kalerkantho


‘অবকাঠামোতে বিনিয়োগ বাড়ানো জরুরি’

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৫ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



বৈদেশিক বিনিয়োগকে আকৃষ্ট করার পাশাপাশি দেশীয় বিনিয়োগকে উৎসাহিত করার লক্ষ্যে অবকাঠামো খাতের উন্নয়ন এখন সময়ে দাবি। এ লক্ষ্যে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ব্যবহার করা যেতে পারে বলে মনে করেন ঢাকা চেম্বারের সভাপতি আবুল কাসেম খান।

তিনি বলেন, বর্তমানে অবকাঠামো খাতে বিনিয়োগের পরিমাণ ৬৩২ কোটি ডলার এবং এটাকে দুই হাজার থেকে দুই হাজার ২০০ কোটি ডলারে উন্নীত করা জরুরি বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

গতকাল মঙ্গলবার ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (ডিসিসিআই) সভাপতির নেতৃত্বে পরিচালনা পর্ষদের সদস্যরা বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবিরের সঙ্গে সাক্ষাত্কালে তিনি এসব কথা বলেন। বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর, নির্বাহী পরিচালকসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

আবুল কাসেম খান বলেন, ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে একটি মধ্যম আয়ের দেশ এবং ২০৩০ সালের মধ্যে ৩০তম বৃহত্তম অর্থনীতির দেশে পরিণত হতে হলে বেসরকারি বিনিয়োগ ও জিডিপির অনুপাত ৩৫ শতাংশে উন্নীত করতে হবে।

ঢাকা চেম্বারের সভাপতি আশঙ্কা প্রকাশ করে বলেন, সম্প্রতি খেলাপি ঋণের পরিমাণ বাড়ছে এবং বিষয়টি দেশের সামগ্রিক অর্থনীতির জন্য উদ্বেগজনক। তিনি আরো জানান, ২০১৬ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত খেলাপি ঋণের পরিমাণ ছিল ৬২ হাজার ১৭২ কোটি টাকা। তিনি ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তাদের ঋণ সহায়তা নিশ্চিত করতে খেলাপি ঋণ নিয়ন্ত্রণ এবং কার্যকর আর্থিক ব্যবস্থা প্রবর্তনের ওপর জোর দেন।

বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির ঢাকা চেম্বারের প্রতিনিধিদলকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হতে হলে ৮ শতাংশ হারে জিডিপি প্রবৃদ্ধি অর্জন করতে হবে এবং এ ক্ষেত্রে শিল্পায়ন ও বিনিয়োগের কোনো বিকল্প নেই। তিনি জানান, গত বছরের এই সময়ের তুলনায় রেমিট্যান্সপ্রবাহ কমেছে প্রায় ১৬ শতাংশ।


মন্তব্য