kalerkantho


অস্কারে নাটকীয় ভুল অনন্য প্রতিবাদ

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



অস্কারে নাটকীয় ভুল অনন্য প্রতিবাদ

অস্কার পুরস্কার হাতে (বাঁ থেকে) সেরা সহ-অভিনেতা মাহেরশালা আলী, সেরা অভিনেত্রী এমা স্টোন, সেরা সহ-অভিনেত্রী ভালোয়া ডেভিস ও সেরা অভিনেতা ক্যাসি অ্যাফ্লেক। ছবি : এএফপি

চরম নাটকীয়তা, নজিরবিহীন ভুল ও প্রতিবাদের এক অনন্য দৃষ্টান্ত হয়ে থাকল এবারের ৮৯তম অস্কারের আসর। সেরা সিনেমা হয়েছে ‘মুনলাইট’—কিন্তু ঘোষক ভুল করে সেরা সিনেমার নাম ঘোষণা করলেন ‘লা লা ল্যান্ড’।

দুই-তিন মিনিট পরই এলো সংশোধনী। এ রকম ভুল অস্কারের ইতিহাসে এবারই প্রথম।

অন্যদিকে ডোনাল্ড ট্রাম্প ইরানসহ যে সাতটি দেশের নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন, এর প্রতিবাদে ইরানের পরিচালক আসগর ফরহাদি অনুষ্ঠান বর্জন করলেও তাঁর সিনেমা ‘দ্য সেলসম্যান’ জিতে নিল বিদেশি সিনেমা বিভাগের অস্কার। এ ছাড়া কৃষ্ণাঙ্গ অভিনেতা-অভিনেত্রীদেরও এবার জয়জয়কার।

স্থানীয় সময় রবিবার রাতে (বাংলাদেশ সময় গতকাল ভোর) লস অ্যাঞ্জেলেসের ডলবি থিয়েটার হলে জাঁকজমকপূর্ণ অনুষ্ঠানে বিশ্ব চলচ্চিত্রের সবচেয়ে সম্মানজনক এই পুরস্কার প্রদান করা হয়। ‘ম্যানচেস্টার বাই দ্য সি’ সিনেমায় অভিনয়ের জন্য সেরা অভিনেতার পুরস্কার জিতেছেন ক্যাসি অ্যাফ্লেক। আর ‘লা লা ল্যান্ড’ ছবিতে অনবদ্য অভিনয়ের জন্য সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার ছিনিয়ে নিয়েছেন এমা স্টোন, ক্যারিয়ারের প্রথম অস্কার জিতলেন তিনি। একই ছবির পরিচালক ডেমিয়েন শ্যাজেল পেলেন সেরা পরিচালকের পুরস্কার; যাঁর বয়স মাত্র ৩২ বছর, সবচেয়ে কম বয়সে সেরা পরিচালকের পুরস্কার জয়ের রেকর্ড গড়লেন তিনি। ছয়টি বিভাগে অস্কার জিতেছে রোমান্টিক মিউজিক্যাল ঘরানার এই সিনেমাটি।

সেরা ছবির নাম ঘোষণা নিয়ে যে নজিরবিহীন ভুল হয়েছে, এ নিয়ে চলছে নানা আলোচনা-সমালোচনা। কী করে ভুলটি হলো তাও তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। অস্কার ব্যালটের কাজটি যারা করে থাকে, সেই প্রাইস-ওয়াটারহাইস-কুপার্স নামের অ্যাকাউনট্যান্সি ফার্ম ইতিমধ্যে এ ভুলের জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছে।

