kalerkantho


মূল্য ঘোষণা নতুন ভ্যাট আইনে নেই

ড. মো. আব্দুর রউফ   

১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



মূল্য ঘোষণা নতুন ভ্যাট আইনে নেই

নতুন ভ্যাট আইন আগামী ১ জুলাই থেকে কার্যকর হচ্ছে। নতুন ভ্যাট আইন নিয়ে জনমনে অনেক জিজ্ঞাসা রয়েছে।

আজ আমরা নতুন ভ্যাট আইনের একটি সুবিধা নিয়ে আলোচনা করব।

মূল্য ঘোষণা বর্তমান ভ্যাট আইনের একটি পদ্ধতি। বর্তমানে অধিকাংশ পণ্যের ক্ষেত্রে মূল্য ঘোষণা দিতে হয়। মূল্য ঘোষণা দেওয়ার পদ্ধতি বেশ জটিল। ধরুন একজন উত্পাদনকারী ১৫০ গ্রাম ওজনের সাবান উত্পাদন করে। এক পিস সাবানে কী কী কাঁচামাল কতটুকু ব্যবহার করা হয় এবং তার কতটুকু উত্পাদন প্রক্রিয়ায় বর্জ্য হয়ে যায় তার ঘোষণা দিতে হয়। সে উপকরণের প্রতিটির মূল্য কত তার ঘোষণা দিতে হয়। উপকরণের পর আসে মূল্য সংযোজন। একটি সাবান উত্পাদন করতে বিভিন্ন খাতে কী পরিমাণ মূল্য সংযোজন হয় তার ঘোষণা দিতে হয়।

এভাবে যাবতীয় উপকরণ মূল্য এবং যাবতীয় মূল্য সংযোজন একত্র করে পণ্যের উত্পাদন পর্যায়ের মূল্য নির্ধারিত হয়। সার্বিক হিসাব করে নির্ধারিত মূল্য ভ্যাট কর্তৃপক্ষের কাছে জমা দিতে হয়। এভাবে ঘোষিত মূল্য ভ্যাট দপ্তরের বিভাগীয় কর্মকর্তা কর্তৃক অনুমোদন করতে হতো এত দিন। গত বাজেটের সময় এই অনুমোদনের বিধান বাতিল করা হয়েছে। এখন আর বিভাগীয় কর্মকর্তা মূল্য ঘোষণা অনুমোদন করেন না। তবে তিনি যদি মনে করেন যে ঘোষিত মূল্য সঠিক নয়, তাহলে তিনি তা পরবর্তী সিদ্ধান্তের জন্য কমিশনারের কাছে পাঠিয়ে দেবেন। কমিশনার প্রয়োজন মনে করলে নির্দিষ্ট পদ্ধতিতে মূল্য ঘোষণায় সংশোধন করতে পারবেন। আমাদের বর্তমান ভ্যাট ব্যবস্থায় যে কয়েকটি বিষয় ব্যবসায়ী-শিল্পপতিদের জন্য অসুবিধাজনক তার মধ্যে একটি অন্যতম বিষয় হলো এই মূল্য ঘোষণা। মূল্য ঘোষণা প্রস্তুত করা, দাখিল করা, অনুমোদন করানো ইত্যাদি কাজের জন্য দক্ষ জনবলের প্রয়োজন হয়। আমাদের দেশে বর্তমানে ভ্যাট বিষয়ে দক্ষ ও অভিজ্ঞ জনবলের অভাব রয়েছে। ভ্যাটদাতা এবং ভ্যাট অফিসারদের মধ্যে যেসব বিষয় নিয়ে মতানৈক্যের সৃষ্টি হয় তার মধ্যে অন্যতম হলো এই মূল্য ঘোষণা।

মূল্য ঘোষণা ভ্যাট ব্যবস্থার একটি বিচ্যুতি। মানসম্মত ভ্যাট ব্যবস্থায় মূল্য ঘোষণা নেই। বিক্রেতা যে মূল্যে বিক্রি করবে সে মূল্যের ওপর ভ্যাট পরিশোধ করবে এটাই হলো স্বাভাবিক নিয়ম। কিন্তু নানা কারণে আমাদের দেশের বর্তমান ভ্যাট আইনে মূল্য ঘোষণা রাখা হয়েছিল। নতুন ভ্যাট আইনে মূল্য ঘোষণা প্রদান বা অনুমোদনের কোনো বিধান রাখা হয়নি। যে মূল্যে বিক্রি হবে সে মূল্যের ওপর ভ্যাট পরিশোধ করতে হবে। নতুন ভ্যাট আইনে যথাযথ বিক্রয়মূল্যকে ন্যায্য বাজারমূল্য বলে অভিহিত করা হয়েছে। নতুন ভ্যাট ব্যবস্থায় মূল্য ঘোষণা দাখিল করতে হবে না, ভ্যাট কর্তৃপক্ষ কর্তৃক অনুমোদন করতে হবে না, ন্যায্য বাজারমূল্যের ওপর ভ্যাট আরোপিত হবে। সে বিবেচনায় নতুন ভ্যাট আইনের বিধান পূর্বের ভ্যাট আইনের বিধানের তুলনায় অধিকতর সহজ এবং ব্যবসাবান্ধব।     

লেখক : জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের প্রথম সচিব

roufvat@gmail.com


মন্তব্য