kalerkantho


বিক্রি বেড়েছে ইলেকট্রনিক পণ্যের

বর্ধিত সময়েও জমজমাট বাণিজ্য মেলা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



বর্ধিত সময়েও জমজমাট বাণিজ্য মেলা

ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা শেষ হচ্ছে ৪ ফেব্রুয়ারি। শেষ সময়ে বাণিজ্য মেলায় দর্শনার্থীর চেয়ে বেড়েছে ক্রেতাদের ভিড়। মেলায় প্রসাধনী, ইলেকট্রনিকস, শীতকালীন পোশাক, খেলনা, গহনা, গৃহস্থালি পণ্যের স্টল ও প্যাভিলিয়নে ক্রেতাদের ঢল নেমেছে। প্রতিটি স্টলেই বিভিন্ন পণ্যে বিশেষ মূল্য ছাড় ও উপহার দেওয়া হচ্ছে।

বাণিজ্য মেলায় ইলেকট্রনিক পণ্যের মধ্যে টেলিভিশন, ফ্রিজ, গৃহস্থালি পণ্য ও মোবাইল ফোনসেট বিক্রি বেশি বেড়েছে বলে জানান প্যাভিলিয়নের ইনচার্জ শফিকুল ইসলাম। তিনি বলেন, এবার মেলায় সবচেয়ে বেশি বিক্রি হচ্ছে ওয়ালটন ব্র্যান্ডের নতুন মডেলের ৩৩৩ লিটারের গ্লাস ডোর রেফ্রিজারেটর। এ ছাড়া ৩১৭ লিটার ও ৩৩৩ লিটারের ফ্রস্ট ফ্রিজ, ২৮৩ লিটারের স্মার্ট ইন্টেলিজেন্ট ইনভার্টার প্রযুক্তির কম্প্রেসারসংবলিত ডিজিটাল ডিসপ্লে, সাইড বাই সাইড নন-ফ্রস্ট ফ্রিজ ও ব্যাচেলর ফ্রিজ ক্রেতাদের কাছে হটকেকে পরিণত হয়েছে।

প্যাভিলিয়নের সমন্বয়ক শাহ মোহাম্মদ শহীদ জানান, মেলায় তাঁরা পাঁচ শতাধিক মডেলের প্রযুক্তি পণ্য প্রদর্শন ও বিক্রি করছেন। এর মধ্যে রয়েছে শতাধিক নতুন মডেলের ফ্রিজ, এলইডি ও স্মার্ট টেলিভিশন, ল্যাপটপ, স্মার্টফোনসহ অন্যান্য হোম ও ইলেকট্রিক্যাল অ্যাপ্লায়েনস।

স্ত্রী ও ছেলেকে নিয়ে বাণিজ্য মেলায় ওয়ালটন প্যাভিলিয়ন থেকে ফ্রিজ কেনেন ঢাকার আজিমপুরের শামসুল আলম। তিনি বলেন, ‘ওয়ালটনের পণ্য দামেও সাশ্রয়ী। সর্বোপরি দেশীয় পণ্য। ৮ শতাংশ নগদ ছাড়ে ওয়ালটনের নতুন মডেলের একটি ফ্রস্ট ফ্রিজ কিনেছি। ’

প্যাভিলিয়নে কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, মেলায় সর্বনিম্ন ১৩ হাজার ৯০০ টাকা থেকে শুরু করে ৫৭ হাজার ৯০০ টাকা দামের ফ্রিজ রয়েছে। মেলায় সব মডেলের ফ্রিজে ৮ শতাংশ মূল্য ছাড় আছে। কিছু কিছু মডেলের সঙ্গে গিফট দেওয়া হচ্ছে কেক মেকার, ফ্লোর ক্লিনার, মপ সেট, হেয়ার স্ট্রেইটনার ইত্যাদি। নন-ফ্রস্ট ফ্রিজের সঙ্গে রয়েছে স্ট্যাবিলাইজার ও মপ সেট। ঢাকার ভেতরে আছে ফ্রি হোম ডেলিভারিরও সুবিধা।

ওয়ালটন প্যাভিলিয়নের বিক্রয় প্রতিনিধি কায়ছার আহম্মেদ জানান, মেলায় ১৯ থেকে শুরু করে ৫৫ ইঞ্চি পর্যন্ত এলইডি টিভি বিক্রি হচ্ছে। এর মধ্যে ১৯ ইঞ্চি টেলিভিশনের পাঁচটি, ২০ ইঞ্চির একটি, ২৪ ইঞ্চির পাঁচটি, ২৮ ইঞ্চির তিনটি, ৩২ ইঞ্চির ১৪টি, ৩৯ ইঞ্চির একটি, ৪০ ইঞ্চির একটি, ৪৩ ইঞ্চির দুটি, ৪৯ ইঞ্চির দুটি ও ৫৫ ইঞ্চির তিনটি মডেল রয়েছে। এর মধ্যে বেশি বিক্রি হচ্ছে ৩২, ২৮ ও ২৪ ইঞ্চি এলইডি টেলিভিশন। ওয়ালটনের এলইডি টিভির দাম আট হাজার ৯৯০ টাকা থেকে শুরু করে এক লাখ ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত। এই দামের ওপর ৫ শতাংশ মূল্য ছাড়সহ থাকছে উপহার। এ ছাড়া ৯৮ ইঞ্চির ফোরকে, ৭৫ ইঞ্চির ফুল এইচডি ও কোয়ান্টাম ডট প্লাস প্রযুক্তির আগামী প্রজম্মের স্পেকট্রাকিউ টিভিসহ কয়েকটি আপকাপিং মডেলের টেলিভিশন প্রদর্শন করা হচ্ছে।

ঢাকার উত্তরা থেকে ব্যবসায়ী মো. ওবায়েদ ওয়ালটন প্যাভিলিয়নে এসেছিলেন একটি টিভি কিনতে। তিনি বলেন, মেলায় নতুন নতুন মডেলের টিভি পাওয়া যায় এবং কিছুটা ডিসকাউন্টও মেলে বিধায় এখান থেকেই ৩২ ইঞ্চির একটি স্মার্ট টিভি কিনলাম। মেলায় ৫ শতাংশ মূল্য ছাড় দিচ্ছে যমুনা ইলেকট্রনিকস। প্রতিষ্ঠানটির হোম অ্যাপ্লায়েনস, এসি ও টিভি কিনলেই এ ছাড় দেওয়া হচ্ছে।

এদিকে মিনিস্টার-মাইওয়ান প্যাভিলিয়নে ইলেকট্রনিক পণ্যের ওপর মূল্য ছাড় দেওয়া হচ্ছে। এ ছাড়া অন্যান্য পণ্যে কার্ড ঘষলেই রয়েছে দুই থেকে ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত ছাড় অথবা পুরোটাই ফ্রি। এ অফার বাণিজ্য মেলার শেষ দিন পর্যন্ত চলবে।


মন্তব্য