kalerkantho


বাড়তি ভাড়া, পথে পথে চাঁদাবাজি

ট্রাকের মধ্যেই পচে গেছে সবজি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



ট্রাকের মধ্যেই পচে গেছে সবজি

সাতক্ষীরা থেকে ৩৪ বস্তা পটল আর ৭০ বস্তা পেঁপে নিয়ে ঢাকার কারওয়ান বাজারের উদ্দেশে রওনা দিয়েছিল একটি ট্রাক। ৩৪ বস্তায় সাড়ে তিন হাজার কেজি পটল আর বাকি ৭০ বস্তায় প্রায় সাত হাজার কেজি পেঁপে ছিল।

কারওয়ান বাজারের পাইকারি বিক্রেতা ইয়াসিন হোসেনের ছিল এই সবজিগুলো। কিন্তু ধর্মঘটের কারণে রাস্তায় কেটে গেছে প্রায় দুই দিন। এর মধ্যে যা হওয়ার হয়ে গেছে। গড়ে ১০০ কেজি ওজনের প্রতিটি বস্তাতেই এক-তৃতীয়াংশ করে পটল পচে গেছে।

ট্রাক ড্রাইভার শরিফুল ইসলাম বলেন, ‘সাতক্ষীরা থেকে যে সময়ে রওনা হয়েছি তাতে করে গত মঙ্গলবার রাত ১১টা থেকে ১২টার মধ্যে কারওয়ান বাজার পৌঁছার কথা ছিল। কিন্তু ঢাকায় এলাম বুধবার ভোরে। বস্তার মধ্যে দীর্ঘ সময় সবজি থাকায় পচে গেছে। ’ ট্রাক ভাড়া কত দিয়েছেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘ভাড়া বেশি লাগছে সাত হাজার। তবে রাস্তার মধ্যে যশোর, দৌলতদিয়া, পাটুরিয়াসহ বেশ কয়েকটি জায়গায় প্রায় চাঁদা দিতে হয়েছে ১০ হাজার টাকা।

কারওয়ান বাজারে দেখা গেল, সাত-আটজন শ্রমিক মিলে ৩৪ বস্তার পটলগুলো থেকে পচাগুলো সরিয়ে ফেলছে।

বাকিগুলোর যে অবস্থা তাতে আর সতেজ বলার উপায় নেই। জানতে চাইলে ইয়াসিন হোসেন বলেন, ‘কী আর করার আছে। লস তো হবেই। কিন্তু এখনো যা ভালো আছে তা বেচতে পারলে হয়তো কিছু পুঁজি উঠবে। ’

সারা দেশের পরিবহন শ্রমিকদের ডাকা ধর্মঘটের কারণে এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। এ রকম অনেক পাইকারের সবজিই দেরিতে ঢাকায় পৌঁছায় রাস্তার মধ্যেই পচে গেছে বলে জানা যায়। তবে দেরিতে হলেও সবজি কারওয়ান বাজারে প্রবেশ করেছে গত দুই দিন। ধর্মঘট শুরু হওয়ার আগের সময়টাতে পর্যাপ্ত সবজির সরবরাহ থাকায় ঘাটতির অবস্থা তৈরি হয়নি বলে জানায় বিক্রেতারা। বুধবার কারওয়ান বাজারের সবজি বিক্রেতা আলামীন বলেন, ‘পাইকারি বাজারে সবজির মজুদ কমেনি। তবে আজও যদি ধর্মঘট না শেষ হয় তবে কাল থেকে সবজির ঘাটতি হবে। ’

এ ছাড়া বৌবাজার, পশ্চিম রাজাবাজার, কারওয়ান বাজার, সেগুনবাগিচাসহ বেশ কয়েকটি বাজার ঘুরে দেখা গেছে, বুধবার সারা দিন ধর্মঘটে বিভিন্ন সবজি দুই থেকে পাঁচ টাকা বেশিতে বিক্রি হচ্ছে। তথ্য মতে, ১৫-১৮ টাকার আলু ২০ টাকায়, শিম ৪০-৪৫ টাকায়, বেগুন ৩৫ টাকায় (মঙ্গলবারের), বুধবার সংগ্রহ করা বেগুন ৪০-৪৫ টাকায়, ফুলকপি ২৫-৩০ টাকায়, বাঁধাকপি ২০-২৫ টাকায়, টমেটো ৩৫-৪০ টাকায়, কাঁচা মরিচ ৫০-৬০ টাকায়, পটল ৬০ টাকায়, গাজর ৩০-৩৫ টাকায়, দেশি পেঁয়াজ ২৫-৩০ টাকায় এবং ভারতীয় পেঁয়াজ ২৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

এদিকে গাড়ি না আসার কারণ দেখিয়ে বিভিন্ন বাজারে ১০-১৫ টাকা বেশিতে বিক্রি হচ্ছে ব্রয়লার মুরগি।

প্রতি কেজি মুরগি বিক্রি হচ্ছে ১৫৫-১৬০ টাকায়। যা মঙ্গলবার বিক্রি হয়েছে ১৪৫-১৫০ টাকায়। গরুর মাংস বিক্রি হচ্ছে আগের দামেই।

প্রতি কেজি গরুর মাংস বাজার ভেদে ৪৫০ থেকে ৫৩০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার থেকে শুরু হওয়া ধর্মঘট পরিবহন শ্রমিকরা প্রত্যাহার করে নিয়েছে বুধবার বিকেলে। এর প্রভাব নিত্যপণ্যের বাজারে খুব একটা পড়েনি বলে জানা গেছে।


মন্তব্য