kalerkantho


পাকিস্তানে মাজারে আত্মঘাতী হামলা নিহত ১০০

আইএসের দায় স্বীকার

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



পাকিস্তানে মাজারে আত্মঘাতী হামলা নিহত ১০০

পাকিস্তানের একটি মাজারে আত্মঘাতী বোমা হামলায় অন্তত ১০০ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে প্রায় আড়াই শ মানুষ।

দেশটির দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় সিন্ধু প্রদেশের শেহওয়ান এলাকার লাল শাহবাজ মাজারে গতকাল বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যায় এই হামলা করা হয়। হতাহতের সংখ্যা বাড়ার আশঙ্কা আছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় কর্মকর্তারা। মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস) হামলার দায় স্বীকার করেছে।

শেহওয়ান এলাকার পুলিশ জানায়, হামলাকারী সন্ত্রাসী মাজারের গোল্ডেন গেট দিয়ে ভেতরে প্রবেশ করে। এরপর সে প্রথমে একটি গ্রেনেড ছোড়ে। তবে সেটি বিস্ফোরিত হয়নি। এরপর হামলাকারী শক্তিশালী বোমার বিস্ফোরণ ঘটিয়ে আত্মঘাতী হামলা চালায়। ঘটনার সময় ওই মাজারে সুফি মতাদর্শের শত শত ভক্ত জমায়েত হয়েছিল।

পাকিস্তানি পত্রিকা ডনের অনলাইন সংস্করণে বলা হয়, হাসপাতালসহ ওই এলাকায় সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

আহত ব্যক্তিদের উন্নত চিকিৎসার জন্য পাঠানো হচ্ছে আশপাশের বিভিন্ন হাসপাতালে।

পাকিস্তানের আরেক পত্রিকা ডেইলি টাইমসের অনলাইন সংস্করণে বলা হয়, মাজারের ভেতরে ওঠানের মতো যে জায়গাটি আছে, সেখানেই হামলা চালানো হয়। ঘটনার সময় সেখানে কয়েক শ মানুষ ‘ধামাল’-এ (এক ধরনের নাচ) অংশ নিচ্ছিল। স্থানীয়দের বরাত দিয়ে পত্রিকাটি আরো জানায়, আহতদের মধ্যে অনেকের অবস্থাই আশঙ্কাজনক। ফলে নিহতের সংখ্যা বাড়তে পারে।

শেহওয়ান পুলিশ স্টেশনের দায়িত্বরত কর্মকর্তা (অফিসার ইনচার্জ) রাসুল বকসের বরাত দিয়ে রয়টার্স জানায়, হামলায় নারী, পুরুষ, শিশুসহ অন্তত ১০০ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছে প্রায় আড়াই শ মানুষ।

সিনৎলর মুখ্যমন্ত্রী সৈয়দ মুরাদ আলী জানান, ওই প্রদেশের সব উদ্ধারকারী দলকে ঘটনাস্থলে যাওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া জামশরো, নওয়াবশাহ ও হায়দরাবাদ থেকে অনেক চিকিৎসক পাঠানো হয়েছে শেহওয়ান শহরে। দেশটির সেনাবাহিনী এরই মধ্যে আহতদের বিভিন্ন হাসপাতালে পাঠাতে এবং জরুরি সহায়তা দিতে ঘটনাস্থলে সেনা ও হেলিকপ্টার পাঠিয়েছে।

এদিকে আইএস হামলার দায় স্বীকার করে নিয়েছে। ঘটনার পরপরই এই জঙ্গিগোষ্ঠী নিজেদের মুখপত্র ‘আমাক’-এর ওয়েবসাইটে হামলার দায় স্বীকার করে একটি বিবৃতি দেয়।

প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ হামলার নিন্দা জানিয়েছেন। এক বিবৃতিতে তিনি ঘোষণা দিয়েছেন, ‘যারা এই হামলা চালিয়েছে, তাদের বিরুদ্ধে অবশ্যই উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ’ 

উল্লেখ্য, সিন্ধুসহ পাকিস্তানের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে প্রায়ই তালেবান ও আইএসের মতো জঙ্গিগোষ্ঠীগুলো হামলা চালায়। এ ছাড়া দেশটিতে ভিন্নমতাবলম্বীদের ওপর হামলার ঘটনাও নতুন নয়। গত নভেম্বরেও বেলুচিস্তান প্রদেশের একটি মাজারে আত্মঘাতী বোমা হামলায় ৫২ জনের মৃত্যু হয়। সূত্র : রয়টার্স, ডন।


মন্তব্য