kalerkantho


বাল্লা স্থলবন্দর কার্যক্রম শিগগিরই শুরু

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি   

১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



বাল্লা স্থলবন্দর কার্যক্রম শিগগিরই শুরু

শিগগিরই শুরু হবে বাল্লা স্থলবন্দরের অবকাঠামো উন্নয়নের কাজ। এতে উভয় দেশের মধ্যে সুসম্পর্ক,  ব্যবসা-বাণিজ্য উন্নয়ন ও কর্মসংস্থান বাড়বে। জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) চেয়ারম্যান ও সিনিয়র সচিব নজিবুর রহমান এ কথা বলেছেন।

সীমান্তের কেদারাকোট এলাকায় সম্ভাব্য বাল্লা স্থলবন্দর পরিদর্শন শেষে নজিবুর রহমান বলেন, ‘ইতিমধ্যে স্থলবন্দরের ভূমি অধিগ্রহণের কাজ অনেকাংশে এগিয়েছে। রাস্তা প্রশস্ত করা হয়েছে। দ্রুততম সময়ের মধ্যে বাল্লা স্থলবন্দরের দৃশ্যমান অগ্রগতি হবে। ’

সেখানে নজিবুর রহমান ভারতীয় প্রতিনিধিদলের প্রধান বাণীব্রত চক্রবর্তীসহ অন্যদের সঙ্গে কথা বলেন।

পরে গাজিপুর ইউনিয়ন অফিস হলরুমে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে সিলেট বিভাগ কাস্টমস কমিশনার শফিকুল হকের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন এনবিআর চেয়ারম্যান। বিশেষ অতিথি ছিলেন হবিগঞ্জের ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক সফিউল আলম, চুনারুঘাট উপজেলা চেয়ারম্যান মো. আবু তাহের, সিলেট চেম্বারের পরিচালক লায়েক চৌধুরী প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, হবিগঞ্জ সীমান্তের বালা স্থলবন্দরটি ১৯৫১ সালে ৪.৩৭ একর জমির ওপর প্রতিষ্ঠিত হয়।

এ স্থান দিয়ে বর্তমানে দুই দেশের মধ্যে ব্যবসা-বাণিজ্য চলে আসছে। এখানে রয়েছে চেকপোস্টসহ সীমান্ত ঘাঁটি। ২০১২ সালের ১১ জুন কেদারাকোট নামক স্থানে স্থলবন্দর স্থাপনের সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের জন্য বাংলাদেশ-ভারতের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের একটি যৌথ প্রতিনিধিদল সীমান্ত এলাকা পরিদর্শন করে।


মন্তব্য