kalerkantho


১৫ লাখ টন চিনি আমদানি করতে হবে ভারতকে

বাণিজ্য ডেস্ক   

১৩ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



১৫ লাখ টন চিনি আমদানি করতে হবে ভারতকে

চিনি উৎপাদন কমবে বিশ্বের সবচেয়ে বড় ভোক্তা দেশ ভারতে। এ অবস্থায় আমদানির ওপর নির্ভর করতে চায় দেশটির ব্যবসায়ীরা।

সম্প্রতি বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে অল ইন্ডিয়া সুগার ট্রেড অ্যাসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান প্রফুল ভিথালানি জানান, ২০১৬-১৭ মৌসুমে প্রায় ১৫ লাখ টন চিনি আমদানি করা প্রয়োজন হবে সরকারের। দুবাই সুগার কনফারেন্সের এক ফাঁকে সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘চিনি কখন কখন আমদানি হবে এ সময় নির্ধারণ করবে সরকার। তবে আমি বলতে পারি আমাদের প্রায় ১৫ লাখ টনের মতো চিনি প্রয়োজন। ’

ভিথালানি আরো বলেন, সরকার মার্চের মধ্যে চিনি আমদানির ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিতে পারে, তবে সেটা কিছুতেই ১৫ এপ্রিলের পরে নয়। এ সময়ের মধ্যে সরকার নিশ্চিত হতে পারবে দেশে কী পরিমাণে চিনি উৎপাদিত হবে ও আরো কী পরিমাণ প্রয়োজন।

ভারত সরকারের হিসাব অনুযায়ী দেশটিতে চলতি মৌসুমে দুই কোটি ২৫ লাখ টন চিনি উৎপাদিত হবে। তবে প্রফুল ভিথালানি মনে করেন, ২০১৬-১৭ মৌসুমে দুই কোটি টন চিনি উৎপাদিত হবে। এর চেয়ে ২ শতাংশ কমবেশি হতে পারে। মৌসুমের শুরুতে মজুদ ছিল ৭৭ লাখ টন।

আর ভোক্তাদের এ বছর প্রয়োজন হবে দুই কোটি ৪৫ লাখ টন চিনি।

প্রফুল ভিথালানি বলেন, ‘এর ফলে অক্টোবর ২০১৭ থেকে নভেম্বর পর্যন্ত আমাদের চিনির মজুদ থাকবে ৩২ লাখ টন। এটি অনেক কম এবং বাজার স্বাভাবিক রাখার ক্ষেত্রে বিপজ্জনক। তাই আমরা আশা করছি খুব দ্রুত সরকার চিনি আমদানির ব্যাপারে সিদ্ধান্ত জানাবে। ’ বর্তমানে চিনি আমদানিতে ৪০ শতাংশ আমদানি কর দিতে হয় ব্যবসায়ীদের। এই ব্যবসায়ী আশা করছেন বাজার স্থিতিশীল রাখতে সরকার চিনি আমদানিতে কর অব্যাহতি দেবে। রয়টার্স।


মন্তব্য