kalerkantho

পুঁজিবাজারে দরপতন

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৭ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



পুঁজিবাজারে দরপতন

টানা দুই দিন সূচকের পতনের তৃতীয় কার্যদিবসে লেনদেন ও সূচক বেড়েছিল পুঁজিবাজারে। তবে চতুর্থ কার্যদিবস আবারও দুই বাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) বড় ধরনের পতন হয়েছে। কমেছে লেনদেনের পরিমাণও। গতকাল বুধবার ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৩৭০ কোটি ৭৪ লাখ টাকা। আর সূচক কমেছে ২৯ পয়েন্ট। লেনদেন কমেছে ৬৪ কোটি ৩২ লাখ টাকা। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৪৩৫ কোটি ছয় লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড। আর সূচক বেড়েছিল ৮ পয়েন্ট।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, লেনদেন শুরুর পর থেকেই বাজারে পতন শুরু হয়। ক্রমেই সূচকের পতন ঘটে। এতে পতনের মধ্যে দিয়ে দিনের লেনদেন শেষ হয়েছে। দিনশেষে সূচক দাঁড়িয়েছে চার হাজার ৪৪৬ পয়েন্ট।

ডিএস-৩০ মূল্যসূচক ২০ পয়েন্ট কমে এক হাজার ৬৯৩ পয়েন্ট ও ডিএসইএস শরিয়াহ সূচক ৭ পয়েন্ট কমে এক হাজার ৮০ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। লেনদেন হওয়া ৩০৮টি কম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছে ১১৩টির, কমেছে ১৪৮টির ও দাম অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৭ কম্পানির শেয়ারের দাম।

লেনদেনের ভিত্তিতে শীর্ষে রয়েছে সামিট পাওয়ার, এএফসি অ্যাগ্রো, অলটেক্স ইন্ডাস্ট্রি, লঙ্কাবাংলা ফাইন্যান্স, আমান ফিডস, অরিয়ন ইনফিউশন, সামিট পূর্বাচল, অরিয়ন এক্সেসরিজ, শাহজিবাজার পাওয়ার ও অরিয়ন ফার্মা।

দাম বৃদ্ধির শীর্ষে রয়েছে মিরাকল ইন্ডাস্ট্রি, অলটেক্স ইন্ডাস্ট্রি, ইবিএল, এমআই সিমেন্ট, ফু-ওয়াং সিরামিকস, কেয়া কসমেটিকস, সিএমসি কামাল, সপ্তম আইসিবি, আমান ফিডস ও তসরিফা ইন্ডাস্ট্রি।

সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ২৬ কোটি ৭৭ লাখ টাকা। আর সূচক কমেছে ৬৫ পয়েন্ট।

দিনশেষে সূচক দাঁড়িয়েছে আট হাজার ৩২৩ পয়েন্ট। লেনদেন হওয়া ২৩০টি কম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছে ৮০টির, কমেছে ১১৫টির ও দাম অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৫ কম্পানির শেয়ার।


মন্তব্য