kalerkantho


ষোড়শ সংশোধনী মামলা

রিভিউ আবেদন নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই : আইনমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৩ অক্টোবর, ২০১৭ ০০:০০



রিভিউ আবেদন নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই : আইনমন্ত্রী

ফাইল ছবি

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক জানিয়েছেন, সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনীর বৈধতা নিয়ে মামলায় আপিল বিভাগের রায় রিভিউ (পুনর্বিবেচনা) চেয়ে নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই আবেদন করা হবে। গতকাল বৃহস্পতিবার রাজধানীর একটি হোটেলে আইন মন্ত্রণালয়ের এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ  কথা জানান।

উচ্চ আদালতের বিচারক অপসারণের ক্ষমতা জাতীয় সংসদের হাতে পুনর্বহালসংক্রান্ত ওই সংশোধনী হাইকোর্ট অবৈধ ঘোষণা করেছিলেন। পরে সরকার আপিল করলে আপিল বিভাগ তা নাকচ করে হাইকোর্টের রায় বহাল রাখেন।

গতকাল আইন মন্ত্রণালয়ের লেজিসলেটিভ বিভাগ আয়োজিত এক অনুষ্ঠান থেকে বের হওয়ার সময় আইনমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, ‘আপিল বিভাগের রায় হাতে এসেছে। ৭৯৯ পৃষ্ঠার রায়। পর্যালোচনা করতে সময় লাগবে। দুই দিন আগে মামলার সার্টিফায়েড কপি (জাবেদা নকল) পাওয়া গেছে। আর ২৮ দিন সময় আছে। চেষ্টা করা হবে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে রিভিউ আবেদন করতে। না পারলে আদালতের কাছে সময় চাওয়া হবে।

লেজিসলেটিভ ইমপ্যাক্ট অ্যাসেসমেন্ট (এলইএ) ও ইন্টারন্যাশনাল ফিন্যান্স করপোরেশনের মধ্যে চুক্তি স্বাক্ষর উপলক্ষে হোটেল সোনারগাঁওয়ে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

এর আগে বুধবার অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম জানিয়েছিলেন, দুই-তিন দিন আগে রায়ের জাবেদা নকল সরকারের হাতে এসেছে। ওই রায় পর্যালোচনা চলছে। রিভিউ আবেদন করার প্রস্তুতি চলছে।

গত ৩ জুলাই আপিল বিভাগের সাত সদস্যের বেঞ্চ সর্বসম্মতিক্রমে সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী নিয়ে মামলায় সরকারের করা আপিল খারিজ করে দেন। পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ করা হয় গত ১ আগস্ট। এরপর ১৬ আগস্ট ষোড়শ সংশোধনী বাতিল চেয়ে করা রিট আবেদনকারীপক্ষ রায়ের জাবেদা নকল নেয়। দুই-তিন দিন আগে সরকার রায়ের জাবেদা নকল নিয়েছে।

সুপ্রিম কোর্টের ওয়েবসাইটে রায় প্রকাশের তাতে থাকা প্রধান বিচারপতির বিভিন্ন মন্তব্য ব্যাপক সমালোচনার জন্ম দেয়। মন্ত্রী, সরকারদলীয় এমপি এবং সরকার সমর্থক আইনজীবীরা ব্যাপক প্রতিক্রিয়া দেখান। প্রধান বিচারপতির অপসারণ দাবিতে আন্দোলনেরও ডাক দেন সরকার সমর্থক আইনজীবীরা।


মন্তব্য