেকে সূচক ঊর্ধ্বমুখী হয়, যা পরবর্তী সময়ে আরো বেড়েছে। এতে সূচক বাড়ার মধ্য দিয়েই দিনের লেনদেন শেষ হয়েছে। দিন শেষে সূচক দাঁড়িয়েছে ছয় হাজার ১২৮ পয়েন্ট। ডিএস-৩০ মূল্য সূচক ২২ পয়েন্ট কমে দুই হাজার ২৪৭ পয়েন্ট ও ডিএসইএস শরিয়া সূচক ১৩ পয়েন্ট কমে এক হাজার ৩৮৯ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। লেনদেন হওয়া ৩৩৪টি কম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছে ২৪১টির, কমেছে ৫০টির ও অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৩ কম্পানির শেয়ারের দাম। সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ২৮ কোটি ৫৫ লাখ টাকা। আর সূচক বেড়েছে ৯৪ পয়েন্ট। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ১৭ কোটি ৭১ লাখ টাকা। আর সূচক কমেছিল ১০০ পয়েন্টেরও বেশি। গতকাল লেনদেন হওয়া ২২৯টি কম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছে ১৫৭টির, দাম কমেছে ৫৫টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ১৭টি কম্পানির শেয়ারের দাম।



মন্তব্য