kalerkantho


বসুন্ধরা এলপি গ্যাস সরবরাহ হবে হাইটেক সিরামিকের কারখানায়

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৪ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



বসুন্ধরা এলপি গ্যাস সরবরাহ হবে হাইটেক সিরামিকের কারখানায়

গতকাল চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন ফোশান গ্রুপ ও হাইটেক সিরামিকের চেয়ারম্যান ও এমডি মো. জিয়া উদ্দিন এবং বসুন্ধরা এলপি গ্যাসের হেড অব ডিভিশন সেলস মীর টি আই ফারুক রিজভি। ছবি : কালের কণ্ঠ

হাইটেক সিরামিকের কারখানায় বিকল্প জ্বালানি সরবরাহ করবে বসুন্ধরা এলপি গ্যাস। গতকাল  সোমবার রাজধানীর বাংলামোটরে প্ল্যানার্স টাওয়ারে হাইটেক সিরামিকের সম্মেলন কক্ষে বসুন্ধরা এলপি গ্যাস লিমিটেডের সঙ্গে ফোশান গ্রুপের হাইটেক সিরামিকের এসংক্রান্ত একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। এ চুক্তির ফলে দেশের কোনো সিরামিক কারখানায় বসুন্ধরা এলপি গ্যাস প্রথমবারের মতো বিকল্প জ্বালানি সরবরাহ করতে যাচ্ছে।

প্রতিষ্ঠান দুটির পক্ষে চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন ফোশান গ্রুপ ও হাইটেক সিরামিকের চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. জিয়া উদ্দিন এবং বসুন্ধরা এলপি গ্যাসের হেড অব ডিভিশন সেলস মীর টি আই ফারুক রিজভি।

অনুষ্ঠানে মীর টি আই ফারুক রিজভি জানান, এ চুক্তির ফলে দেশে প্রথমবারের মতো কোনো সিরামিক কারখানায় বিকল্প জ্বালানি হিসেবে এত বড় পরিসর ও সুসংগঠিতভাবে ব্যবহৃত হতে যাচ্ছে বসুন্ধরার এলপি গ্যাস। হাইটেক সিরামিক টাঙ্গাইলের মধুপুরে তাদের কারখানায় র‌্যাটিকুলেটেড সিস্টেমের মাধ্যমে বড় পরিসরে এলপি গ্যাস সরবরাহ করবে।

চুক্তি স্বাক্ষর প্রসঙ্গে জানতে চাইলে হাইটেক সিরামিকের নির্বাহী পরিচালক সেলস অ্যান্ড মার্কেটিং মোহাম্মদ শামিম রেজা বলেন, ‘দেশের শিল্প-কারাখানায় এখনই প্রাকৃতিক গ্যাসের সংকট শুরু হয়েছে। এমনকি এখন শিল্প-কারখানায় সরকারি গ্যাসের সংযোগও পাওয়া যায় না। ফলে কারখানায় বিকল্প জ্বালানি হিসেবে এলপি গ্যাস ব্যবহারের সিদ্ধান্ত নিয়েছে আমাদের প্রতিষ্ঠান। এরই ধারাবাহিকতায় কারখানার উত্পাদন চালু রাখতে বসুন্ধরা এলপি গ্যাসের সঙ্গে আমাদের এ চুক্তি। অনুষ্ঠানে প্রতিষ্ঠান দুটির অন্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারাও উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, ১৯৯৮ সালে বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান দেশের বিকল্প জ্বালানি চাহিদার কথা মাথায় রেখে আমদানির মাধ্যমে এলপিজি গ্যাস বিপণন শুরু করেন। আর ১৯৯৯ সালে মোংলায় প্রথম বেসরকারি খাতে এলপিজির বোতলজাতকরণ প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলে বসুন্ধরা গ্রুপ। সেই থেকে এলপিজি গ্যাসের বাজারে নেতৃত্ব দিচ্ছে বসুন্ধরা। বর্তমানে প্রায় ২৪ শতাংশ এলপিজি গ্যাসের বাজার রয়েছে এ প্রতিষ্ঠানের।

জানা যায়, প্রতি মাসে প্রায় সাড়ে সাত লাখ বোতল রিফিলিং করা হয়। এসব গ্যাসের বোতল সরবরাহ করা হয় দেশের শীর্ষস্থানীয় পাঁচতারা হোটেল লা মেরিডিয়ান, বড় বড় আবাসিক প্রকল্প, ক্ষুদ্র-মাঝারি হোটেল-রেস্তোরাঁ, হাসাপাতাল ইত্যাদিতে। সম্প্রতি বাংলাাদেশ সেনাবাহিনীর টাঙ্গাইলের আবাসিক প্রকল্পেও গ্যাস সরবরাহের চুক্তি করেছে বসুন্ধরা গ্রুপ।


মন্তব্য