kalerkantho


৫০ শতাংশ নারী নিয়োগের পরিকল্পনা

নারীদের নেতৃত্বে চলল বিমানের বিশেষ ফ্লাইট

বাণিজ্য ডেস্ক   

৯ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



নারীদের নেতৃত্বে চলল বিমানের বিশেষ ফ্লাইট

ক্যাপ্টেন তানিয়া রেজা ও ফার্স্ট অফিসার সারওয়াত সিরাজ অন্তরার নেতৃত্বে এ ফ্লাইট পরিচালিত হয়

স্বপ্ন শুধু দেখা নয়, স্বপ্ন পূরণেও এ দেশের নারীরা অনেক দূর এগিয়েছে, আন্তর্জাতিক নারী দিবসে তারই আরেক প্রমাণ হাজির করলেন বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের নারী ক্রুরা। গতকাল পরিচালিত একটি ফ্লাইটে ক্যাপ্টেন থেকে শুরু করে দায়িত্বরত সব ক্রু ছিলেন নারী।

গতকাল বুধবার বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের ক্যাপ্টেন তানিয়া রেজা ও ফার্স্ট অফিসার সারওয়াত সিরাজ অন্তরার পরিচালনায় সব নারী কেবিন ক্রুদের নিয়ে বোয়িং ৭৩৭-৮০০ বিজি-৬০৩ ফ্লাইটটি দুপুর ১টা ৫০ মিনিটে ৮০ জন যাত্রী নিয়ে সিলেটের উদ্দেশে ঢাকা ছাড়ে। এ উপলক্ষে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের অভ্যন্তরীণ টার্মিনালে এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এ সময় বিমানের এমডি ও সিইও এ এম মোসাদ্দিক আহমেদ এবং পরিচালক প্রশাসন মোহাম্মদ মমিনুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন। মোসাদ্দিক আহমেদ বলেন, ‘বিমানে ফ্লাইট পরিচালনাসহ গ্রাউন্ড সার্ভিস, প্রকৌশল এবং বিভিন্ন বিভাগে নারী কর্মীরা দক্ষতার পরিচয় দিচ্ছেন। দেশের নারীরা বিশ্বের সঙ্গে প্রতিযোগিতায় এগিয়ে যাচ্ছে, এটি তুলে ধরতেই নারী দিবসে এ বিশেষ ফ্লাইট। ’ তিনি আজকের এই বিশেষ দিনে বিভিন্ন দায়িত্বে থাকা নারী সহকর্মীদের অভিনন্দন জানান। ২০৩০ সালের মধ্যে বিমানে ৫০ শতাংশ নারী কর্মী নিয়োগের কর্মপরিকল্পনা হাতে নেওয়া হয়েছে বলে তিনি জানান।

শুধু নারী দিবস বলে নয়, বছরের অন্যান্য কর্মদিবসেও বিমানে নারী কর্মীরা নেতৃত্ব দিচ্ছেন। বিমান প্রতিষ্ঠার পর থেকেই পুরুষ কর্মীদের পাশাপাশি নারীরাও সমান তালে দক্ষতার সঙ্গে কাজ করে যাচ্ছেন।

এ প্রসঙ্গে মহাব্যবস্থাপক জনসংযোগ শাকিল মেরাজ বলেন, ‘বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস নারীদের সুষ্ঠু ও সুন্দর কর্মপরিবেশ নিশ্চিত করে। বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো আমাদের দেশের নারীরাও এভিয়েশন খাতে সফল, এ বিষয়টি আমরা তুলে ধরতে চাই। একই সঙ্গে সারা দেশের নারীদের কাছে একটি বার্তা পৌঁছে দিতে চাই, আকাশ ছোঁয়ার স্বপ্ন দেখলে সেটি সফল হওয়া সম্ভব। ’

 


মন্তব্য