kalerkantho


শপথ নিলেন তিন মন্ত্রী, এক প্রতিমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৩ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



শপথ নিলেন তিন মন্ত্রী, এক প্রতিমন্ত্রী

রাষ্ট্রপতি গতকাল বঙ্গভবনে মন্ত্রী হিসেবে মোস্তাফা জব্বার, নারায়ণ চন্দ্র চন্দ ও এ কে এম শাহজাহান কামালকে শপথবাক্য পাঠ করান। ছবি : বাসস

শপথ নিয়েছেন তিন মন্ত্রী ও এক প্রতিমন্ত্রী। রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বঙ্গভবনের দরবার হলে প্রথমে তিন মন্ত্রীকে, পরে এক প্রতিমন্ত্রীকে শপথ পড়িয়েছেন। প্রায় আড়াই বছর পর নতুন তিনজন মন্ত্রিসভায় অন্তর্ভুক্ত হলেন। এঁদের মধ্যে একজন মন্ত্রী হয়েছেন টেকনোক্র্যাট কোটায়। সর্বশেষ ২০১৫ সালের ১৪ জুলাই মন্ত্রিসভায় তিন নতুন মুখ যোগ হয়েছিল।   

আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন ঐকমত্যের সরকারে নতুন মন্ত্রী হিসেবে স্থান পেলেন দেশে তথ্য-প্রযুক্তি ব্যবসায়ীদের সংগঠন বেসিসের সভাপতি তথ্য-প্রযুক্তিবিদ মোস্তাফা জব্বার এবং লক্ষ্মীপুর-৩ আসনের সরকারদলীয় সংসদ সদস্য এ কে এম শাহজাহান কামাল। সেই সঙ্গে পদোন্নতি পেয়ে মন্ত্রী হয়েছেন নারায়ণ চন্দ্র চন্দ। খুলনা-৫ আসনের সরকারদলীয় এই সংসদ সদস্য মত্স্য ও প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন।

তাঁদের সঙ্গে প্রতিমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন রাজবাড়ী-১ আসনের আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য কাজী কেরামত আলী। তাঁরা রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের সঙ্গে করমর্দনের পর বঙ্গভবনের দরবার হলে সংরক্ষিত বইয়ে স্বাক্ষর করেন এবং অনুষ্ঠানে উপস্থিত সবার সঙ্গে কুশল বিনিময় করেন। এরপর চা-চক্রে অংশ নেন তাঁরা। তথ্য-প্রযুক্তিবিদ মোস্তাফা জব্বার টেকনোক্র্যাট কোটায় মন্ত্রী হয়েছেন। অন্য তিনজনের প্রত্যেকেই নির্বাচিত সংসদ সদস্য।   

শপথ নেওয়ার পরপরই উচ্ছ্বসিত প্রতিমন্ত্রী কাজী কেরামত আলী রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের পা ছুঁয়ে সালাম করেন। এরপর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পা ছুঁয়েও সালাম করেন তিনি।

বঙ্গভবনের দরবার হলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপস্থিতিতে শপথ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু, বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী এবং ঊর্ধ্বতন সামরিক-বেসামরিক কর্মকর্তারা।      

নিয়ম অনুযায়ী মন্ত্রিপরিষদসচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম শপথ অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন। নতুন দুই মন্ত্রী ও এক প্রতিমন্ত্রী অন্তর্ভুক্তির মধ্য দিয়ে তৃতীয় দফায় আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন ঐকমত্যের সরকারের আকার বাড়ল। নতুন তিনজন শপথ নেওয়ার পর মন্ত্রিসভার সদস্য সংখ্যা দাঁড়ালো ৫৩।

শপথ নিতে গতকাল বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে বঙ্গভবনে প্রবেশ করেন এ কে এম শাহজাহান কামাল। ৪টা ৪০ মিনিটে বঙ্গভবনে উপস্থিত হন কাজী কেরামত আলী। নারায়ণ চন্দ্র চন্দ উপস্থিত হন ৪টা ৫০ মিনিটে। আর ৪টা ৫৫ মিনিটে বঙ্গভবনে পৌঁছান মোস্তাফা জব্বার। নতুন মন্ত্রীদের মধ্যে দপ্তর বণ্টন গতকাল হয়নি। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, পুরনো মন্ত্রীদেরও কারো কারো দপ্তর বদল হতে পারে। আওয়ামী লীগ টানা দ্বিতীয় মেয়াদে সরকার গঠন করার সুযোগ পেলে মন্ত্রিসভার সদস্যরা শপথ নিয়েছিলেন ২০১৪ সালের ১২ জানুয়ারি। এরপর ওই বছর ২৬ ফেব্রুয়ারি এবং পরের বছর ১৪ জুলাই মন্ত্রিসভার কলেবর বৃদ্ধি পায়। গত প্রায় আড়াই বছরে একাধিকবার মন্ত্রিসভার আকার বাড়ার গুঞ্জন ওঠে।


মন্তব্য