kalerkantho

শনিবার । ৩ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ২ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


পাটের মোড়ক বাধ্যতামূলক হচ্ছে আরো ১২ পণ্যে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



পাটের মোড়ক বাধ্যতামূলক হচ্ছে আরো ১২ পণ্যে

ধান, চাল, গম, ভুট্টা, সার ও চিনি—এই ছয়টি পণ্যের মোড়কীকরণে বর্তমানে পাটের বস্তা বাধ্যতামূলক। জাতীয় সংসদে আইন করে এগুলোতে পাটের মোড়ক বাধ্যতামূলক করা হয়।

এ নিয়ে এ বছরের শুরুতে সারা দেশে ব্যাপক অভিযান পরিচালনা করে পাট মন্ত্রণালয়। যেখানে আগে চাল, চিনি ইত্যাদি পণ্য পলি বা প্লাস্টিকের বস্তায় মোড়ক করা হতো, এখন তাতে ব্যবসায়ীরা বাধ্যতামূলক পাটের বস্তা ব্যবহার করছে। এই পরিবর্তনের ফলে একদিকে যেমন পরিবেশের উন্নতি ঘটেছে, তেমনিভাবে পাটচাষিরা উপকৃত হচ্ছে।

এরই ধারাবাহিকতায় সরকার এবার আরো ১২টি পণ্যের মোড়কে পাটের ব্যবহার বাধ্যতামূলক করার পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে। এগুলো হচ্ছে ফিশ ফিড, পোল্ট্রি ফিড, আদা, রসুন, পেঁয়াজ, হলুদ, মরিচ, ডাল, ধনিয়া, আটা-ময়দা, তুষ-কুড়া ও আলু। পণ্যে ‘পাটজাত মোড়কের বাধ্যতামূলক ব্যবহার আইন-২০১০’ সুষ্ঠুভাবে শতভাগ বাস্তবায়ন হওয়ায় নতুন ১২ পণ্যের বিষয়ে উদ্যোগ নিয়েছে মন্ত্রণালয়।

গতকাল মঙ্গলবার সচিবালয়ে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের সভা কক্ষে পাটবিষয়ক উপদেষ্টা কমিটির সভায় এমন সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন বস্ত্র ও পাট প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজম। তিনি বলেন, বাংলাদেশকে আবারও সোনালি আঁশের দেশ হিসেবে রূপান্তর করে পাটের হারানো ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে সক্ষম হয়েছে সরকার। খুব তাড়াতাড়ি আরো ১২টি পণ্য মোড়কীকরণের ক্ষেত্রে পাটজাত পণ্যের ব্যবহার বাধ্যতামূলক করা হচ্ছে। এ ছাড়া পাটকে কৃষিপণ্য হিসেবে ঘোষণা করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

সভায় বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের সচিব এম এ কাদের সরকার, বিজেএমসি চেয়ারম্যান ড. মাহমুদুল হাসান, অতিরিক্ত সচিব নজরুল আনোয়ার ছাড়াও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, অর্থ মন্ত্রণালয়, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়, বাংলাদেশ ব্যাংক, পরিকল্পনা কমিশন, জাতীয় রাজস্ব বোর্ড এবং পাটবিষয়ক উপদেষ্টা কমিটির সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় পাটজাত পণ্যকে কৃষিপণ্য ও প্রক্রিয়াজাত কৃষিপণ্যের তালিকাভুক্ত করার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর প্রদত্ত সানুগ্রহ ঘোষণাকে জরুরি ভিত্তিতে বাস্তবায়ন বিষয়ে অগ্রগতি পর্যালোচনা হয়। পাটশিল্পের ব্লক ঋণ ফেরত দেওয়ার সময় পাঁচ বছর থেকে বৃদ্ধি করে ১০ বছর করার বিষয়ে আলোচনা হয়।


মন্তব্য