kalerkantho

জ্যোতিষী ও কৃষক

ফারজানা নিপা

৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



জ্যোতিষী ও কৃষক

এক কৃষক তার জমিতে টিউবওয়েল লাগিয়ে পানির ব্যবস্থা করবে ঠিক করল। কিন্তু কোথায় লাগালে বেশি পানি উঠবে বুঝে উঠতে না পেরে এক জ্যোতিষীকে ডেকে আনল।

জ্যোতিষী জমিতে গিয়ে পুরো এলাকা ঘুরে দেখে এক কোণে হাত রেখে বলল, এখানেই টিউবওয়েল লাগালে বেশি পানি পাওয়া যাবে। এই বলে ১০০১ টাকা চার্জ করল।

লোকটি জ্যোতিষীকে বলল, আগে আমার বাড়িতে খাওয়াদাওয়া করুন, তারপর টাকা-পয়সা মিটিয়ে দেব।

জ্যোতিষী মনে মনে ভাবল, ১০০১ টাকা দেওয়ার পরও খেতে বলছে, নিশ্চয়ই বড়লোক পার্টি।

লোকটি দ্রুত পায়ে ঘরে গিয়ে স্ত্রীকে বলল, জ্যোতিষীর প্লেটে একটু লবণ দিয়ে ওপরে ভাত দিয়ে দেবে।

স্ত্রী বলল, লবণ তো আলাদা পাত্রে দিতে হয়।

লোকটি বলল, আজ তুমি ভাতের নিচেই দেবে!

জ্যোতিষী খেতে বসে খাবারের থালায় হাত দিয়েই বলল, ভাতে একটু লবণ লাগবে।

লোকটি রাগে গজগজ করতে করতে পায়ের স্যান্ডেল খুলে ঠাস করে মারল জ্যোতিষীর কানের নিচে। তারপর বলল, ঠকবাজ কোথাকার! জমির ২৫০ ফুট নিচে পানি দেখতে পেলে আর ভাতের দুই ইঞ্চি নিচে লবণ দেখতে পেলে না?

 



মন্তব্য