kalerkantho

শুক্রবার । ২ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


পর্যটন বর্ষের কর্মকাণ্ড এখনো দৃশ্যমান হয়নি

২ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



পর্যটন বর্ষের কর্মকাণ্ড এখনো দৃশ্যমান হয়নি

জামিউল আহমেদ,সভাপতি টিডাব

২০১৬ সালকে সরকার পর্যটন বর্ষ ঘোষণা করলেও কার্যত পর্যটন বর্ষই হয়নি বলে মন্তব্য করেছেন ট্যুরিজম ডেভেলপার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (টিডাব) সভাপতি জামিউল আহমেদ। তিনি বলেন, ‘পর্যটন বর্ষ মানে একটি পরিকল্পনা, সে অনুযায়ী বেশ কিছু কর্মসূচি, কিন্তু কর্মসূচি কি কিছু হয়েছে? মূলত পর্যটন বর্ষ বিষয়টি দৃশ্যমান হয়নি।

ফলে পর্যটন বর্ষ সফল হয়েছে কি হয়নি এ বিষয়েও আমাদের এখন কিছু বলার নেই। যে সন্তান ভূমিষ্ঠ হয়নি, তার সম্পর্কে আমরা কী বলতে পারি। সন্তান ভূমিষ্ঠ হওয়ার কথা ছিল, কিন্তু কেন হয়নি সেটা সরকার বলতে পারবে। ’ তিনি আরো বলেন, ‘একটি দেশ পর্যটন বর্ষ ঘোষণা করলে অনেক আগে থেকেই পরিকল্পনা ও কর্মসূচি ঠিক করে রাখে। মালয়েশিয়ার মতো দেশ তিন-চার বছর আগে পর্যটন বর্ষ ঘোষণা করে। এর জন্য তারা ভালোভাবে প্রস্তুতি নেয় বিশাল কর্মযজ্ঞে সফল হওয়ার জন্য। তাদের একটি টার্গেট মার্কেট থাকে, কী সংখ্যক পর্যটক আনা হবে সে লক্ষ্যও থাকে। কিন্তু আমাদের কোনো টার্গেট নেই, কোনো কর্মযজ্ঞ নেই, তাহলে আমরা কী করেছি এবং কী অর্জন করেছি। ’

জামিউল আহমেদ বলেন, ‘সরকার এবার পর্যটন বর্ষ ঘোষণা করে বাজেটও দিয়েছে, কিন্তু তাও হয়নি। আমাদের দেশে পর্যটন উন্নয়নের কোনো লক্ষণ আমরা দেখতে পাচ্ছি না। এ ছাড়া পর্যটন বর্ষ সফল করার জন্য সংশ্লিষ্টদের নিয়ে সমন্বিত কোনো উদ্যোগ নেই। পর্যটন মানে আমরা একটি ব্যবসা করছি বা পণ্য বিক্রি করছি; কিন্তু এর কোনো হিসাব নেই, তাহলে কী হবে। দেশে কী পরিমাণ পর্যটক আসছে সে হিসাব কেউ দিতে পারছে না। দেশের পর্যটনকে আরো সমৃদ্ধ করতে অনেক বিষয় আমরা সরকারকে বোঝাতে চেষ্টা করেছি, তাদের বুঝতে সময় লেগেছে, কিন্তু তার পরও কিছু হয়নি। ’ তিনি বলেন, ‘আমাদের দেশে পর্যটন আইন নেই, আইনি কাঠামো নেই; যদি পর্যটন আইন করত তার ভেতর একটি কর্তৃপক্ষ থাকত। কিন্তু তা হয়নি। অথচ পর্যটনশিল্পকে সমৃদ্ধ করতে এটি অত্যন্ত প্রয়োজন। দেশে পর্যটন বোর্ড থাকলেও তাদের কাজ হচ্ছে প্রচারণা চালানো, কিন্তু তারা কী করছে। এ ছাড়া বোর্ডের সে রকম জনবলও নেই। সত্যিকার অর্থে দেশের পর্যটনকে এগিয়ে নিতে সরকারকে আগে উদ্যোগী হয়ে কাজ করতে হবে। সেই সঙ্গে আমরা যারা বেসরকারি অংশীদার আছি এবং সেই সঙ্গে মিডিয়ার সহযোগিতাও একান্ত প্রয়োজন। ’


মন্তব্য