kalerkantho


আর্থিক খাতে মূল্য সংশোধন

লুজারের শীর্ষে লঙ্কাবাংলা ফাইন্যান্স, দাম কমেছে ১১ শতাংশ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৩ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



আর্থিক খাতে মূল্য সংশোধন

দেশের দুই পুঁজিবাজারে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচক ও লেনদেন বেড়েছে। এ নিয়ে টানা পাঁচ কার্যদিবস একটানা সূচক বাড়ল।

আগের সপ্তাহে পাঁচ দিনের মধ্যে চার দিনই সূচক বেড়েছিল। এদিকে আগের সপ্তাহে ঊর্ধ্বমুখী থাকা আর্থিক খাতের শেয়ারের দাম সংশোধিত হয়েছে। ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানে শেয়ারের দাম কমার সঙ্গে কমেছে লেনদেনও। যদিও আগের সপ্তাহে এই খাতে শেয়ারের দাম বাড়ার সঙ্গে বেড়েছিল লেনদেনের পরিমাণও। রবিবার লুজারের শীর্ষে রয়েছে লঙ্কাবাংলা ফাইন্যান্স। কম্পানিটি এক দিনেই ১১ শতাংশ দাম হারিয়েছে।

সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস গতকাল রবিবার ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে এক হাজার ২৮৫ কোটি ৪৯ লাখ টাকা আর সূচক বেড়েছে ৪ পয়েন্ট। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল এক হাজার ১৮৫ কোটি ৩৬ লাখ টাকা। আর সূচক বেড়েছিল ২১ পয়েন্ট।

সেই হিসাবে লেনদেন বেড়েছে প্রায় ১০০ কোটি টাকা।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, লেনদেন শুরুর পর থেকেই সূচকে ঊর্ধ্বমুখী হলেও পরে তা কমে যায়। দিনভর হ্রাস-বৃদ্ধির মধ্য দিয়ে সূচক দাঁড়িয়েছে পাঁচ হাজার ৬৭৬ পয়েন্ট। ডিএস-৩০ সূচক ৫ পয়েন্ট কমে দুই হাজার ৫৫ পয়েন্ট। ডিএসই শরিয়াহ সূচক ৩ পয়েন্ট কমে এক হাজার ৩০৮ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। লেনদেন হওয়া ৩৩০টি কম্পানির মধ্যে ১৪৫টির দাম কমেছে, বেড়েছে ১৪৫টির ও অপরিবর্তিত রয়েছে ৪০টির শেয়ারের দাম।

ডিএসইর তথ্য পর্যালোচনায় দেখা যায়, খাতভিত্তিক হিসাবে শীর্ষে রয়েছে ব্যাংক খাত। যদিও আগের দিনের চেয়ে এ খাতে লেনদেন কমেছে। ব্যাংক খাতে লেনদেন কমেছে ০.৬৮ শতাংশ। বৃহস্পতিবার ব্যাংকে লেনদেন হয়েছিল ২২৮ কোটি ১৯ লাখ টাকা আর রবিবার লেনদেন হয়েছে ১৯৯ কোটি টাকা। আর দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে প্রকৌশল খাতের লেনদেন। এ খাতে লেনদেন হয়েছে ১৮৬ কোটি ৯০ লাখ টাকা; আগের দিন এই লেনদেন ছিল ১৭৯ কোটি চার লাখ টাকা। সেই হিসাবে লেনদেন বেড়েছে ২.১১ শতাংশ।

ওধুষ ও রসায়ন খাত তৃতীয় স্থানে থাকলেও কমেছে লেনদেন। সবচেয়ে বেশি লেনদেন কমেছে আর্থিক প্রতিষ্ঠান খাতে। এ খাতে লেনদেন কমেছে ৬.৪৮ শতাংশ। আগের দিন আর্থিক প্রতিষ্ঠানে লেনদেন হয়েছিল ২১০ কোটি ৩৭ লাখ টাকা আর রবিবার লেনদেন হয়েছে ১১৫ কোটি ২৮ লাখ টাকা। বস্ত্র খাতেও লেনদেন কমেছে। তবে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি, বিবিধ, আইটি, সিমেন্ট, খাদ্য ও আনুষঙ্গিক এবং ইনস্যুরেন্স খাতে লেনদেন বেড়েছে।

ডিএসইতে টাকার অঙ্কে শীর্ষে রয়েছে লঙ্কাবাংলা ফাইন্যান্স। প্রতিষ্ঠানটির লেনদেন হয়েছে ৬৯ কোটি ৩৪ লাখ টাকা। রেকর্ড ডেটের পর লুজারের শীর্ষে ছিল প্রতিষ্ঠানটি। এক দিনে প্রতিষ্ঠানটির শেয়ারে ৭.৬ টাকা বা ১১.২৮ শতাংশ দাম কমেছে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা বেক্সিমকো লিমিটেডের লেনদেন হয়েছে ৬৫ কোটি ১২ লাখ টাকা। এদিন কম্পানিটির শেয়ারপ্রতি দাম বেড়েছে ১.২ টাকা বা ৩.৪১ শতাংশ। তৃতীয় স্থানে থাকা ফার কেমিক্যালসের লেনদেন হয়েছে ৫১ কোটি ৫০ লাখ টাকা। এদিন কম্পানিটির শেয়ারপ্রতি দাম বেড়েছে ১.৩ টাকা বা ৪.৭৪ শতাংশ। অন্যান্য শীর্ষ কম্পানি হচ্ছে বেক্সিমকো ফার্মা, শেফার্ড ইন্ডাস্ট্রিজ, কেয়া কসমেটিকস, আইপিডিসি, বিডি থাই, জিডিএইচ ইস্পাত ও সেন্ট্রাল ফার্মা। সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৭৮ কোটি ৫০ লাখ টাকা। আর সূচক বেড়েছে ৫ পয়েন্ট। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৬৪ কোটি ২৪ লাখ টাকা। লেনদেন হওয়া ২৫৯টি কম্পানির মধ্যে রবিবার ১১৫টির দাম বেড়েছে, ১০৮টির কমেছে ও অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৬টির।

শেয়ার বিক্রি করবেন লঙ্কাবাংলা ফাইন্যান্সের উদ্যোক্তা : শেয়ার বিক্রির ঘোষণা দিয়েছেন লঙ্কাবাংলা ফাইন্যান্সের উদ্যোক্তা জেসমিন সুলতানা। তিনি দুই লাখ ৯৯ হাজার শেয়ার বেচবেন। এই উদ্যোক্তার কাছে কম্পানির মোট তিন লাখ শেয়ার আছে। ৩০ কার্যদিবসের মধ্যে বর্তমান বাজার দরে উল্লিখিত পরিমাণ শেয়ার বেচতে পারবেন তিনি।


মন্তব্য