সোনামসজিদে এবার সব পণ্য আমদানি বন্ধ-333367 | শিল্প বাণিজ্য | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

শুক্রবার । ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৬। ১৫ আশ্বিন ১৪২৩ । ২৭ জিলহজ ১৪৩৭


সোনামসজিদে এবার সব পণ্য আমদানি বন্ধ

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি   

৮ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



চাঁপাইনবাবগঞ্জের সোনামসজিদ স্থলবন্দর দিয়ে এক দিন পাথর আমদানি বন্ধ থাকার পর গতকাল সোমবার থেকে সব ধরনের পণ্য আমদানি বন্ধ করে দিয়েছেন আমদানিকারকরা। ভারতীয় রপ্তানিকারকদের নিম্নমানের পাথর সরবরাহের প্রতিবাদে দ্বিতীয় দফায় পাথর আমদানি বন্ধের সঙ্গে এবার সব পণ্য আমদানি বন্ধ করে দেওয়া হয়। এতে কার্যত স্থবির হয়ে পড়েছে স্থলবন্দরটি। গত দুই দিনে সরকার বঞ্চিত হয়েছে তিন কোটি টাকার রাজস্ব আয় থেকে।

বন্দর সূত্র জানিয়েছে, বাংলাদেশে পাথরের ব্যাপক চাহিদাকে পুঁজি করে ভারতীয় রপ্তানিকারকরা দফায় মূল্যবৃদ্ধিসহ নিম্নমানের পাথর সরবরাহ শুরু করে। এতে গত ৬ ফেব্রুয়ারি সোনামসজিদ স্থলবন্দর আমদানিকারক গ্রুপ পাথর আমদানি বন্ধ ঘোষণা করে। ওই সময় পাঁচ দিন পাথর আমদানি বন্ধ থাকার পর ভারতের মোহদীপুর এক্সপোর্ট অ্যাসোসিয়েশন ও সোনামসজিদ আমদানিকারক গ্রুপের নেতারা যৌথ বৈঠকে সমঝোতায় আসেন। তখন আবারও পাথর আমদানি শুরু হয়। সোনামসজিদ স্থলবন্দর সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সিনিয়র সহসভাপতি তাজুল ইসলাম জানান, মোহদীপুর এক্সপোর্ট অ্যাসোসিয়েশন ও সোনামসজিদ আমদানিকারক গ্রুপের মধ্যে অনুষ্ঠিত বৈঠকে নেতারা পরিচ্ছন্ন পাথর সরবরাহ, টনের পরিবর্তে সিএফটিতে ওজন এবং দাম কমানোর ব্যাপারে একমত হলেও পরে তাঁরা বাস্তবায়ন করেননি। রবিবার থেকে আবারও পাথর আমদানি বন্ধ করে দেওয়া হয়।

সোনামসজিদ শুল্ক বন্দরের সহকারী কমিশনার সাঈদ আহম্মেদ রুবেল বলেন, ‘আমদানিকারক ও রপ্তানিকারকদের মধ্যে সৃষ্ট সমস্যার কারণে বন্দরে পণ্য আমদানি বন্ধ রয়েছে।’

মন্তব্য