kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ইস্ট ওয়েস্টের শিক্ষিকার লাশ উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২০ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



ইস্ট ওয়েস্টের শিক্ষিকার লাশ উদ্ধার

রাজধানীর বাড্ডা থেকে এক নারীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তাঁর নাম রাবেয়া কুলসুম (২৮)।

তিনি রাজধানীর ইস্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটির প্রভাষক ছিলেন। গত মঙ্গলবার রাত ৪টার দিকে তাঁর লাশ উদ্ধার করা হয়। পরে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

স্বজন, হাসপাতাল ও পুলিশ সূত্র জানায়, রাবেয়ার বাড়ি চট্টগ্রাম হালিশহর এলাকায়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ফিন্যান্সে পড়াশোনা শেষে তিনি শিক্ষকতা শুরু করেন। তিন বোন এক ভাইয়ের মধ্যে রাবেয়া ছিলেন তৃতীয়। বাড্ডার আফতাবনগর এলাকার ৪৮ নম্বর রোডের ৩ নম্বর বাড়িতে (ভুইয়া বাড়ি নামে পরিচিত) ইস্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটির আরেক শিক্ষিকার সঙ্গে থাকতেন তিনি। সম্প্রতি ওই শিক্ষিকা তাঁর নবজাতক সন্তান নিয়ে মালয়েশিয়াপ্রবাসী স্বামীর কাছে যান। এর পর থেকে রাবেয়া একাই ওই ফ্ল্যাটে ছিলেন।

রাবেয়ার ভাই রিয়াজ আহম্মেদের বরাত দিয়ে বাড্ডা থানার এসআই আল মামুন গতকাল বুধবার কালের কণ্ঠকে জানান, মঙ্গলবার রাতের কোনো এক সময় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন রাবেয়া। বিষয়টি রাবেয়ার এক বান্ধবীর মাধ্যমে তিনি (রিয়াজ) জানতে পারেন। রাতেই রিয়াজ বাসায় গিয়ে রাবেয়াকে উদ্ধার করে ইউনাইটেড হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। মৃতদেহ আজ (বুধবার) দুপুর পৌনে ১২টার দিকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতলের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

বাড্ডা থানার ওসি এম এ জলিল বলেন, ওই শিক্ষিকার গলায় ও শরীরের বিভিন্ন অংশে ব্লেডে কাটার দাগ রয়েছে। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি অবিবাহিত ছিলেন। স্বজন ও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কথা শুনে ও তাঁর ফেসবুক স্ট্যাটাস দেখে মনে হচ্ছে, হয়তো প্রেমঘটিত কারণে আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে। এর পরও এর নেপথ্যে অন্য কোনো কারণ আছে কি না, কারো প্ররোচনা আছে কি না, তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। পরিবার মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে।

চাঁদা না পেয়ে ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে আহত : মিরপুরের শাহআলী কলেজ মার্কেটের এক ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে আহত করেছে সন্ত্রাসীরা। ওই ব্যবসায়ীর নাম হাজি আবুল খায়ের চিশতি। মার্কেটের খাজা রত্ন স্টোরের মালিক তিনি।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, গত মঙ্গলবার রাতে সজীব নামের এক সন্ত্রাসী তার সাত-আটজন সহযোগী নিয়ে ওই স্টোরে যায়। তারা আবুল খায়েরের কাছে ২৯ হাজার টাকা চাঁদা চায়। টাকা না দেওয়ায় তারা চাপাতি দিয়ে তাঁকে কোপাতে থাকে। চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়।

গতকাল আবুল খায়ের ও তাঁর ছেলে কালের কণ্ঠে এসে অভিযোগ করেন, সন্ত্রাসীদের ভয়ে পুলিশের কাছেও যাওয়ার সাহস পাচ্ছেন তাঁরা। থানার সামনে চাঁদাবাজরা দাঁড়িয়ে থাকছে। পুলিশকে জানালে হত্যা করবে বলে মোবাইল ফোনে হুমকি দিচ্ছে। সজীব কারাগারে ছিল। কিছুদিন আগেই মুক্তি পেয়েছে।

যাত্রাবাড়ীতে ফল বিক্রেতাকে হত্যা : যাত্রাবাড়ী এলাকায় কেতাব আলী নামের এক ফল বিক্রেতাকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল বিকেল ৪টার দিকে যাত্রাবাড়ীর চৌরাস্তা এলাকায় দোকান বসানোকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটে। কেতাব আলীর বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলার গুনিয়াউক গ্রামে।

জানা গেছে, ১৫-২০ দিন আগে যাত্রাবাড়ীর মদিনা মসজিদ কলাপট্টি এলাকায় ছেলে শিপনের বাসায় বেড়াতে আসেন কেতাব আলী। প্রায়ই ছেলের ফলের দোকানে বসতেন তিনি।

শিপন জানান, ফলের দোকান বসানো নিয়ে পাশের দুই দোকানির সঙ্গে তাঁর ধস্তাধস্তি হয়। এ সময় তাঁর বাবা ছাড়াতে গেলে তাঁকেও মারধর করে ওই দোকানিরা। একপর্যায়ে অসুস্থ বোধ করায় বাবাকে বাসায় পাঠিয়ে দেন তিনি। বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে আবার দোকানে আসার পথে বাবা অচেতন হয়ে রাস্তায় পড়ে যান। উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। দুই দোকানির কিল-ঘুষিতে তাঁর বাবা অসুস্থ হয়ে মারা গেছেন।

যাত্রাবাড়ী থানার ওসি আনিসুর রহমান বলেন, দুই দোকানদারের মধ্যে হাতাহাতি হয়েছে। এটা বড় ধরনের কোনো মারামারি নয়। তবে বয়স্ক লোক হওয়ায় কোনো দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।


মন্তব্য