kalerkantho


‘২০১৮ সালে নতুন উচ্চতায় পৌঁছাবে বিমান’

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



‘২০১৮ সালে নতুন উচ্চতায় পৌঁছাবে বিমান’

গতকাল বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের প্রশিক্ষণকেন্দ্রে কর্মশালা শেষে প্রশিক্ষণার্থীদের সঙ্গে কর্মকর্তারা।

২০১৮ সালের মধ্যে বিশ্বের সবচেয়ে আধুনিক উড়োজাহাজ বোয়িং ৭৮৭ ড্রিমলাইনার সংযোজনের মাধ্যমে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস নতুন উচ্চতায় পৌঁছাবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন বিমানের পরিচালক প্রশাসন মো. বেলায়েত হোসেন। তিনি বলেন, ‘বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস ১৬ কোটি মানুষের প্রতিষ্ঠান। দেশের মানুষের কাছে বিমান দায়বদ্ধ। বিমানের উন্নয়ন ও সমৃদ্ধিতে উদ্যোগ নেওয়া আমাদের দায়িত্ব। ’

গতকাল বাংলাদেশ এয়ারলাইনস ট্রেনিং সেন্টারে (বিএটিসি) অনুষ্ঠিত এভিয়েশনবিষয়ক সাংবাদিকদের পেশাগত উন্নয়নে আয়োজিত কর্মশালায় মো. বেলায়েত হোসেন এসব কথা বলেন। এই কর্মশালায় দেশের বিভিন্ন গণমাধ্যমের সাংবাদিকরা অংশগ্রহণ করেন। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের উদ্যোগে এই কর্মশালায় বিমান ও এভিয়েশন বিষয়ে বিভিন্ন তথ্য তুলে ধরা হয়। কর্মশালা শেষে অংশগ্রহণকারী সাংবাদিকদের মধ্যে সনদ বিতরণ করেন বিমানের পরিচালক প্রশাসন মো. বেলায়েত হোসেন। তিনি বলেন, সংবাদমাধ্যমের মাধ্যমে বিমান দেশের মানুষের কাছে পরিচিত হয়। তবে সংবাদে ভুল থাকলে বিমানের যে ক্ষতি হবে, তা পূরণীয় নয়।

বিমানের মহাব্যবস্থাপক জনসংযোগ শাকিল মেরাজের পরিচালনায় ওই কর্মশালায় সাংবাদিকদের এভিয়েশন ও বিমান সংক্রান্ত তথ্য তুলে ধরেন বিমানের পরিচালক (কাস্টমার সার্ভিস) আতিক সোবহান, বিএটিসির প্রিন্সিপাল পার্থ কুমার পণ্ডিত, মহাব্যবস্থাপক (করপোরেট সেফটি) মুহাম্মদ আব্দুল ওয়াদুদ, ম্যানেজার (রেভিনিউ ম্যানেজমেন্ট) শহিদুল হাসান, সহকারী ব্যবস্থাপক (নিরাপত্তা) মুহাম্মদ মাসুদ পারভেজ।

কর্মশালায় এভিয়েশন অ্যান্ড ট্যুরিজম জার্নালিস্ট ফোরাম অব বাংলাদেশের (এটিজেএফবি) সভাপতি নাদিরা কিরন, সহসভাপতি আলতাব হোসেন, সাধারণ সম্পাদক ইশতিয়াক হোসাইন ও বিমানের সহকারী ব্যবস্থাপক জনসংযোগ তানসিম আকতার উপস্থিত ছিলেন।


মন্তব্য