kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


বাংলাদেশ-ভারত ও নেপালের মধ্যে রেল যোগাযোগ হচ্ছে

বাণিজ্য ডেস্ক   

১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



বাংলাদেশ-ভারত ও নেপালের মধ্যে রেল যোগাযোগ হচ্ছে

দুই বাংলার মধ্যে যোগাযোগের আরো একটি পথ খুলছে পশ্চিমবঙ্গের উত্তর দিনাজপুরের রাধিকাপুর দিয়ে। শুধু দুই বাংলা নয়, এই রেল ক্রমেই বাংলাদেশ-ভারত ও নেপালের মধ্যে যোগাযোগ সৃষ্টি করবে।

খবর বাংলানিউজ।

ভারতীয় রেল সূত্রে জানা যায়, চলতি সেপ্টেম্বর মাসের মধ্যেই ওই পথ দিয়ে বাংলাদেশের দিনাজপুর জেলার বিরল স্টেশন পর্যন্ত পণ্যবাহী ট্রেন চলাচল করবে। ইতিমধ্যে পরীক্ষামূলকভাবে ভারতের অংশে রেল চালানো হয়েছে। এই রেলপথ চালু হলে পণ্য পরিবহনের ক্ষেত্রে আরেকটি মাইলস্টোন স্থাপন হবে বলে মনে করছে সংশ্লিষ্টরা।

জানা যায়, সার্ক চুক্তি অনুযায়ী এই প্রকল্পটি চালু করা হবে। এই রেলপথ দুই দেশের বাণিজ্যের ক্ষেত্রে যথেষ্ট ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে। ফলে খুব সহজে লবণ, পেঁয়াজ, আদা, সাইকেলের যন্ত্রাংশসহ বিভিন্ন পণ্য বাংলাদেশে পাঠানো সম্ভব হবে। অন্যদিকে বাংলাদেশ থেকে বিভিন্ন পণ্য ভারতে পরিবহন করা যাবে। রেল অফিস জানায়, এই রেলপথটি সম্প্রসারিত করে নেপালের যোগবানী পর্যন্ত নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে। ফলে তিন দেশের মধ্যে রেল যোগাযোগ ঘটবে। আর নেপালে রেলের অবকাঠামো তৈরিতে সাহায্য করবে ভারতীয় রেল। ২০০৫ সালের ১ এপ্রিল পর্যন্ত এই পথে ট্রেন চলছিল। পরে রেলপথটি বন্ধ হয়ে যায়। স্বাধীনতার আগে এই পথ দিয়ে বাংলাদেশের পার্বতীপুর জংশনে গিয়ে দার্জিলিং হয়ে কলকাতায় যেতে পারত যাত্রীরা। পণ্যবাহী ট্রেনের এই পরিষেবা চালু হওয়ার সম্ভাবনায় খুশি এলাকার সাধারণ মানুষ।


মন্তব্য