kalerkantho


ডিএসইতে লেনদেন কমেছে ৪০ শতাংশ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



ডিএসইতে লেনদেন কমেছে ৪০ শতাংশ

নতুন বছরের প্রথম কার্যদিবসে দেশের দুই পুঁজিবাজারেই সূচক বেড়েছে। তবে লেনদেন কমেছে ব্যাপকহারে। যদিও ২০১৭ সালের শেষ কার্যদিবসে দুই বাজারেই সূচক ও লেনদেন বেড়েছিল। বছরের প্রথম কার্যদিবস গতকাল সোমবার দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) ৫৫ শতাংশ কম্পানির শেয়ারের দাম বাড়লেও লেনদেনে ধীরগতি। নামমাত্র সূচক বাড়লেও লেনদেন আগের দিনের চেয়ে ৪০ শতাংশ কমেছে।

গতকাল সোমবার ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৩৭৪ কোটি ৩০ লাখ টাকা। আর সূচক বেড়েছে প্রায় ১০ পয়েন্ট। যদিও ৫৫ শতাংশ বা ১৮৫ কম্পানির শেয়ারের দাম বেড়েছে। আর শেয়ার হাতবদলের সংখ্যাও কমেছে। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৬২৮ কোটি ৪ লাখ টাকা। আর সূচক বেড়েছিল ৫৮ পয়েন্ট। গত বৃহস্পতিবার শেয়ার হাতবদল হয়েছিল ১৪ কোটি ৯৮ লাখ ৬৭ হাজার ৯১৮টি শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড ইউনিট। আর গতকাল সোমবার হাতবদল হয় ১১ কোটি ৫৬ লাখ ৫ হাজার ৩৯৭ শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড ইউনিট।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, লেনদেন শুরুর পর সূচক ঊর্ধ্বমুখী হলেও পরে কমেছে। সকাল ১০টা ৩৭ মিনিট পর্যন্ত সূচক ঊর্ধ্বমুখী হওয়ার পর কমতে শুরু করেছে। সকাল সাড়ে ১১টা পর্যন্ত কমার পর আবারও ঊর্ধ্বমুখী হয় সূচক। শেয়ার ক্রয়ের চাপে সূচক ঊর্ধ্বমুখী হলে শেষ পর্যন্ত সূচকের উত্থানেই লেনদেন শেষ হয়েছে। দিন শেষে সূচক দাঁড়িয়েছে ছয় হাজার ২৫৪ পয়েন্ট। ডিএস-৩০ মূল্যসূচক ১.৬৭ পয়েন্ট কমে দুই হাজার ২৮১ পয়েন্ট ও ডিএসইএস শরিয়াহ সূচক ০.৭৫ পয়েন্ট বেড়ে এক হাজার ৩৯১ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। লেনদেন হওয়া ৩৩৩ কম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছে ১৮৫টির, কমেছে ১১০টির ও অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৮ কম্পানির শেয়ারের দাম।

লেনদেনের ভিত্তিতে শীর্ষে রয়েছে লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট। কম্পানিটির লেনদেন হয়েছে ১৮ কোটি ৩৬ লাখ টাকা। দ্বিতীয় স্থানে থাকা প্যারামাউন্ট টেক্সটাইলের লেনদেন হয়েছে ১৬ কোটি ৯৫ লাখ টাকা। আর ১১ কোটি ৬৮ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন করে তৃতীয় স্থানে রয়েছে বেক্সিমকো লিমিটেড। অন্যান্য শীর্ষ কম্পানি হচ্ছে ইসলামী ব্যাংক, ন্যাশনাল ব্যাংক, ড্রাগন সোয়েটার, আলিফ ইন্ডাস্ট্রি, মার্কেন্টাইল ব্যাংক, সিটি ব্যাংক ও রূপালী ব্যাংক।

মূল্যবৃদ্ধির শীর্ষে রয়েছে ড্রাগন সোয়েটার, এসইএমএল আইবিবিএল শরিয়াহ্ ফান্ড, সেন্ট্রাল ইনস্যুরেন্স, বেক্সিমকো, ইনটেক অনলাইন, প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল, সেন্ট্রাল ফার্মা, রূপালী লাইফ ইনস্যুরেন্স, শেফাড ইন্ডাস্ট্রি ও সিভিও পিআরএল। অন্যদিকে দাম কমার শীর্ষে রয়েছে টুংহাই ইন্ডাস্ট্রি, এশিয়ান ইনস্যুরেন্স, নর্দার্ন জুট, বিচ হ্যাচারি, আলিফ ইন্ডাস্ট্রি, জনতা ইনস্যুরেন্স, জেমিনী সি ফুড, সোনালি আঁশ, ডাচ্-বাংলা ব্যাংক ও বিজিআইসি।

অন্যদিকে সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৩৪ কোটি ৯২ লাখ টাকা। আর সূচক বেড়েছে ৫২ পয়েন্ট। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ১৮০ কোটি ৯৭ লাখ টাকা। আর সূচক বেড়েছিল ৮৬ পয়েন্ট। দিন শেষে সূচক দাঁড়িয়েছে ১১ হাজার ৭০২ পয়েন্ট। লেনদেন হওয়া ২১৮ কম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছে ১৪৫টির, কমেছে ৫২টির ও অপরিবর্তিত রয়েছে ২১ কম্পানির শেয়ারের দাম।


মন্তব্য