kalerkantho


লেনদেন বাড়লেও কমেছে সূচক

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



লেনদেন বাড়লেও কমেছে সূচক

দ্বিতীয় দিনের মতো দেশের পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) মূল্য সংশোধন অব্যাহত রয়েছে। দুই বাজারেই সূচক কমলেও বেড়েছে লেনদেন।

যদিও আগের দিন দুই বাজারে সূচক ও লেনদেন কমেছিল।

সপ্তাহের তৃতীয় কার্যদিবস গতকাল মঙ্গলবার ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৩২৯টি কম্পানির ৩১ কোটি ২২ লাখ ৪৪ হাজার শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড। যার আর্থিক মূল্য এক হাজার ১৫২ কোটি ৪৪ লাখ টাকা। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল এক হাজার ২০ কোটি ২৯ লাখ টাকা। এই হিসাবে লেনদেন বেড়েছে ১৩২ কোটি ১৫ লাখ টাকা বা ১৩ শতাংশ।

আর মূল্যসূচক কমেছে ৮ পয়েন্ট। আগের দিন এই সূচক কমেছিল ১৫ পয়েন্ট। দিনশেষে সূচক দাঁড়িয়েছে পাঁচ হাজার ৬১২ পয়েন্টে। ডিএস-৩০ মূল্যসূচক প্রায় ৪ পয়েন্ট কমে দুই হাজার ২৫ পয়েন্ট ও ডিএসইএস শরিয়াহ সূচক ১.৮৩ পয়েন্ট কমে এক হাজার ৩০৫ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

লেনদেন হওয়া ৩২৯টি কম্পানির মধ্যে বেড়েছে ১৩৯টি, কমেছে ১৩৬টি ও অপরিবর্তিত রয়েছে ৫৪টি কম্পানির শেয়ারের দাম।

লেনদেনের ভিত্তিতে শীর্ষে রয়েছে অ্যাকটিভ ফাইন কেমিক্যাল। কম্পানিটির শেয়ার লেনদেন হয়েছে ৬৫ কোটি ৭১ লাখ টাকা। দ্বিতীয় স্থানে থাকা বেক্সিমকোর লেনদেন হয়েছে ৬৪ কোটি ৪০ লাখ টাকা। আর তৃতীয় স্থানে থাকা লঙ্কাবাংলা ফাইন্যান্সের লেনদেন হয়েছে ৪৩ কোটি ৭১ লাখ টাকা।

আরেক বাজার সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৯৩ কোটি ২৯ লাখ টাকা আর সিএসসিএক্স মূল্যসূচক কমেছে ১০ পয়েন্ট। আগের দিন এতে লেনদেন হয়েছিল ৫৯ কোটি ৪৪ লাখ টাকা। দিনশেষে সূচক দাঁড়িয়েছে দশ হাজার ৫৩৬ পয়েন্টে। লেনদেন হওয়া ২৫৭টি কম্পানির মধ্যে বেড়েছে ১০৯টি, কমেছে ১১৫টি ও অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৩টি কম্পানির শেয়ারের দাম।

ব্রিটিশ আমেরিকান ট্যোবাকোর লভ্যাংশ ঘোষণা : ২০১৬ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত হিসাব বছর শেষে শেয়ারগ্রাহকদের জন্য ৬০০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে ব্রিটিশ আমেরিকান ট্যোবাকো বাংলাদেশ কম্পানি (বিএটিবিসি)। এই সময়ে কম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ১২৬.৩৭ টাকা। আর শেয়ারপ্রতি সম্পদ (এনএভি) ৩১৪ টাকা। আগের বছর এই ইপিএস ছিল ৯৭.৯০ টাকা।


মন্তব্য