kalerkantho

ফেসবুক অফলাইন

অনলাইনে মজার মজার গল্প, বুদ্ধিদীপ্ত কৌতুক, সাম্প্রতিক বিষয়-আশয় নিয়ে নিয়মিত স্ট্যাটাস দিয়ে যাচ্ছেন পাঠক-লেখকরা। সেগুলোই সংগ্রহ করলেন ইমন মণ্ডল

২১ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



ফেসবুক অফলাইন

এই ভদ্রলোক এক ম্যাচে একাই ৭৮ গোল করেছেন। এমন প্রতিভাবান খেলোয়াড় সচরাচর চোখে পড়ে না।

স্যালুট।

 

আমার জীবন

প্রথম বন্ধু : তুই বলেছিলি জীবনেও আমাকে ভুলবি না, অথচ বিয়ের পরই ভুলে গেলি!

দ্বিতীয় বন্ধু : আমি আমার কথা রেখেছি বন্ধু, জীবনে তোকে ভুলিনি, তবে বিয়ের পর থেকে আমার জীবন আর জীবন নেই, ওটা অন্য কিছু হয়ে গেছে!

শুভ দেব নাথ

 

কেয়া নামের মেয়েরা ইন্ডিয়ায় গেলে ঝামেলায় পড়বে। সেখানে ওদের যদি কেউ জিজ্ঞাস করে, আপকা নাম ক্যায়া হ্যায়?

উত্তর আসবে, মেরা নাম কেয়া হ্যায়।

: জি, আপকা নাম ক্যায়া হ্যায়?

: জি, মেরা নাম কেয়া হ্যায়।

: আরে বেহেন, আপকা নাম ক্যায়া হ্যায়? (চলবে)

মো. মোরসালিন

 

বলদা

কথা প্রসঙ্গে বউকে আজ বলেই ফেললাম, তুমি হইলা বলদা টাইপ মানুষ।

বলার পরে বুঝতে পারি যে আবহাওয়া সুবিধার না। তাই বউকে ম্যানেজ করতে বলি—আমি বোঝাতে চাচ্ছি, তুমি ‘বলিষ্ঠ লজিক্যাল দায়িত্বশীল’ মানুষ আর কি।

ইন্দ্রজিৎ মণ্ডল

 

টুথপেস্ট

সকালে ঘুম থেকে উঠে নতুন একটা টুথপেস্ট দিয়ে দাঁত মাজলাম। ঘ্রাণটা ভালোই।

বাট একটুও ফেনা নেই। ভাবলাম, নতুন ব্র্যান্ডের টুথপেস্ট, তাই ফেনা ছাড়াই দাঁত পরিষ্কার করবে—এটাই বোধ হয় এর বৈশিষ্ট্য। কিন্তু না, পরে পেস্টের মোড়ক উল্টাইয়া দেখি, তাতে বড় বড় অক্ষরে লেখা—World’s No. 1 Fairness Cream।

সুমন আহমেদ

 

দুর্ঘটনা

একটি কারখানায় শ্রমিকদের সন্তানভাতা দেওয়ার নতুন ব্যবস্থা হয়েছে। শ্রমিকরা কারখানার হিসাব বিভাগে গিয়ে আবেদনের ফরম চাইলে হিসাবরক্ষক একটা করে দুর্ঘটনাভাতা গ্রহণের ফরম দিলেন। শ্রমিকরা এতে আশ্চর্য হলে হিসাবরক্ষক বললেন, সন্তানভাতা দেওয়ার নতুন ফরম এখনো প্রিন্ট হয়নি। এ ফরমেই আপাতত চালাতে হবে। শুধু ‘কী ধরনের দুর্ঘটনা’ যে ঘরে লেখা আছে, সেখানে লিখে দেবেন ‘ঘরোয়া দুর্ঘটনা’।

চঞ্চল ভৌমিক

 

ভূমিকম্পের সময় ভাত খাচ্ছিলাম। ভাত ফেলেই দৌড় দিলাম বাইরে। আমার সঙ্গে সঙ্গে নামল পাশের রুমের এক ছোটভাই। নিচে নেমে দেখি, আশপাশের বাসার পুরুষ-মহিলা আর সুন্দরী সুন্দরী মেয়েরা সবাই রাস্তায়। সবার চেহারায়ই আতঙ্কের ছাপ। শুধু আমার সঙ্গে দৌড়ে নামা ছোটভাইটার চেহারায় কোনো আতঙ্ক নেই। সে অসংখ্য সুন্দরীর দিকে তাকিয়ে খুব ছটফট করতে করতে আমাকে জিজ্ঞেস করলশাকির ভাই, ভূমিকম্প কি আবার হবে?