যেভাবে নাটকীয় ভুল : অনুষ্ঠান মঞ্চে একে একে সব বিভাগের পুরস্কার দেওয়া শেষ, শুধু বাকি সেরা সিনেমার নাম ঘোষণা। এ সময়ই ঘটল ভুলের ঘটনা—‘মুনলাইট’-এর বদলে ‘লা লা ল্যান্ড’-এর নাম ঘোষণা করে দিলেন ঘোষক। পুরস্কারের ঘোষণা শুনে উদ্দীপ্ত ‘লা লা ল্যান্ড’-এর পরিচালক ডেমিয়েন শ্যাজেলসহ এর কলাকুশলীরা মিনিটখানেকের মধ্যে পৌঁছে গেলেন মঞ্চে। অস্কার পুরস্কার হাতে মাইক্রোফোনের সামনে প্রতিক্রিয়াও জানাতে শুরু করলেন সিনেমাটির অন্যতম প্রযোজক জর্ডন হরোউইত্জ। এ সময়ই আয়োজকদের একজনকে এসে হরোউইেজর হাত থেকে পুরস্কারের কার্ডটি চেয়ে নিতে দেখা গেল।

বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের খবরে জানা গেছে, শেষ পুরস্কারের নাম ঘোষণা করছিলেন ওয়ারেন বেটি আর ফে ডনাওয়ে। এর ঠিক আগেই ‘লা লা ল্যান্ড’-এ অভিনয়ের জন্য এমা স্টোন পেয়েছেন সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার। ফে ডনাওয়ে ‘ভুল করে’ সেই খামটিই তুলে দিলেন বেটির হাতে। খাম খুলে এমা স্টোনের নাম দেখে বিভ্রান্ত বেটি তা ডনাওয়ের হাতে দিলেন। সেরা চলচ্চিত্রের নামের ঘোষণাটি এলো তাঁর মুখ থেকেই।

পুরস্কারের ঘোষণায় ‘লা লা ল্যান্ড’ শুনে ভোট গণনার দায়িত্বে থাকা অ্যাকাউনট্যান্সি ফার্ম প্রাইস-ওয়াটারহাউস-কুপার্সের ব্রায়ান কালিনান ও মার্থা রুই দৌড়ে মঞ্চে যান। কেবল তাঁরাই জানতেন, কোন নমিনি কত ভোট পেয়েছে। ফলে ভুলের বিষয়টি ধরতে পারেন কেবল তাঁরাই।

জর্ডন হরোউইেজর হাত থেকে খাম নিয়ে মিলিয়ে দেখার পর বদলে গেল সব। জানা গেল, এবার সেরা সিনেমার অস্কার পেয়েছে ব্যারি জেনকিন্সের ‘মুনলাইট’। একটু দূরে দাঁড়িয়ে থাকা জেনকিন্সকে ডেকে বললেন, রসিকতা নয়, অস্কার তিনিই জিতেছেন। এরপর সবার সামনে সঠিক নামের কার্ডটিও তুলে দেখালেন হরোউইত্জ। এক কৃষ্ণাঙ্গ সমকামী তরুণের বেড়ে ওঠার গল্প নিয়ে বানানো হয়েছে ‘মুনলাইট’ সিনেমাটি।  

ট্রাম্পের নিষেধাজ্ঞা টপকে ইরানের অস্কার জয় : কিছুদিন আগে সিরিয়া, ইরানসহ সাতটি মুসলিমপ্রধান দেশের নাগরিকদের মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এর প্রতিবাদে অস্কারের অনুষ্ঠান বয়কট করেন ইরানের পরিচালক আসগর ফরহাদি। তবে তাঁর ‘দ্য সেলসম্যান’ বিদেশি চলচ্চিত্র বিভাগে জিতে নেয় অস্কার।

আসগর ফরহাদি অনুপস্থিত থাকলেও তাঁর লিখিত বক্তব্য পড়ে শোনানো হয় অনুষ্ঠানে। তাঁর পক্ষে বক্তব্যটি পড়ে শোনান মহাশূন্যে প্রথম ইরানি আনুশেহ আনসারি।

