kalerkantho


অ্যাপারেল সামিটে অর্থমন্ত্রী

রপ্তানি আয়ের ৮২ শতাংশ আসে পোশাক খাত থেকে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



‘পোশাক তৈরি করতে আমরা তুলা ছাড়া অন্য সব অনুষঙ্গ দেশেই তৈরি করি। ফলে এই খাত শুধু পোশাক খাতই নয়, এটা আমাদের বস্ত্র খাতে পরিণত হয়েছে। রপ্তানি আয়ের ৮২ শতাংশ আসে এ খাত থেকে। ভবিষ্যতে রপ্তানি আয়ে এই খাত মৌলিক খাত হিসেবে চিহ্নিত হবে। ’ গতকাল শনিবার রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে দ্বিতীয় ঢাকা অ্যাপারেল সামিটের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত এসব কথা বলেন।

তৈরি পোশাক খাতের শীর্ষ সংগঠন বিজিএমইএ এই সামিটের আয়োজন করে। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বিজিএমইএ সভাপতি মো. সিদ্দিকুর রহমানের সভাপতিত্বে সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী, বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, শ্রম প্রতিমন্ত্রী মুজিবুল হক এবং বিজিএমইএ নেতারা।

সম্মেলনে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বিশ্বের সেরা ১০ কারখানার মধ্যে সাতটিই আমাদের। যুক্তরাষ্ট্রের গ্রিন বিল্ডিং কাউন্সিল এই সনদ দিয়েছে বাংলাদেশের কারখানাগুলোকে। ’ এ ছাড়া এ খাতের উন্নয়নে তিনি মালিক, শ্রমিক এবং উন্নয়ন সহযোগীদের একসঙ্গে কাজ করারও আহ্বান জানান।

অনুষ্ঠানে শ্রম প্রতিমন্ত্রী বলেন, দেশের পোশাক খাতের কারখানাগুলোর কর্মপরিবেশ এবং শ্রম অধিকার উন্নয়নে সরকার অনেক কার্যকর উদ্যোগ নিয়েছে। এ জন্য শ্রম আইন সংশোধন করা হয়েছে। শ্রমিকদের মজুরি ২২৩ শতাংশ বাড়ানো হয়েছে। কারখানাগুলোতে প্রায় ৫৬৬টি ট্রেড ইউনিয়ন এবং ৪০০টির বেশি পার্টিসিপেটরি কমিটি রয়েছে। শ্রমিকদের জন্য কল্যাণ তহবিল করা হয়েছে। যে তহবিল থেকে কর্মস্থলে দুর্ঘটনায় মারা গেলে পাঁচ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ পাবে তার পরিবার।


মন্তব্য