kalerkantho


প্রধান বিচারপতি বললেন

মুক্তিযোদ্ধাদের ভিভিআইপি মর্যাদা দেওয়া উচিত

নিজস্ব প্রতিবেদক, মৌলভীবাজার   

১১ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



মুক্তিযোদ্ধাদের ভিভিআইপি মর্যাদা দেওয়া উচিত

মুক্তিযোদ্ধাদের ভিভিআইপি মর্যাদা দেওয়া উচিত বলে মন্তব্য করেছেন প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা। একই সঙ্গে দেশে প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধার সঠিক তথ্য থাকা প্রয়োজন বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার ভানুগাছ বাজারে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন শেষে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রধান বিচারপতি এসব কথা বলেন।

সুরেন্দ্র কুমার সিনহা বলেন, ‘ভাবতে অবাক লাগে, স্বাধীনতার ৪৫ বছর পরও প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা যাচাই-বাছাই করা হচ্ছে! স্বাধীনতার এত বছর পর প্রশ্ন জাগছে, কে প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা, কে প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা নয়। এত রক্তের বিনিময়ে এবং এত কম সময়ে বাংলাদেশের স্বাধীনতা অর্জন পৃথিবীর ইতিহাসে বিরল। দেশে প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধার সঠিক তথ্য প্রয়োজন। অনেকে মুক্তিযুদ্ধে অংশ না নিয়ে এবং হত্যাযজ্ঞে অংশ নিয়ে ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে তালিকাভুক্ত করে রাষ্ট্রীয় সুবিধা নিচ্ছে। ’ তিনি বলেন, ‘স্বাধীনতার পর দেশে ইতিহাস বিকৃতি হয়েছে। স্বাধীনতাবিরোধীরা কম সময়ের মধ্যেই রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় এসেছিল। এ জন্য কি মুক্তিযোদ্ধারা যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছিলেন? মুক্তিযোদ্ধাদের ভিভিআইপি মর্যাদা দেওয়া উচিত। ’

প্রধান বিচারপতি বলেন, ‘কমলগঞ্জে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করতে পেরে আমি নিজেকে ধন্য মনে করছি।

এক সাগর রক্তের বিনিময়ে স্বাধীন হওয়া দেশে আজ আমি প্রধান বিচারপতি পদে আসীন হয়েছি। মুক্তিযুদ্ধকালীন অপরাধীদের বিচার হবেই। অপরাধীকে তাদের কৃত অপরাধের জন্য শাস্তি পেতেই হবে। ’

কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাহমুদুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অতিথি ছিলেন জেলা ও দায়রা জজ শফিকুল ইসলাম, জেলা প্রশাসক তোফায়েল ইসলাম, বিজিবির সেক্টর কমান্ডার কর্নেল আশরাফুল ইসলাম, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শাহজালাল, চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট এ কিউ এম নাসির উদ্দিন, কমলগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যাপক মো. রফিকুর রহমান, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মো. জামাল উদ্দিন, জজ কোর্টের পিপি অ্যাডভোকেট এ এস এম আজাদুর রহমান, এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী কামরুল ইসলাম, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডর আব্দুল মুনিম তরফদার, মুক্তিযোদ্ধা আনন্দ মোহন সিনহা প্রমুখ।

এর আগে প্রধান বিচারপতির সম্মানে সিলেট অঞ্চলের ঐতিহ্যবাহী ধামাইল নৃত্য ও মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক গণসংগীত পরিবেশন করা হয়। অনুষ্ঠানে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের পক্ষ থেকে প্রধান বিচারপতিকে ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।

 


মন্তব্য