kalerkantho


‘নতুন কিছুই করার নেই যুবকের গ্রাহকদের জন্য’

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



যুব কর্মসংস্থান সোসাইটির (যুবক) কার্যক্রম বন্ধের পর গ্রাহকদের অর্থ ফেরত দেওয়ার জন্য দফায় দফায় কমিটি ও কমিশন গঠনের পর গতকাল অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বললেন, যুবকের ক্ষতিগ্রস্ত গ্রাহকদের জন্য নতুন কিছুই করার সুযোগ নেই।

গ্রাহকরা যুবকের বিরুদ্ধে মামলা না করায় বিস্ময় প্রকাশ করে তিনি বলেন, এত মানুষ যুবকে বিনিয়োগ করেছে, অথচ তাদের একজনও আদালতে যায়নি।

যুবকের সম্পত্তি যাতে অন্য কোথাও চলে যেতে না পারে, এখন শুধু সে ব্যবস্থা নেওয়া যেতে পারে। গতকাল বিকেলে অর্থ মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে যুবক নিয়ে অনুষ্ঠিত এক আন্তমন্ত্রণালয় বৈঠকে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

যুবকে প্রশাসক নিয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়ে তা অনুমোদনের জন্য মাস কয়েক আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে পাঠিয়েছিল বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। তাতে অনুমোদন না দিয়ে প্রধানমন্ত্রী এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করতে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়কে অনুশাসন দেন। এ প্রসঙ্গে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যুবকের বিষয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়কে আমার সঙ্গে আলোচনা করতে বলেছিলেন। সেই আলোচনা আজ হয়েছে। ’

সভায় বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেন, যুবকের সম্পত্তি এলোমেলোভাবে আছে। এমন সংস্থায় বিনিয়োগের আগে গ্রাহকদের সতর্ক হওয়া উচিত ছিল। এ ছাড়া ক্ষতিগ্রস্ত গ্রাহকরা আদালতে যেতে পারতেন, মামলা করতে পারতেন।

কিন্তু তাঁদের কোনো খোঁজ নেই।

যুবকে প্রশাসক নিয়োগের উদ্যোগ সম্পর্কে জানতে চাইলে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, প্রশাসক নিয়োগের সুপারিশ বাস্তবসম্মত কি না, তা ভেবে দেখা হবে।

বৈঠকে বাণিজ্য, বাংলাদেশ ব্যাংক, আইন মন্ত্রণালয় ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিরাও উপস্থিত ছিলেন।


মন্তব্য