kalerkantho

রবিবার। ৪ ডিসেম্বর ২০১৬। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


পোশাকশিল্প এলাকায় শনি ও রবিবার ব্যাংক খোলা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



ঈদের আগে পোশাকশিল্পে কর্মরত বিপুলসংখ্যক শ্রমিক-কর্মচারীর বেতন-বোনাস দেওয়ার সুবিধার্থে আগামী শনি ও রবিবার ছুটির মধ্যেও পোশাকশিল্প এলাকাসংলগ্ন ব্যাংক শাখা খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

গতকাল সোমবার বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে জারি করা এক সার্কুলারে বলা হয়েছে, আসন্ন কোরবানির ঈদের আগে তৈরি পোশাক শিল্পে কর্মরত শ্রমিক ও কর্মচারীদের বেতন, বোনাস ও অন্য ভাতাদি পরিশোধের সুবিধার্থে ঢাকা মহানগরী, আশুলিয়া, টঙ্গী, গাজীপুর, সাভার, নারায়ণগঞ্জ ও চট্টগ্রামে অবস্থিত পোশাকশিল্প এলাকার বাণিজ্যিক ব্যাংকের শাখাগুলো আগামী শনি ও রবিবার পূর্ণদিবস খোলা রাখার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।

লেনদেনের সময়সূচি যথারীতি সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। তবে ব্যাংক শাখা খোলা রাখার জন্য পর্যাপ্ত নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে ব্যাংক কর্তৃপক্ষকে। তা ছাড়া ওই দুই দিন ছুটির মধ্যেও অফিসের কাজে যোগদানকারী কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের যুক্তিসংগত ভাতা দেওয়ার জন্যও বলেছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

এবার কোরবানির ঈদ উদ্যাপিত হবে মঙ্গলবার। ঈদের তিন দিনের ছুটি শুরু হবে আগামী সোমবার থেকে। এর আগে শুধু একটি কর্মদিবস রয়েছে রবিবার। গতকাল ওই কর্মদিবসটিকে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা যায় কি না সে বিষয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠকে আলোচনা হয়েছে বলে জানা গেছে। আর এই সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হলে আগামী শুক্রবার থেকে টানা ছুটি শুরু হবে। ঈদের ছুটি শেষ হবে ১৫ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার। ওই দিনটি ছুটি ঘোষণা করা হলে এবারও টানা ৯ দিনের ছুটি পড়বে। গত রোজার ঈদেও টানা ৯ দিনের ছুটি ছিল।

কাস্টমস হাউস সচল রাখা : রপ্তানিমুখী তৈরি পোশাক শিল্পের আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্য সচল রাখার লক্ষ্যে আসন্ন ঈদুল আজহার আগে আগামী শুক্র থেকে রবিবার পর্যন্ত তিন দিন কাস্টমস হাউস (ঢাকা, চট্টগ্রাম, মংলা, পানগাঁও ও বেনাপোল), আইসিডি কমলাপুর, কাস্টমস বন্ড কমিশনারেট, ঢাকা ও চট্টগ্রাম খোলা থাকবে। সেই সঙ্গে এসব কাস্টম হাউস/স্টেশনে সংশ্লিষ্ট বন্দর, ব্যাংক ও অন্য অত্যাবশ্যক স্টেকহোল্ডিং প্রতিষ্ঠানও খোলা রাখার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ জানিয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড।

 


মন্তব্য