লিখিত বক্তব্যে আসগর ফরহাদি বলেন, ‘দ্বিতীয়বারের মতো এই পুরস্কার পেয়ে আমি বেশ গর্ববোধ করছি। অনুষ্ঠানে আমার এই অনুপস্থিতি শুধু আমার দেশের মানুষসহ আরো ছয়টি দেশের মানুষকে সম্মান জানানোর জন্য, যাদের অসম্মানজনকভাবে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। ’ তিনি আরো বলেন, ‘গোটা বিশ্বে এই বিভাজন আমাদের এবং আমাদের শত্রুদের মধ্যে যুদ্ধের জন্য একটি অন্যায্য অজুহাত তৈরির আশঙ্কা সৃষ্টি করে। ’

এর আগে ২০১৪ সালে নির্মিত ‘দ্য সেপারেশন’-এর জন্য প্রথমবার অস্কার জিতেছিলেন আসগর ফরহাদি।

আরো যাঁদের অস্কার জয় : ‘মুনলাইট’ ছবির জন্য এবারের সেরা সহ-অভিনেতার অস্কার জিতেছেন মাহেরশালা আলী। সেরা সহ-অভিনেত্রী বিভাগে ‘ফেন্সেস’ ছবিতে অভিনয়ের জন্য অস্কার জিতেছেন ভালোয়া ডেভিস। বর্ণবৈষম্যের বাধা টপকে কৃষ্ণাঙ্গ এই দুই অভিনেতা-অভিনেত্রী পার্শ্বচরিত্রে অস্কার জয় করলেন।

সেরা এনিমেশন ছবি বিভাগে সেরা পূর্ণদৈর্ঘ্য এনিমেটেড ছবির পুরস্কার ছিনিয়ে নিয়েছে ‘জুটোপিয়া’ এবং সেরা স্বল্পদৈর্ঘ্য এনিমেটেড ছবির পুরস্কার পেয়েছে ‘পাইপার’। শব্দমিশ্রণ বিভাগে বিজয়ী হয়েছেন কেভিন ও’কনেলসহ তিন শব্দ প্রকৌশলী ‘হ্যাকসো রিজ’ ছবির জন্য। কেভিনের জন্য এটি বিশাল অর্জন। কেননা এর আগে ২০ বার মনোনীত হয়েও পুরস্কার জোটেনি তাঁর ভাগ্যে। এ ছাড়া বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে অস্কার জেতেন ‘অ্যারাইভাল’, ‘সুইসাইড স্কোয়াড’, ‘ফ্যান্টাস্টিক বিস্টস অ্যান্ড হোয়ার টু ফাইন্ড দেম’, ‘লা লা ল্যান্ড’, ‘দ্য জঙ্গল বুক’, ‘হ্যাকসো রিজ’ সিনেমাগুলোর কারিগররা।

সেরা পোশাক পরিকল্পনার জন্য এ বছর অস্কার জিতেছেন ‘ফ্যান্টাস্টিক বিস্টস অ্যান্ড হোয়ার টু ফাইন্ড দেম’ সিনেমার ডিজাইনাররা। সেরা প্রডাকশন ডিজাইন বিভাগের অস্কার গেছে ‘লা লা ল্যান্ড’ ছবির ঘরে। রূপ ও কেশসজ্জার জন্য ‘সুইসাইড স্কোয়াড’ সিনেমার রূপ ও কেশসজ্জাকারেরা জিতেছেন অস্কার। ‘লা লা ল্যান্ড’ ছবির জন্য সেরা চিত্রগ্রহণের অস্কার জিতেছেন লিনাস স্যান্ডগ্রেন। সেরা সম্পাদনার অস্কার গেছে ‘হ্যাকসো রিজ’ সিনেমার সম্পাদকের ঘরে। আর শব্দ সম্পাদনার অস্কারটি জিতেছেন ‘অ্যারাইভাল’ ছবির শব্দ প্রকৌশলীরা। ভিজুয়াল এফেক্টস বিভাগে এ বছর অস্কার জিতেছে ‘দ্য জঙ্গল বুক’ সিনেমাটি।


মন্তব্য