হতে পারে, কিন্তু কেন?

না, মানে ইয়ে... আরেকবার হইলে ওপরে যায়া ভালো কাপড়চোপড় পইরা আবার নিচে নামতাম আর কি...!

শাকীর এহসানুল্লাহ

 

ধুলা

ঢাকাবাসী প্রত্যেকে যদি প্রতিদিন আড়াই শ গ্রাম করে ধুলা না খেত, এত দিনে ঢাকা ধুলায় তলিয়ে যেত।

তানভীর আহমেদ হ্যামলেট

 

নারীবাদ

পুরো দুনিয়া যখন নারীবাদে বিশ্বাসী, আমরা বাঙালিরা তখনো নারী বাদে বিশ্বাসী!

জান্নাতুল ফেরদৌস

 

একজনের নাম ঘটক। ইংরেজিতে তিনি লিখেন Ghatok.

তাঁকে জিজ্ঞেস করলাম, বাংলা ঘাতক শব্দটিকে ইংরেজিতে আপনি কিভাবে লিখবেন? উত্তরে তিনি আমাকে ব্লক করলেন। এটাকে বলে মোক্ষম জবাব।

দাউদ হোসাইন রনি

 

খরচ

আধুনিক সভ্য মানুষ বেতনের অর্ধেক খরচ করে খাওয়াদাওয়া করতে। আর বাকি অর্ধেক খরচ করে ওজন কমাতে।

সন্দীপন বসু

 

বিখ্যাত ব্যক্তি

শুনেছি, বিখ্যাত ব্যক্তিরা বেশির ভাগই দরিদ্র ছিলেন। ভাবতেই ভালো লাগছে, আমিও দরিদ্র! বিখ্যাত হওয়া এখন শুধু সময় বাকি।

ইসরাফিল শাহীন

 

আপনি মানেন বা না মানেন, যে মেয়ের হাতে নেট আছে,

সে কোথাও না কোথাও সেট আছে।

ইসরাফিল শাহীন

 

অতিসামাজিক প্রাণী

এক শ্রেণির মানুষকে নিয়ে খুবই বিব্রতবোধ করি। এদের আমি ‘অতিসামাজিক’ প্রাণী বলি। কোনো অনুষ্ঠানে পরিচয়। ফেসবুক আইডি বিনিময়। দুই দিনের চ্যাটাচ্যাটির মাথায় জিজ্ঞেস করে বসে—রাতে কোন কালারের লুঙ্গি পরে ঘুমাতে গেছেন? অথবা কতবেলে বিটলবণ খান কি না?

দুনিয়ার যাবতীয় অতি ব্যক্তিগত বিষয়ে তাদের নাকগুলো মোমবাতির মতো গলতে থাকে। কেন ভাই? নেহাত ব্যক্তিগত বিষয় জানা ছাড়া কি আপন হওয়া যায় না? আপন হতে হলে লুঙ্গির গিট্টুতে কয় প্যাঁচ দিয়েছি, সেটা জানা জরুরি?

এতক্ষণ যাদের কথা বললাম তারা মৌলিক অতিসামাজিক প্রাণী। আরেক শ্রেণি আছে। এরা যৌগিক অতিসামাজিক প্রাণী। তারা হলো আমারই পরিচিত। কোনো অনুষ্ঠানে বা আড্ডায় তাদের নিয়ে যাই। নতুন মানুষের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিই। তারপর তারা সেই নতুন মানুষের সঙ্গে বিক্রিয়া করে নতুন একটি সম্পর্ক তৈরি করে এবং আমার সঙ্গে পুরনো মৌলিক সম্পর্কের অস্তিত্বই ভুলে অনলাইনে মজার মজার গল্প, বুদ্ধিদীপ্ত কৌতুক, সাম্প্রতিক বিষয়-আশয় নিয়ে নিয়মিত স্ট্যাটাস দিয়ে যাচ্ছেন পাঠক-লেখকরা। সেগুলোই সংগ্রহ করলেন ইমন মণ্ডলযায়। তাদের দুই দিনের পরিচয় দেখে টয়লেটে বসে প্রাতরাশের সময় চাপাস্বরে গেয়ে উঠি—তোমায় দেখলে মনে হয় / হাজার বছর তোমার সাথে ছিল পরিচয়।

