kalerkantho


অর্থপাচারের অনেক তথ্য বেরিয়ে আসতে পারে আজ

বাণিজ্য ডেস্ক   

২৯ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



অর্থপাচারের অনেক তথ্য বেরিয়ে আসতে পারে আজ

বাংলাদেশ ব্যাংকের অর্থ চুরি নিয়ে ফিলিপাইনে প্রায় দুই সপ্তাহ ধরে তদন্ত চললেও এত দিন ধরাছোঁয়ার বাইরে ছিলেন প্রধান অভিযুক্ত কিম অংগ। অবশেষে আজ মঙ্গলবার সিনেট তদন্ত কমিটির সামনে হাজির হচ্ছেন সেই চীনা ব্যবসায়ী। ধারণা করা হচ্ছে, তাঁর শুনানির মধ্য দিয়ে অনেক প্রশ্নের উত্তর মিলবে।

তদন্ত কমিটির সামনে সব খুলে বলবেন বলে জানিয়েছেন ক্যাসিনো ব্যবসায়ী কিম অংগ। তাঁকে নিয়ে বেশ কিছু মিথ্যা বক্তব্যের ব্যাপারেও তিনি সঠিক জবাব দেবেন। দৈনিক ইনকোয়রারকে পাঠানো এক মোবাইল বার্তায় এ তথ্য জানিয়েছেন সিনেটর প্যানফিলো ল্যাকসন। খুদে বার্তায় তিনি লিখেছেন, ‘আমার পরামর্শ অনুযায়ী অংগ প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন মঙ্গলবার সিনেটের শুনানিতে সব খুলে বলবেন। ’

সিঙ্গাপুরে চিকিৎসা শেষে গত সপ্তাহে ফিলিপাইনে ফেরেন এ ব্যবসায়ী। তাঁর পাশাপাশি আজ সিনেটের শুনানিতে অংশ নেবেন ফিলিপাইনের অন্যতম শীর্ষ ক্যাসিনো সোলায়ারের আইন বিশেষজ্ঞ। তবে শুনানিতে রিজাল কমার্শিয়াল ব্যাংকিং করপোরেশনের (আরসিবিসি) জুপিটার স্ট্রিট শাখার চাকরিচ্যুত ব্যবস্থাপক মায়া সান্তোস-দেগুইতো অংশ নেওয়ার কথা থাকলেও তিনি আসতে অপারগতা জানিয়েছেন।

আজকের এ শুনানিতে কিম অংগকেই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অভিযুক্ত হিসেবে আনা হচ্ছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের চুরি হওয়া আট কোটি ১০ লাখ ডলার আরসিবিসি ব্যাংকের যে চার অ্যাকাউন্টে জমা হয়, ভুয়া কাগজপত্র দিয়ে ওই অ্যাকাউন্টগুলো খুলতে বলেছিলেন অংগ। সিনেটে দেওয়া বক্তব্যে জুপিটার স্ট্রিট শাখার ব্যবস্থাপক মায়া দেগুইতো এমনটি জানিয়েছিলেন। এরপর থেকেই চীনা এ ব্যবসায়ীকে খোঁজা হচ্ছে। তাঁর বিরুদ্ধে অবৈধ অর্থপাচারের দায়ে অভিযোগ আনে অ্যান্টি মানি লন্ডারিং কাউন্সিল (এএমএলসি)।

এএমএলসির তথ্য অনুযায়ী কিমের অ্যাকাউন্ট থেকে এ অর্থ চলে যায় চীনা ব্যবসায়ী উইলিয়াম সো গোর অ্যাকাউন্টে। সেখান থেকে রেমিট্যান্স প্রতিষ্ঠান ফিলরেমের মাধ্যমে এ অর্থ ফিলিপাইনের মুদ্রা পেসোতে রূপান্তর হয়ে ক্যাসিনোগুলোতে চলে যায়। ফিলরেমের প্রেসিডেন্ট তদন্ত কমিটিকে জানিয়েছেন, তিন কোটি ডলার অর্থ উইকাংগ ঝু নামে এক ক্যাসিনো ব্যবসায়ীর কাছে গেছে। দুই কোটি ১০ লাখ ডলার গেছে পূর্ব হুয়াই অঞ্চলের একটি ক্যাসিনোতে। আরো দুই কোটি ৯০ লাখ ডলার ম্যানিলার অদূরে সোলায়ার নামের আরেকটি ক্যাসিনোতে যায়। যেটি শুধু ফিলিপাইনে নয়, বিশ্বের অন্যতম জুয়ার আসর হিসেবে খ্যাত। ধারণা করা হচ্ছে, কিম অংগকে জিজ্ঞাসাবাদ করলেই সব প্রশ্নের জট খুলবে আজ।

আজকের শুনানিতে অংশ নেবেন সোলায়ার রিসোর্ট অ্যান্ড ক্যাসিনোর আইনজীবী। তিনিও অনেক তথ্য প্রকাশ করবেন বলে জানা গেছে। তবে স্বাস্থ্যগত সমস্যার কথা জানিয়ে সিনেট তদন্ত কমিটির কাছ থেকে এক সপ্তাহের ছুটি চেয়েছেন মায়া সান্তোস-দিগুইতো। তাঁর আইনজীবী রেনে সাগুগিসাগ বলেন, মঙ্গলবার সিনেট ব্লু রিবন কমিটির শুনানিতে তিনি আসতে পারবেন না স্বাস্থ্যগত সমস্যার কারণে। এ জন্য তাঁরা কমিটির কাছে আবেদন করেছেন। গত ৯ ফেব্রুয়ারি থেকেই তিনি মানসিক চাপসহ শারীরিক অসুস্থতার মধ্যে আছেন। আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে থাকা এ শাখা ব্যবস্থাপক ইতিমধ্যে দুটি শুনানিতে অংশ নিয়েছেন। ইনকোয়রার।


মন্তব্য