kalerkantho


সাত দিন পর পুঁজিবাজারে মূল্য সংশোধন

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



একটানা সাত কার্যদিবস মূল্যসূচক বাড়ার পর মূল্য সংশোধনে ফিরেছে দেশের দুই পুঁজিবাজার—ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ (সিএসই)। বেশির ভাগ কম্পানির শেয়ার দামের সঙ্গে কমেছে লেনদেন ও মূল্যসূচক। এতে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স কমেছে ১৮ পয়েন্ট আর সিএসইতে কমেছে ২৩ পয়েন্ট।

ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান খাতের শেয়ারে কয়েক দিন নিম্নমুখী প্রবণতা ছিল। তবে গতকাল আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর শেয়ারের দাম কিছুটা বেড়েছে। আগের দিনগুলোর মতো গতকালের বাজারেও লেনদেনে শীর্ষে ছিল ওষুধ ও রসায়ন খাত।

সপ্তাহের চতুর্থ কার্যদিবস গতকাল বুধবার ডিএসইতে ৩৩০ কম্পানির ২৯ কোটি আট লাখ শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের লেনদেন হয়েছে, যার আর্থিক মূল্য এক হাজার ৫৩ কোটি ৬১ লাখ টাকা। আর মূল্যসূচক কমেছে ১৮ পয়েন্ট। যদিও আগের দিনের চেয়ে লেনদেন কমেছে ১২০ কোটি সাত লাখ টাকা। মঙ্গলবার লেনদেন হয়েছিল এক হাজার ১৭৩ কোটি ৬৮ লাখ টাকা। আর মূল্যসূচক বেড়েছিল ৪০ পয়েন্ট।

আর্থিক প্রতিষ্ঠান খাতে আগের দিন লেনদেন কমলেও বুধবার বেড়েছে। এই খাতে লেনদেন হয়েছে ১৫১ কোটি ৩৪ লাখ টাকা বা মোট লেনদেনের ১৩.৩৪ শতাংশ। প্রায় ৫ শতাংশ লেনদেন বেড়েছে। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৯২ কোটি ৯ লাখ টাকা বা ৮.৫৩ শতাংশ। ব্যাংক খাতের লেনদেন হয়েছে ১১৪ কোটি টাকা বা ১০.০৫ শতাংশ। আগের দিন এই লেনদেন ছিল ১১০ কোটি ২৬ লাখ টাকা বা ১০.২২ শতাংশ। কয়েক দিন থেকেই ঊর্ধ্বমুখী থাকা ওষুধ ও রসায়ন খাতে লেনদেন কিছুটা কমেছে। এই খাতে লেনদেন হয়েছে ১৯৫ কোটি ৪৮ লাখ টাকা বা ১৭.২৩ শতাংশ। সেই হিসাবে লেনদেন কমেছে ২.৮৬ শতাংশ। এদিকে সিএসই লেনদেন হয়েছে ৬১ কোটি ৬৫ লাখ টাকা। আর মূল্যসূচক কমেছে ২৩ পয়েন্ট।


মন্তব্য