kalerkantho


আইপিডিসি আনল গৃহঋণ সেবা ‘ভালো বাসা’

বাণিজ্য ডেস্ক   

১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০



আইপিডিসি আনল গৃহঋণ সেবা ‘ভালো বাসা’

আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইপিডিসি ফাইন্যান্স নিয়ে এলো সহজ শর্তে ‘ভালো বাসা’ গৃহঋণ সেবা। নিয়মিত মাসিক আয় কমপক্ষে ২০ হাজার হলেই যে কেউ এই ঋণ নেওয়ার জন্য আবেদন করতে পারবেন এবং ঋণ পরিশোধের সর্বোচ্চ সময়সীমা ২৫ বছর।

একজন গ্রাহক কত টাকা পর্যন্ত ঋণ পেতে পারেন, তা মূলত নির্ভর করবে তাঁর আয় ও সম্পত্তির মূল্যমানের ওপর। ঋণ পরিশোধ ক্ষমতা যাচাইয়ের ক্ষেত্রে গ্রাহকের আয়সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় প্রমাণাদি ও স্থাবর সম্পত্তির অর্থমূল্য বিবেচনা করা হবে। এ ক্ষেত্রে একজন গ্রাহক সম্পত্তির মূল্যমানের সর্বাধিক ৯০ শতাংশ পর্যন্ত ঋণ পেতে পারেন। ঢাকা ও চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন এলাকার জমিগুলো ‘ভালো বাসা’ গৃহঋণের আওতার বাইরে থাকবে। অ্যাপার্টমেন্ট ক্রয়, নিজস্ব ও ব্যবসার স্বার্থে গৃহ নির্মাণ, গৃহ ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পুনর্নির্মাণের প্রয়োজনে ঋণসুবিধাসহ আরো অনেক সুবিধা নিয়ে সাজানো হয়েছে ‘ভালো বাসা’ গৃহঋণ সুবিধা।

আইপিডিসি ফাইন্যান্সের এমডি ও সিইও মমিনুল ইসলাম বলেন, ‘নিজ শহরেই আপন ঠিকানা নির্মাণে গ্রাহকদের জন্য এই সাশ্রয়ী গৃহঋণ সুবিধাটি নিয়ে এসেছি। আইপিডিসি স্বল্প সময়ের মধ্যে ঋণ অনুমোদন করে থাকে। ঋণ নিতে ইচ্ছুক গ্রাহকদের আমাদের প্রতিনিধি ঋণ আবেদনের প্রতিটি ধাপেই সহযোগিতা করবে।’

ঋণের জন্য আবেদনকারীদের মধ্যে বেতনভুক্ত চাকরিজীবীদের জন্য স্যালারি সার্টিফিকেট, সর্বশেষ তিন মাসের পে-স্লিপ, সিভি; অস্থায়ী চাকরিজীবীর ক্ষেত্রে চাকরিদাতার সঙ্গে চুক্তিপত্রের ফটোকপি; বাসা/জমি ভাড়ার ক্ষেত্রে মালিকানাস্বত্বের দলিল (ফটোকপি), নামজারির সকল কাগজ-প্রস্তাবপত্র, খতিয়ান (ফটোকপি) ডিসিআর ডুপ্লিকেট কার্বন রসিদ (ফটোকপি), ভূমি কর, ভাড়ার বিবরণ এবং ব্যাবসায়িক আয়ের ক্ষেত্রে তিন বছরের হালনাগাদকৃত ট্রেড লাইসেন্স (ফটোকপি), প্রতিষ্ঠানের গত এক বছরের সকল ব্যাংক স্টেটমেন্ট, গত ছয় মাসের বিক্রয় রেজিস্টার প্রয়োজন হবে।



মন্তব্য