kalerkantho


ইন্টারনেট সেবায় রবির রাজস্ব বেড়েছে ৩৮.৯ শতাংশ

বাণিজ্য ডেস্ক   

২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



ইন্টারনেট সেবায় রবির রাজস্ব বেড়েছে ৩৮.৯ শতাংশ

ইন্টারনেট থেকে প্রাপ্ত রাজস্ব বেড়েছে রবি আজিয়াটার। গত বছরের চতুর্থ প্রান্তিকের (অক্টোবর থেকে ডিসেম্বর) হিসাবে এ রাজস্ব বাড়ে।

এ ছাড়া ২০১৫ সালের তুলনায় ২০১৬ সালে গ্রাহক ১৯.৫ শতাংশ বেড়ে হয়েছে তিন কোটি ৩৮ লাখ। গতকাল বৃহস্পতিবার প্রকাশিত রবি আজিয়াটার আর্থিক প্রতিবেদনে এ তথ্য তুলে ধরা হয়। এতে বলা হয়, ২০১৬ অর্থবছরে রাষ্ট্রীয় কোষাগারে রবি ২১.১ বিলিয়ন টাকা জমা দিয়েছে। এটি রবির মোট রাজস্বের ৪০.১ শতাংশ।

রবির আর্থিক প্রতিবেদনে ২০১৬ সালের চতুর্থ প্রান্তিক ও পুরো অর্থবছরের অর্থনৈতিক ফলাফল তুলে ধরে বলা হয়, নিয়ন্ত্রক সংস্থার নির্দেশে বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে সিম পুনর্নিবন্ধনের কারণে চ্যালেঞ্জ নিয়েই ২০১৬ সালের শুরু। এর ফলে নতুন সংযোগ গ্রহণের হার কমে যাওয়ায় গ্রাহক বৃদ্ধির হারও কমে আসে। নিয়ন্ত্রক সংস্থার নির্দেশে বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে নিবন্ধিত হয়নি এমন সংযোগ নিষ্ক্রিয় করার পর আরো নেতিবাচক প্রভাব পড়ে গ্রাহক বৃদ্ধির প্রবণতায়।

একীভূতকরণের পর রবির গ্রাহকসংখ্যা তিন কোটি ৩৮ লাখে দাঁড়িয়েছে, যা দেশের মোট মোবাইল ফোন গ্রাহকের ২৬.৯ শতাংশ (প্রাক্কলিত) এবং রবি আবির্ভূত হয়েছে দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম মোবাইল ফোন অপারেটর হিসেবে।

২০১৫ সালের তুলনায় ২০১৬ সালে মোট রাজস্ব ০.৫ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে, ইন্টারনেট সেবা থেকে রাজস্ব বৃদ্ধির পরিমাণ আশাব্যঞ্জক ৩৮.৯ শতাংশ।

৩.৫জি ও ২.৫জি ইন্টারনেট ব্যবহার বৃদ্ধির জন্য নেটওয়ার্ক খাতে উল্লেখযোগ্য বিনিয়োগ এবং সাশ্রয়ী মূল্যে উদ্ভাবনী ডাটা অফারের ফলে ইন্টারনেট থেকে রাজস্ব বৃদ্ধি পেয়েছে।

২০১৬ সালে রবির পরিচালন মুনাফার (ইবিআইটিডিএ) পরিমাণ ২৭.২ শতাংশ। রাজস্বের পরিমাণ তেমন বৃদ্ধি না পাওয়া, নেটওয়ার্ক খাতে ক্রমাগত বিনিয়োগের ফলে নেটওয়ার্ক পরিচালনায় ব্যয় বৃদ্ধি এবং এককালীন একীভূতকরণ ফি ও চার্জের কারণে এই মুনাফা ২০১৫ সালের তুলনায় ৯.২ শতাংশ পয়েন্ট কম। দেশজুড়ে নেটওয়ার্কের আধুনিকায়নে বিনিয়োগের ফলে প্রত্যাশিত মুনাফা অর্জন করতে পারেনি রবি।

একীভূত হওয়ার কারণে ২০১৬ সালের তৃতীয় প্রান্তিক থেকে রবি বেশ কয়েকটি উল্লেখযোগ্য পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। গ্রাহককেন্দ্রিক সেবাকে প্রাধান্য দেওয়ায় মূল্য নিয়ে বাজারে তুমুল প্রতিযোগিতার মধ্যেও পূর্ববর্তী প্রান্তিক থেকে এ প্রান্তিকের রাজস্ব ৫ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে।


মন্তব্য