kalerkantho


রিজেন্ট এয়ারের সঙ্গে ফ্লাই দুবাইয়ের কোড শেয়ার

ওসমানী বিমানবন্দর থেকে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালু

সিলেট অফিস   

১৬ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



ওসমানী বিমানবন্দর থেকে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালু

সিলেটে ফ্লাই দুবাইয়ের ফ্লাইট উদ্বোধন করেন রাশেদ খান মেনন

অবশেষে সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে সরাসরি আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালু হলো। গতকাল বুধবার রিজেন্ট এয়ারওয়েজের সঙ্গে কোড শেয়ার ব্যবস্থায় দুবাই-সিলেট-দুবাই সরাসরি ফ্লাইট চালু করে ফ্লাই দুবাই। দেশে এই প্রথম দেশি-বিদেশি দুটি বিমান সংস্থা কোড শেয়ার ব্যবস্থায় সম্পৃক্ত হলো। এখন থেকে প্রতিদিন এই রুটে একটি ফ্লাইট চলাচল করবে বলে জানিয়েছে ফ্লাই দুবাই কর্তৃপক্ষ। গতকাল এই ফ্লাইটের উদ্বোধন করেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন।

ফ্লাইট চালুর ফলে সিলেটবাসীর দীর্ঘদিনের একটি দাবি পূরণ হলো উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, নিঃসন্দেহে দিনটি সিলেটবাসীর জন্য আনন্দের দিন। তিনি বলেন, এখন ফ্লাই দুবাই ফ্লাইট চালু করেছে, ভবিষ্যতে অন্য বিমান সংস্থাগুলো আসবে।

বিমানবন্দর সূত্র জানায়, ফ্লাই দুবাইর ফ্লাইটটি গতকাল সকাল ৭টা ৫৫ মিনিটে দুবাই থেকে যাত্রা করে বিকেল ৩টায় ওসমানী বিমানবন্দরে অবতরণ করে। ১৭৪ আসনের বিমানটির প্রথম দিনে দুবাই থেকে ১৪৭ জন যাত্রী নিয়ে আসে। এ সময় প্রথম ফ্লাইটের যাত্রীদের স্বাগত জানান বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন। স্থানীয় শিল্পীরা নৃত্য পরিবেশন এবং ফুল ছিটিয়ে যাত্রীদের বরণ করেন।

বিকেল ৫টা ৪০ মিনিটে ১৬৯ জন যাত্রী নিয়ে ফ্লাই দুবাইর ফ্লাইটটি দুবাইয়ের উদ্দেশে ছেড়ে যায়।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে রাশেদ খান মেনন বলেন, ওসমানী বিমানবন্দরকে সত্যিকার অর্থে আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর হিসেবে গড়ে তুলতে ইতিমধ্যেই সরকার একটি প্রকল্প হাতে নিয়েছে। শিগগিরই প্রকল্পের কাজ শুরু হবে। তিনি বলেন, সুপরিসর বোয়িং বিমান নামতে হলে এই বিমানবন্দরের রানওয়ে সম্প্রসারণ ও শক্তিশালী করতে হবে। সেই কাজ অচিরেই শুরু হবে। পরবর্তী সময়ে আন্তর্জাতিকমানের টার্মিনালও তৈরি করা হবে। কোড শেয়ারের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট পরিচালনায় রিজেন্ট এয়ারওয়েজ এবং ফ্লাই দুবাইয়ের এ উদ্যোগ মাইলফলক হয়ে থাকবে বলে মন্ত্রী উল্লেখ করেন। এমিরেটসসহ বেশ কয়টি এয়ারলাইনস কোড শেয়ারের মাধ্যমে ওসমানী বিমানবন্দর থেকে ফ্লাইট পরিচালনায় আগ্রহ দেখিয়েছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, রানওয়ের কাজ শেষ হলেই তা সম্ভব হবে। তখন সত্যিকার অর্থে ওসমানী বিমানবন্দর একটি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পরিণত হবে।


মন্তব্য