kalerkantho

25th march banner

দর হারিয়েছে বেশির ভাগ কম্পানি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



চতুর্থ দিনের মতো দেশের দুই পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) টানা সূচক পতন অব্যাহত রয়েছে। সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবস গতকাল সোমবারও দেশের দুই বাজারেই সূচক কমেছে। কিন্তু সূচক কমলেও দুই বাজারেই বেড়েছে লেনদেনের পরিমাণ। তবে বেশির ভাগ কম্পানির দামও হ্রাস পেয়েছে। বাজার সূত্রে এমন তথ্য জানা গেছে।

গতকাল ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৪৬২ কোটি ৯২ লাখ টাকা। আর সূচক কমেছে ২৫ পয়েন্ট। তবে লেনদেন বেড়েছে ৩৮ কোটি ৫৯ লাখ টাকা। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৪২৪ কোটি ৩৩ লাখ টাকার শেয়ার। তবে সূচক কমেছিল ৩১ পয়েন্ট।

বাজার বিশ্লেষণে জানা যায়, গত কয়েক দিন ধরেই বাজারে বিক্রির চাপ রয়েছে। দিনের শুরুতেই বাজারে শেয়ার বিক্রির চাপে সূচকে ধারাবাহিকভাবে পতন ঘটছে। গতকালও শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত ধারাবাহিক পতনেই লেনদেন শেষ হয়েছে। দিনশেষে সূচক দাঁড়িয়েছে চার হাজার ৫১১ পয়েন্ট।

ডিএস-৩০ মূল্যসূচক ১৪ পয়েন্ট কমে এক হাজার ৭২২ পয়েন্ট ও ডিএসইএস শরিয়াহ সূচক পয়েন্ট ৮ পয়েন্ট কমে এক হাজার ৯৯ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। লেনদেনে অংশ নেওয়া ৩১৭টি কম্পানির মধ্যে বেড়েছে ৯৭টি, কমেছে ১৭৩টি ও অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৮টি কম্পানির শেয়ারের দাম।

লেনদেনের ভিত্তিতে শীর্ষে রয়েছে—লঙ্কাবাংলা ফাইন্যান্স, ওরিয়ন ফার্মা, ইফাদ অটোস, সিঙ্গার বিডি, বিএসআরএম, সিএমসি কামাল, লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট, বেক্সিমকো ফার্মা, জাহিন স্পিনিং ও কাশেম ড্রাইসেল।

সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৫১ কোটি তিন লাখ টাকা। আর সূচক কমেছে ৪৫ পয়েন্ট। লেনদেন বেড়েছে প্রায় ২৩ কোটি টাকা। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ২৮ কোটি ৮৩ লাখ টাকার শেয়ার। সূচক কমেছিল ৬২ পয়েন্ট। দিনশেষে সূচক দাঁড়িয়েছে আট হাজার ৪৫৮ পয়েন্ট। লেনদেন হওয়া ২৪০টি কম্পানির মধ্যে বেড়েছে ৬১টি, কমেছে ১৫২টি ও অপরিবর্তিত রয়েছে ২৭টি কম্পানির শেয়ারের দাম।


মন্তব্য