kalerkantho

শনিবার । ১০ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


নাটোরে কাঁচা মরিচ ২০০ টাকা কেজি

নাটোর প্রতিনিধি   

২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



বািজারে কাঁচা মরিচের সরবরাহ কমে যাওয়ায় দাম বাড়ছে নাটোরে। স্থানীয় বাজারে গতকাল কাঁচা মরিচ ১৯০ থেকে ২০০ টাকায় বিক্রি হয়েছে।

নাটোরের মাদরাসা বাজার, নিচা বাজার, স্টেশন বাজার ঘুরে এ চিত্র দেখা গেছে। অথচ এক সপ্তাহ আগেও ১০০ থেকে ১২০ টাকায় কাঁচা মরিচ বিক্রি হয়েছে। তবে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, কাঁচা মরিচ উত্পাদনের শেষ সময় চলছে, যার কারণে বাজারে সরবরাহ কমে গেছে। নতুন মরিচ বাজারে এলেই দাম কমে যাবে।

নাটোর মাদরাসা বাজারের সবজি বিক্রেতা আব্দুর রহিম শেখ জানান, হঠাৎ করেই স্থানীয় বাজারে কাঁচা মরিচের সরবরাহ কমে গেছে। এ কারণে দাম বৃদ্ধি পাচ্ছে। গত সপ্তাহে ১০০ থেকে ১২০ টাকায় কাঁচা মরিচ বিক্রি হয়েছে।

আরেক সবজি বিক্রেতা হেলাল উদ্দিন বলেন, দেশের বিভিন্ন স্থানে বন্যায় সবজিসহ কাঁচা মরিচের ক্ষেত নষ্ট হয়েছে। ফলে বাজারে মরিচের সরবরাহ কমে গেছে।

নাটোর কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর জানায়, গত বছর নাটোরের সাতটি উপজেলায় ২৯৫ হেক্টর জমিতে কাঁচা মরিচের চাষ হয়। দামও ভালো পায় কৃষকরা। কিন্তু এ বছর কমেছে কাঁচা মরিচের আবাদ। ২৯৫ হেক্টর জমির বিপরীতে এ বছর আবাদ হয়েছে মাত্র ২৩৭ হেক্টর জমিতে।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক ড. আলহাজ উদ্দিন আহাম্মেদ বলেন, জেলায় বন্যায় ফসলের ক্ষেত ক্ষতিগ্রস্ত না হলেও সবজিসহ কাঁচা মরিচের দাম বৃদ্ধি পাচ্ছে। কাঁচা মরিচ উত্পাদনের শেষ সময় এখন, যার কারণে বাজারে সরবরাহ কমে গেছে। আগামী এক-দুই মাসের মধ্যে নতুন করে কৃষকরা মরিচ গাছ রোপণ করবে। নতুন মরিচ বাজারে এলেই দাম কমে যাবে।


মন্তব্য