kalerkantho


বিজিএমইএ ভবনের জন্য জমি দেবে সরকার

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৭ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



বিজিএমইএ ভবনের জন্য জমি দেবে সরকার

বাংলাদেশ তৈরি পোশাক প্রস্তুত ও রপ্তানিকারকদের সংগঠনকে  (বিজিএমইএ) উত্তরায় অফিস ভবন করার জন্য জমি দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। তাঁর আশা, ওই জমিতে আগামী দুই-তিন বছরের মধ্যে সংগঠনটি তাদের নিজেদের অফিস ভবন নির্মাণ করতে পারবে।

গতকাল সোমবার সচিবালয়ে বাংলাদেশে নিযুক্ত কাতারের রাষ্ট্রদূত আহমেদ মোহম্মেদ আল বিয়াইমির সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বাণিজ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন। এ সময় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব শুভাশীষ বসু উপস্থিত ছিলেন।

মন্ত্রী আরো বলেন, আদালতের এ রায়ে ভবন ভাঙার সিদ্ধান্তের সঙ্গে শ্রমিকদের কোনো সম্পর্ক নেই। কাজেই শ্রমিক অসন্তোষের কোনো প্রশ্নই ওঠে না। আর সর্বোচ্চ আদালতের সিদ্ধান্ত সবাইকে মানতে হবে। রাজধানীর হাতিরঝিলে বিজিএমইএ ভবন ভেঙে ফেলার বিষয়ে বিজিএমইএর রিভিউ আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন হাইকোর্ট। কাতারের রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে মতবিনিময়কালে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, গভীর সমুদ্রে ভাসমান লিকুইড ন্যাচারাল গ্যাস (এলএনজি) টার্মিনাল নির্মাণ করা হচ্ছে। লিকুইড গ্যাস (তরল গ্যাস) আসবে কাতার থেকে। ২০১৮ সালের মধ্যে টার্মিনাল নির্মাণকাজ সম্পন্ন হবে, তখন দেশে আর কোনো গ্যাস সংকট থাকবে না।

রাষ্ট্রদূত কাতারের সঙ্গে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক, বাণিজ্যিক ও কারিগরি সহযোগিতা বৃদ্ধির প্রস্তাব দিলে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, উভয় দেশ এ বিষয়ে সহযোগিতা বৃদ্ধি করতে একমত।

এ ছাড়া তোফায়েল আহমেদ কাতারের বিনিয়োগকারীদের বাংলাদেশে বিনিয়োগের জন্য ১০০ স্পেশাল ইকোনমিক জোনের মধ্যে সুবিধাজনক একটি জোন বরাদ্দ দেওয়া হবে বলে জানান। উভয় দেশের মধ্যে বাণিজ্য ক্ষেত্রে জটিলতা দূর করতে দ্বৈত ট্যাক্স প্রথা বাতিলের বিষয়ে সভায় সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানান মন্ত্রী। এর আগে পণ্য আমদানি ও রপ্তানির ক্ষেত্রে দুই দেশেই ট্যাক্স প্রদানের নিয়ম ছিল।


মন্তব্য