kalerkantho

রবিবার। ৪ ডিসেম্বর ২০১৬। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


দুর্গাপূজা, কালীপূজা ও দশেরা উৎসব

২৫ হাজার কোটি রুপি ছাড়াবে ভারতে অনলাইন কেনাকাটা

নিজস্ব প্রতিবেদক, কলকাতা   

৫ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



২৫ হাজার কোটি রুপি ছাড়াবে ভারতে অনলাইন কেনাকাটা

ভারতের চলতি উৎসব মৌসুমে অনলাইনের কেনাকাটার পরিমাণ ২৫ হাজার কোটি রুপি অতিক্রম করবে। সেপ্টেম্বরের ঈদ থেকে শুরু এই উৎসব।

মৌসুমে নবরাত্রি, দুর্গাপূজা, কালীপূজা, দীপাবলি, ভাইফোঁটার মতো বড় ধর্মীয় উৎসবের আবহ শেষ হতে নভেম্বর গড়িয়ে যাবে। আর এই তিন মাসেই অনলাইনের কেটাকাটায় ২৫ হাজার কোটি রুপি ক্রেতা-বিক্রেতার হাতবদল হবে বলে জানিয়েছে ভারতের প্রাচীনতম বণিক সংগঠন দি অ্যাসোসিয়েটেড চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি অব ইন্ডিয়া বা অ্যাসোচেম।

অ্যাসোচেম কলকাতা, মুম্বাই, দিল্লি, চেন্নাই, লক্ষেৗ, ইন্দোর, বেঙ্গালুরু, হায়দরাবাদ, জয়পুরের মতো মেগা সিটিতে অনলাইন ক্রেতাদের ওপর একটি জরিপ চালায়। সেই জরিপে এই ধরনের তথ্য উঠে আসে এবং দুদিন আগে অ্যাসোচেম তাদের নিজস্ব ওয়েবসাইটে তা প্রকাশ করে।

এ বিষয়ে অ্যাসোচেমের সম্পাদক এস রাওয়াত সাংবাদিকদের বলেন, ভারতীয়রা দিন দিন অনলাইন কেনাকাটায় অভ্যস্ত হয়ে পড়ছে। এটা এখন হালকা কোনো তথ্য নয়। গত বছর ইন্টারনেট নির্ভর কেনাকাটায় যেখানে ২০ হাজার কোটি রুপির লেনদেন হয়েছিল, সেখানে চলতি বছর এই উৎসবের মৌসুমে কমপক্ষে ২৫ হাজার রুপি ছড়িয়ে যাবে। অ্যাসোচেমের সমীক্ষা পদ্ধতি সম্পর্কে জানাতে গিয়ে তিনি আরো বলেন, ভারতের বিভিন্ন বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের প্রায় আড়াই হাজার কর্মী যাদের বয়স ২৫ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে, তাদের ওপর সমীক্ষা চালানো হয়েছিল। আড়াই হাজার ক্রেতার মধ্যে ৬০ শতাংশ জানিয়েছে, কাজের ব্যস্ততা থাকায় তাদের কর্মস্থল থেকে বাইরে কোনো শপিং মলে গিয়ে জিনিস কেনার সুযোগ হয় না। তাই তারা অনলাইনেই শপিং করে এবং তাতে তারা স্বাচ্ছন্দ্যও বোধ করে।

স্মার্টফোন, মোবাইল অ্যাকসেসরিজ, টেলিভিশন, ফ্রিজ থেকে শুরু করে জামাকাপড়, কসমেটিকস এবং জুয়েলারির মতো জিনিসের প্রতি আগ্রহ বাড়ছে বলে সমীক্ষায় জানানো হয়।

অনলাইন ক্রেতারা মনে করে, অনলাইনের পছন্দের জিনিস কিনলে সেই জিনিসের দাম কিস্তিতে মেটানোর সুযোগটাই অনলাইন ক্রেতাদের আরো আগ্রহী করে তুলছে। একই সঙ্গে পছন্দের জিনিস কেনার পর সেটা ১০ থেকে ১২ দিনের মধ্যে ফেরত দেওয়ার যে সুবিধা ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলো দেওয়া শুরু করেছে, সেটাও ক্রেতাদের মধ্যে অনলাইন শপিং করার জন্য ইতিবাচক করে তুলছে।

জরিপে আরো উঠে এসেছে, অনলাইন ক্রেতারা সবচেয়ে বেশি আগ্রহ দেখাচ্ছে এই ভেবে যে তারা যেকোনো শপিং মল থেকে অনলাইনে কেনা জিনিসের দাম কম পাচ্ছে বলেও অ্যাসোচেমের সমীক্ষা রিপোর্টে দাবি করা হয়।


মন্তব্য