kalerkantho


পুঁজিবাজারে লেনদেন ৬২২ কোটি টাকার

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবস গতকাল সোমবার দেশের দুই পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচক বেড়েছে। তবে দুই বাজারেই কমেছে লেনদেনের পরিমাণ। যার মধ্যে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৫৭৬ কোটি ২২ লাখ টাকা আর সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৪৬ কোটি ৭১ লাখ টাকা।  

টানা মূল্যবৃদ্ধির পর গত ২৯ জানুয়ারি মুদ্রানীতি ঘোষণার পর মূল্যপতন হয় পুঁজিবাজারে। এরপর থেকে সাত কার্যদিবস লেনদেনের মধ্যে চার দিনই সূচক ও লেনদেন কমে। আর দুই দিন সামান্যই বাড়ে। সপ্তম দিনে সূচক বাড়লেও লেনদেন নেমেছে ৫০০ কোটি টাকার ঘরেই।

সোমবার ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৫৭৬ কোটি ২২ লাখ টাকা আর মূল্যসূচক বেড়েছে ৪০ পয়েন্ট। সেই হিসাবে লেনদেন কমেছে ১০১ কোটি ৭৪ লাখ টাকা। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৬৭৭ কোটি ৯৬ লাখ টাকা। আর মূল্যসূচক বেড়েছিল ৪২ পয়েন্ট।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, লেনদেন শুরুর পর থেকেই টানা ১০ মিনিট সূচক বাড়ে। সকাল ১০টা ৪০ মিনিটের পর থেকে আবারও ১০ মিনিট সূচক কমে। পরবর্তী সময়ে লেনদেন শেষ হওয়া পর্যন্ত একটানা সূচক বৃদ্ধি পায়। এতে ঊর্ধ্বমুখিতায় দিনের লেনদেন শেষ হয়। দিনশেষে সূচক দাঁড়িয়েছে পাঁচ হাজার ৩৬৩ পয়েন্ট। লেনদেন হওয়া ৩২৫টি কম্পানির মধ্যে বেড়েছে ২২৩টি, কমেছে ৭১টি ও  অপরিবর্তিত রয়েছে ৩১টি কম্পানির শেয়ারের দাম।

লেনদেনের ভিত্তিতে শীর্ষে রয়েছে সাইফ পাওয়ার। কম্পানিটির ৩৫ কোটি ৫১ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা লংকাবাংলা ফাইন্যান্সের লেনদেন হয়েছে ৩২ কোটি ৯৮ লাখ টাকা আর তৃতীয় স্থানে থাকা অ্যাপোলো ইস্পাতের লেনদেন হয়েছে ২১ কোটি ৫০ লাখ টাকা। সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৪৬ কোটি ৭১ লাখ টাকা। আর মূল্যসূচক বেড়েছে ৮৯ পয়েন্ট। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৪১ কোটি ৫০ লাখ টাকা আর মূল্যসূচক কমেছিল ৯৬ পয়েন্ট। লেনদেন হওয়া ২৫১টি কম্পানির মধ্যে বেড়েছে ১৬৪টি, কমেছে ৫৮টি ও অপরিবর্তিত রয়েছে ২৯টি কম্পানির শেয়ারের দাম।


মন্তব্য