এই যৌগিক শ্রেণিকে কোথাও কোনো আড্ডায় নিয়ে যেতে শঙ্কা বোধ করি। কারণ, জানি এই প্রাণী দুই দিন বাদেই নতুন সার্কেলের সবার আইডিতে গিয়ে লিখে আসবে—কী রে হালার ভাই, ভুইলা গেছস। অথবা কত দিন দেখা হয় না, মিস ইউ কলিজারা।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের ওপর নির্ভরশীলতার এই যুগে ‘অতিসামাজিক’ প্রাণীগুলোকে আমি সতর্কতার সঙ্গে দেখি। মাঝেমধ্যে ‘অসামাজিক’ শব্দটাকে প্রশংসার মতো লাগে। অসামাজিকরা অন্তত অতিসামাজিকদের মতো একজনের তথ্য আরেকজনের কাছে বিলিয়ে বেড়ায় না। এরা শরীরের নিরীহ তিলের মতো। চুপচাপ পড়ে থাকে নির্দিষ্ট স্থানে। অপর দিকে অতিসামাজিকরা হলো চুলকানির মতো। প্রথম প্রথম চুলকাতে খুব ভাল্লাগে। পরে ঘা হয়ে ছড়িয়ে যায় নানা স্থানে। আজই আপনার শিশুকে ‘অতিসামাজিক’ রোগের টিকা দিন। সমাজকে রোগমুক্ত রাখুন।

আল নাহিয়ান

 

ভুলে যাই

প্রতিবার ব্যাংকে গিয়ে আমি ভুলে যাই আমার অ্যাকাউন্ট নম্বর কত ছিল। প্রতিবার ব্যাংকে গিয়ে মনে পড়ে আমার চেক বই আনা হয়নি। প্রতিবার ব্যাংকে গিয়ে আমি ভুলে যাই টাকার অঙ্কগুলো কিভাবে যেন বসাতে হয়। প্রতিবার ব্যাংকে গিয়ে আমি ভুলে যাই আমার সিগনেচার যেন কেমন ছিল।

প্রতিবার ব্যাংকে গিয়ে এসব মনে করতে করতে আমি ক্লান্ত। এসব মনে করার টেনশন মাথায় নিয়ে ব্যাংক ঘুরে ঘুরে শেষে মনে পড়ে, ব্যাংকে তো আমার টাকাও নাই।

হে প্রভু, তুমি আমার স্মৃতিশক্তি দাও, না হয় টাকা দাও...।

ইশতিয়াক আহমেদ

 

পানির বোতল

রেস্টুরেন্টে খেতে বসলাম। যদিও কেউ শুয়ে শুয়ে খায় না। আমার পাশের টেবিলে এক অচেনা বয়স্ক চাচা বসা। তিনিও আমার মতো শুয়ে শুয়ে খাচ্ছেন না। তিনি ওয়েটারকে ডাক দিয়ে আমাকে দেখিয়ে বললেন, এই সাইজের একটা পানির বোতল নিয়ে আসো তো ভাতিজা। আমি আমার সাইজ দেখলাম। আমার সাইজের পানির বোতল দিয়ে এই চাচা কী করবেন? ওয়েটার আমার দিকে এগিয়ে আসছে। সে কি এখন আমার মাপ নেবে? না, মাপ নেয়নি। চাচা আসলে বোঝাতে চাচ্ছিলেন, আমি যে আধা লিটারের মামের বোতল খাচ্ছি, সেই সাইজের তাঁকেও একটা দিতে; কিন্তু তিনি বোতলের দিকে আঙুল তাক না করে করেছেন আমার দিকে।

তানভীর মাহমুদুল হাসান


মন্তব্য