kalerkantho

26th march banner

শত কোটি টাকার ব্যবসা নারিকেলে

কাজল কায়েস, লক্ষ্মীপুর   

১৮ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



শত কোটি টাকার ব্যবসা নারিকেলে

লক্ষ্মীপুরে এবার প্রায় ১০০ কোটি টাকার নারিকেল উত্পাদন হয়েছে। এখানকার উত্পাদিত নারিকেল সুস্বাদু ও তেলের গুণগত মান ভালো হওয়ায় তা জেলাবাসীর চাহিদা মিটিয়ে সরবরাহ হচ্ছে ঢাকা, চট্টগ্রাম ও খুলনাসহ দেশের বিভিন্ন জেলায়।

সংশ্লিষ্টরা বলছে, উপকূলীয় এ জেলায় নারিকেলভিত্তিক শিল্প-কারখানা স্থাপিত হলে ব্যাপক কর্মসংস্থানের সুযোগের পাশাপাশি অর্থনীতিও ত্বরান্বিত হবে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, লক্ষ্মীপুর সদর, রায়পুর, রামগঞ্জ, কমলনগর ও রামগতিতে বসতবাড়ির আঙিনায় কিংবা কৃষি জমির পাশে পতিত জমিতে নারিকেল গাছ লাগিয়ে বেশ লাভবান হচ্ছেন চাষিরা। এতে করে দিন দিন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে নারিকেল চাষ। রায়পুর উপজেলার কেরোয়া, চরপাতা, মধুপুরসহ জেলার বিভিন্ন স্থানে যত দূর চোখ যায়, নারিকেল গাছের সবুজ হাতছানি চোখে পড়ে। তবে পরিকল্পিতভাবে চাষাবাদ হলে গ্রামীণ অর্থনীতিতে বিপ্লব ঘটানো সম্ভব বলে মনে করছে সংশ্লিষ্টরা।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের ভাষ্য মতে, লক্ষ্মীপুরে দুই হাজার ৬৫০ হেক্টর জমিতে নারিকেল বাগান রয়েছে। প্রতিবছর এ জেলায় যে নারিকেল উত্পাদন হয়, তার বাজারমূল্য প্রায় ১০০ কোটি টাকা। এক জোড়া নারিকেল এখানে বিক্রি হয় ৪০ থেকে ৫০ টাকা করে। এখানকার উত্পাদিত নারিকেল জেলাবাসীর চাহিদা মিটিয়ে প্রতিদিনই ঢাকা, চট্টগ্রাম ও খুলনাসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় যাচ্ছে। স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, জেলায় নারিকেলের সবচেয়ে বড় হাট বসে সদর উপজেলার দালাল বাজারে। নারিকেল বেচাকেনা ও ছোবড়া বের করার কাজে শতাধিক নারী-পুরুষের কর্মসংস্থানের সৃষ্টি হয়েছে এ বাজারকে কেন্দ্র করে। এ ছাড়া রায়পুরের হায়দরগঞ্জ বাজারেও নারিকেলের বাজার জমজমাট।

হায়দরগঞ্জ মডেল স্কুলের শিক্ষক মোস্তফা কামাল বলেন, ‘নারিকেলের ছোবড়াও বিক্রি হচ্ছে ভালো দামে। যা দিয়ে তৈরি হচ্ছে জাজিম, পাপস ও ওয়ালমেটসহ বিভিন্ন পণ্যসামগ্রী। এখান থেকে ব্যবসায়ীরা নারিকেলের পাশাপাশি কিনে নিচ্ছেন এসব ছোবড়াও। নারিকেলকে ঘিরে স্থানীয় অর্থনীতিও চাঙ্গা থাকে। ’

লক্ষ্মীপুর জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক কৃষিবিদ মো. গোলাম মোস্তফা বলেন, ‘লক্ষ্মীপুরে বছরে প্রায় ১০০ কোটি টাকার নারিকেল উত্পাদন হয়। এ অঞ্চলে নারিকেলভিত্তিক শিল্প-কারখানা গড়ে উঠলে কৃষকরা যেমন লাভবান হতেন, তেমনি গতিশীল হতো দেশের অর্থনীতি। ’


মন্তব্য