kalerkantho


হাউস বিল্ডিং এমডির জন্য সাড়ে ৪ কোটি টাকার ফ্ল্যাট!

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



হাউস বিল্ডিং এমডির জন্য সাড়ে ৪ কোটি টাকার ফ্ল্যাট!

টাকার অভাবে চাহিদা অনুযায়ী গ্রাহকদের গৃহনির্মাণ ঋণ দিতে ব্যর্থ সরকারি প্রতিষ্ঠান হাউস বিল্ডিং ফাইন্যান্স করপোরেশনের (বিএইচবিএফসি) ব্যবস্থাপনা পরিচালকের (এমডি) জন্য সাড়ে চার কোটি টাকা দামের ফ্ল্যাট কেনার প্রস্তাব গেছে অর্থ মন্ত্রণালয়ে। এ প্রস্তাব দেখে মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের চোখ ছানাবড়া।

২০০১ সালে বিএইচবিএফসি, আনসার ভিডিপি উন্নয়ন ব্যাংক, কর্মসংস্থান ব্যাংক ও ইনভেস্টমেন্ট করপোরেশন অব বাংলাদেশের (আইসিবি) এমডিদের থাকার জন্য আড়াই হাজার থেকে তিন হাজার বর্গফুট আয়তনের ফ্ল্যাট কিনতে সর্বোচ্চ ৬০ লাখ টাকা খরচ করার অনুমোদন দিয়ে পরিপত্র জারি করেছিল অর্থ মন্ত্রণালয়। শর্ত ছিল, এমডিরা এসব ফ্ল্যাটে থাকলে বাড়িভাড়া ভাতা পাবেন না। এ ছাড়া তাঁদের মূল বেতন থেকে ৭.৫ শতাংশ অর্থ সরকার কেটে নেবে। সঙ্গে পানি, বিদ্যুৎ, গ্যাস, পৌর করসহ সব ধরনের বিল এমডিদের পরিশোধ করতে হবে।

অর্থ মন্ত্রণালয়ের ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের কর্মকর্তারা জানান, পরিপত্র জারির পর বিএইচবিএফসি তাদের এমডির জন্য কোনো ফ্ল্যাট কেনেনি। এখন তারা সেই ফ্ল্যাট কিনতে চাচ্ছে। রাজধানীর পুরানা পল্টন এলাকায় বিএইচবিএফসির কার্যালয় হলেও এমডির জন্য ধানমণ্ডি, গুলশান বা বনানীর মতো অভিজাত এলাকায় ফ্ল্যাট খোঁজা হচ্ছে। সে জন্য সাড়ে চার কোটি টাকা খরচ করার অনুমোদন চেয়েছে মন্ত্রণালয়ের কাছে।

গত ২২ ফেব্রুয়ারি বিএইচবিএফসির এমডি দেবাশীষ চক্রবর্তী স্বাক্ষরিত এ ধরনের একটি প্রস্তাব অর্থ মন্ত্রণালয়ের ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব মো. ইউনুসুর রহমানের কাছে অনুমোদনের জন্য পাঠানো হয়েছে।

ওই প্রস্তাবে বিএইচবিএফসির এমডি দেবাশীষ চক্রবর্তী বলেছেন, রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংক ও অর্থলগ্নি প্রতিষ্ঠানগুলোর এমডিদের জন্য মূল্যসীমা ৬০ লাখ টাকার মধ্যে রেখে আড়াই হাজার থেকে তিন হাজার বর্গফুট আয়তনের অ্যাপার্টমেন্ট কেনার বিষয়ে ২০০১ সালের ৮ জুলাই অর্থ মন্ত্রণালয় সম্মতি দিয়েছিল। অর্থলগ্নি প্রতিষ্ঠান হিসেবে বিএইচবিএফসির এমডির জন্য এর আগে কোনো বাসভবন কেনা হয়নি। ২০০১ সালের পরিপত্রটি ১৬ বছরের পুরনো।

সাড়ে চার কোটি টাকা ব্যয়ে ফ্ল্যাট কেনার অনুমোদন চেয়ে তিনি লিখেছেন, ‘বর্তমানে ধানমণ্ডি, গুলশান কিংবা বনানীস্থ অভিজাত আবাসিক এলাকায় অ্যাপার্টমেন্টের মূল্য প্রতি বর্গফুট (কম/বেশি) ১৫,০০০ টাকা। সে মোতাবেক ৩,০০০ বর্গফুট আয়তনের ফ্ল্যাট কিনতে আনুমানিক সাড়ে চার কোটি টাকার প্রয়োজন হতে পারে। ’

ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের একজন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার অনুরোধ জানিয়ে ওই প্রস্তাব সম্পর্কে বলেন, বিএইচবিএফসি মূলধনের অভাবে দীর্ঘদিন গ্রাহকদের চাহিদা অনুযায়ী গৃহঋণ দিতে পারেনি। সরকার থেকে প্রতিষ্ঠানটিকে টাকার জোগান দিতে হয়েছে। এ অবস্থায় প্রতিষ্ঠানটির এমডির জন্য সাড়ে চার কোটি টাকা ব্যয়ে ফ্ল্যাট কেনার চেষ্টা বিলাসিতা ছাড়া আর কিছু নয়।


মন্তব্য