kalerkantho

শুক্রবার । ২০ জানুয়ারি ২০১৭ । ৭ মাঘ ১৪২৩। ২১ রবিউস সানি ১৪৩৮।


‘দেশি এয়ারলাইনসগুলোও পাবে হ্যাঙ্গার সুবিধা’

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৩ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



দেশীয় এয়ারলাইনসগুলোকে হ্যাঙ্গার সুবিধা দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন। তিনি বলেন, দেশীয় এয়ারলাইনসগুলো বারবার হ্যাঙ্গার সুবিধা বাড়ানোর কথা বলেছে। এ জন্য বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষকে (বেবিচক) প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বলেন মন্ত্রী। গতকাল মঙ্গলবার সকালে হযরত শাহজালাল বিমানবন্দরে নভোএয়ার আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে প্রাইভেট এয়ারলাইনসের জন্য বিমানবন্দরে আলাদা টার্মিনাল সুবিধা থাকলেও দেশের বেসরকারি এয়ারলাইনসগুলো রক্ষণাবেক্ষণ কার্যক্রমের জন্য হ্যাঙ্গার সুবিধা থেকে দীর্ঘদিন বঞ্চিত। প্রত্যেকটি এয়ারলাইনসের নিয়মিত মেইনটেন্যান্স চেকআপ, সি-চেক, ডি-চেক, এ-চেকসহ নানা ধরনের চেক করার স্বার্থে এ সুবিধার দাবি জানিয়ে আসছিল বেসরকারি এয়ারলাইনসগুলো।

রাশেদ খান মেনন বলেন, ‘যুক্তরাজ্য বাংলাদেশ থেকে সরাসরি কার্গো যাতায়াতের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। যদি তারা রাজনৈতিকভাবে এ নিষেধাজ্ঞা আরোপ না করে থাকে তবে আশা করছি খুব অল্প সময়ের মধ্যেই এ নিষেধাজ্ঞা উঠে যাবে। বিমানবন্দরের নিরাপত্তার দায়িত্ব নিয়েছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক প্রতিষ্ঠান রেডলাইন। ’

বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের (বেবিচক) সাবেক চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল এম সানাউল হক বলেন, বিনিয়োগ ও নিরাপত্তাই এয়ারলাইনস ব্যবসায় সফলতার চাবিকাঠি। যেকোনো এয়ারলাইনসকে বিনিয়োগ করার সময় অবশ্যই নিরাপত্তাকে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিয়ে কাজ করতে হবে। এ সময় উপস্থিত ছিলেন নভোএয়ারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মফিজুর রহমান, বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের (বেবিচক) বর্তমান চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল এহসানুল গণি চৌধুরী প্রমুখ।


মন্তব্য