kalerkantho


পোল্ট্রি মেলায় কৃষিমন্ত্রী

ডিম ও মাংস উতপাদন দ্বিগুণ করতে হবে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৩ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



ডিম ও মাংস উতপাদন দ্বিগুণ করতে হবে

ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় পোল্ট্রি মেলায় একটি স্টলে পণ্য দেখছেন দর্শনার্থীরা। ছবি : কালের কণ্ঠ

দেশীয় মুরগির জাত উন্নয়নের মাধ্যমে ডিম ও মাংস উতপাদন দ্বিগুণ করতে হবে। যার মাধ্যমে মানুষের প্রয়োজনীয় পুষ্টি চাহিদা পূরণ ও স্বাস্থ্যবান জাতি গঠন নিশ্চিত হবে। গতকাল বৃহস্পতিবার রাজধানীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় তিন দিনের আন্তর্জাতিক পোল্ট্রি মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী।

আন্তর্জাতিক পোল্ট্রি সায়েন্স অ্যাসোসিয়েশন বাংলাদেশ শাখার উদ্যোগে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে কৃষিমন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকার পোল্ট্রি খাতসহ গোটা শিল্প খাতের উন্নয়নে সহায়ক ভূমিকা পালন করছে। প্রধানমন্ত্রী নিজেও এ খাতের ব্যাপারে খুবই আন্তরিক। ফলে এ খাতের সঙ্গে যুক্ত বিজ্ঞানী-কর্মকর্তা-কর্মচারীদের আরো নতুন নতুন উদ্ভাবন, গবেষণা ও উদ্যোগী কার্যক্রম গ্রহণ করতে হবে। যাতে করে দেশে ২০২১ সালের মধ্যে ডিম ও মুরগির মাংসের উতপাদন দ্বিগুণ করা সম্ভব হয়।

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি শামসুল আলম খালেদের সভাপতিত্বে এ অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন মত্স্য ও প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নারায়ণ চন্দ্র চন্দ, প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আইনুল হক, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি অধ্যাপক ড. সাত্তার মণ্ডল, ওয়ার্ল্ডস পোল্ট্রি সায়েন্স অ্যাসোসিয়েশনের গ্লোবাল সেক্রেটারি জেনারেল ড. রোয়েল মুলডার, আন্তর্জাতিক পোল্ট্রি সায়েন্স অ্যাসোসিয়েশন বাংলাদেশ শাখার সাবেক সভাপতি মসিউর রহমান, বর্তমান সাধারণ সম্পাদক মো. সিরাজুল হক প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, বাংলাদেশে মোট খাদ্যপুষ্টির ১০.৩১ শতাংশ আসে মাংস ও ডিম থেকে। তবে ডিমের মাথাপিছু বার্ষিক ব্যবহার ৫১টি থেকে আরো বাড়িয়ে ২০২১ সালের মধ্যে ৮৫টি ও মুরগির মাংসের ব্যবহার বছরে মাথাপিছু ৪.২ কেজি থেকে বাড়িয়ে সাড়ে সাত কেজিতে উন্নীতকরণে পোল্ট্রি সেক্টর কাজ করে যাচ্ছে।

বক্তারা পোল্ট্রি খাতকে আরো সহায়তা দিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেন, এ খাতের জন্য কাঁচামাল ও অন্যান্য পণ্য আমদানির ক্ষেত্রে শুল্ক অব্যাহতিসহ কর মওকুফ, ব্যাংকঋণ সুবিধা আরো সহজ করা এবং খামারিদের প্রশিক্ষণের দিকে আরো নজর দেওয়া জরুরি।

অনুষ্ঠানে একই সঙ্গে পোল্ট্রি খাতের জন্য আলাদা একটি অধিদপ্তর গঠনেরও দাবি জানানো হয় এ সম্মেলন থেকে।


মন্তব্য