kalerkantho


সৌদিতে হচ্ছে নতুন আইন

আতঙ্কে ৫০ লাখ অভিবাসী

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৯ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



আতঙ্কে ৫০ লাখ অভিবাসী

নতুন কিছু অভিবাসী আইন প্রণয়নের লক্ষ্যে আলোচনা করছে সৌদি আরবের সরকার। এর ফলে সে দেশে থাকা প্রায় ৫০ লাখ অভিবাসীর এক বিরাট অংশকে বহিষ্কার করা হতে পারে। সৌদি দৈনিক আল-হায়াতের এক খবরে বলা হয়েছে, সৌদি শুরা কাউন্সিল অবৈধ অভিবাসন নির্মূল করার লক্ষ্য নিয়ে একটি বিশেষ কমিশন গঠনের প্রশ্নে আলোচনা করছে।

অভিবাসী সমস্যা সম্পর্কে এই কাউন্সিলের জন্য একটি প্রতিবেদন তৈরি করেছেন শুরা কাউন্সিলের সদস্য ড. সাদকা ফাদেল। তিনি বিবিসিকে বলেন, হজ, ওমরাহ বা ভ্রমণ ভিসা নিয়ে এশিয়া ও আফ্রিকার বিভিন্ন দেশ থেকে বিপুলসংখ্যক মানুষ সৌদি আরবে ঢুকেছেন। কিন্তু তাঁদের বেশির ভাগই আর কখনোই নিজ দেশে ফিরে যাননি। নিজেদের পাসপোর্ট ফেলে দিয়ে তাঁরা রাজধানী রিয়াদ, জেদ্দা, মক্কা, মদিনা ও তাইফের মতো শহরে লুকিয়ে কাজকর্ম করছেন। স্থানীয়ভাবে কেউ কেউ বিয়েও করেছেন। তাঁদের মধ্যে একটা বড় অংশ নানা ধরনের অপরাধের সঙ্গেও জড়িয়ে পড়ছে।

সাদকা ফাদেল জানান, এই সমস্যাকে সৌদি সরকার জাতীয় নিরাপত্তার প্রতি বড় হুমকি হিসেবে বিবেচনা করছে। আর সে জন্যই অবৈধ অভিবাসীদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপের চিন্তাভাবনা চলছে।

অবৈধ অভিবাসীদের বৈধভাবে সৌদিতে থাকার ব্যবস্থা করে তাঁদের অপরাধের পথ থেকে সরে আসার সুযোগ কেন দিচ্ছে না সৌদি সরকার—এ প্রশ্নের জবাবে ড. ফাদেল জানান, এসব অবৈধ অভিবাসী যাতে বৈধ হতে পারে সৌদি সরকার প্রাথমিকভাবে সেই চেষ্টাই করবে। পাশাপাশি এসব মানুষের মানবাধিকারের প্রশ্নটিও জড়িত রয়েছে।

ফাদেল আরো বলেন, যাঁদের কাগজপত্র ঠিক করা যাবে, তাঁরা বৈধভাবে থাকার অনুমতি পাবেন। কোনো কোনো ক্ষেত্রে সৌদি নাগরিকত্ব দেওয়ার প্রশ্নটিও বিবেচনার মধ্যে রয়েছে। কিন্তু বহু অবৈধ অভিবাসী রয়েছেন যাঁরা অপরাধের সঙ্গে যুক্ত, তাঁদের সৌদি আরব ছাড়তে হবে। সূত্র : বিবিসি।


মন্তব্য